রাজশাহীতে সাবেক এমপিসহ ৪ নেতার স্বতন্ত্র প্রার্থী হওয়ার ঘোষণা

রাজশাহীর ছয়টি আসনে এবার আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন ৪৭ জন।

রাজশাহী প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 27 Nov 2023, 12:57 PM
Updated : 27 Nov 2023, 12:57 PM

দলীয় মনোনয়ন না পাওয়ায় দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে ভোটের লড়ার ঘোষণা দিয়েছেন রাজশাহীর সাবেক সংসদ সদস্যসহ চার আওয়ামী লীগের নেতা।

রাজশাহী-১ (গোদাগাড়ী-তানোর), রাজশাহী-৫ (পুঠিয়া-দুর্গাপুর), রাজশাহী-৬ (বাঘা-চারঘাট) আসনে দলের মনোনীত প্রার্থীর বাইরে তারা স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা দিয়েছেন। তাদের মধ্যে একজন সাবেক সংসদ সদস্য রয়েছেন।

রাজশাহী-১ আসনে দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন টানা পঞ্চমবারের মতো নৌকার প্রার্থী হওয়া বর্তমান সংসদ সদস্য ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী ওমর ফারুক চৌধুরী।

সেই আসনে মনোনয়ন না পেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক আখতারুজ্জামান আখতার।

এ ছাড়া মনোনয়ন না পাওয়া তানোর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও মুন্ডুমালা পৌরসভা সাবেক মেয়র গোলাম রাব্বানীও রাজশাহী-১ আসনে স্বতন্ত্র হয়ে নির্বাচন করার ঘোষণা দিয়েছেন।

রাজশাহী-৫ আসনে রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আহসানুল হক মাসুদ এবার স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে নির্বাচন করার ঘোষণা দিয়েছেন। ওই আসনে এবার নৌকার প্রার্থী হয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক দুইবারের সংসদ সদস্য আব্দুল ওয়াদুদ দারা।

রাজশাহী-৬ আসনে দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম। তার সঙ্গে ভোটে লড়তে চান রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও সাবেক সংসদ সদস্য রায়হানুল হক রায়হান।

যদিও একবারও দলীয় মনোনয়ন পাননি রায়হান। স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে তিনি ১৯৯৯ সালের উপ-নির্বাচনে রাজশাহী-৬ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন।

স্বতন্ত্র প্রার্থী হওয়ার বিষয়ে আখতারুজ্জামান আখতার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “প্রধানমন্ত্রী ও দলীয় সভানেত্রী শেখ হাসিনা স্বতন্ত্র প্রার্থী হওয়ার ক্ষেত্রে কোনো বিধি নিষেধ দেননি। বরং তিনি বলেছেন, এবার ভোটকে উৎসবমুখর করতে।

“তাই নির্বাচনে বেশি প্রার্থী হলে ভোটারদের মধ্যে উৎসাহ-উদ্দীপনা কাজ করবে ও ভোটকেন্দ্রে ভোটারদের উপস্থিতি বাড়বে।”

গোলাম রাব্বানী বলেন, “আমাদেরকে তৃণমূলের লোকজন চাইছে তাই স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে ভোট করার জন্য নির্বাচন কমিশন থেকে মনোনয়ন তুলব।”

অন্যদিকে সাবেক সংসদ সদস্য রায়হানুল হক রায়হান বলেন, স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছি। চারঘাট উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছি দীর্ঘদিন।

“এবার স্বতন্ত্র প্রার্থী হলে দল থেকে বাধা নেই। এ ছাড়া জনগণ চাইছেন আমি ভোটে আসি। তাই রিটানিং কর্মকর্তার কাছ থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছি।”

এদিকে ফেইসবুক লাইভে স্বতন্ত্র প্রার্থী হওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন আহসানুল হক মাসুদ।

সেখানে তিনি বলেন, “রাজশাহী-৫ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করার জন্য যা যা প্রক্রিয়া করার দরকার সবই আমি করেছি। আর প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশেই আমি নির্বাচন করতে প্রার্থী হয়েছি। কারণ ভোট হতে হবে প্রতিযোগিতামূলক এবং গ্রহণযোগ্যতামূলক।”

তিনি আরও বলেন, “আমি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনার নির্দেশনা ফলো করেই স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে ভোট করতেই প্রার্থিতা ঘোষণা করেছি। পুঠিয়া-দুর্গাপুরের জনগণ আমাকে ভোট দেওয়ার জন্য মুখিয়ে আছে। আমি শতভাগ আশা করি জনগণের ভোটের মাধ্যমে আমি জয়লাভ করবো।”

রাজশাহীর ছয়টি আসনে এবার আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন ৪৭ জন।

রোববার দলীয় প্রার্থী ঘোষণা করে আওয়ামী লীগ। এতে রাজশাহীর ছয়টি আসনে দলীয় মনোনয়ন পান রাজশাহী-১ আসনে টানা তিনবারের এমপি ওমর ফারুক চৌধুরী, রাজশাহী-২ নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী কামাল, রাজশাহী-৩ জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ, রাজশাহী-৪ আসনে তাহেরপুর পৌরসভার তিনবারের মেয়র অধ্যক্ষ আবুল কালাম আজাদ, রাজশাহী-৫ আসনে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও দুইবারের সাবেক সংসদ সদস্য আব্দুল ওয়াদুদ দারা এবং রাজশাহী-৬ পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম।

ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী নির্বাচনে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ তারিখ ৩০ নভেম্বর।