১৮ দিন আগে ‘অপহৃত’ জেলের লাশ মিলল নাফ নদীর তীরে

পরিবার বলছে, মোস্তাফিজুর রহমানকে ধরে নিয়ে গিয়েছিল আরাকান আর্মির লোকজন।

কক্সবাজার প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 19 Feb 2024, 08:36 AM
Updated : 19 Feb 2024, 08:36 AM

কক্সবাজারের উখিয়া সীমান্ত থেকে এক জেলের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে, যাকে ১৮ দিন আগে অপহরণ করা হয়েছিল বলে পরিবারের ভাষ্য।

মোস্তাফিজুর রহমান নামের ৪৭ বছর বয়সী ওই ব্যক্তি উপজেলার পালংখালী ইউনিয়নের আঞ্জুমান পাড়ার মৃত আব্দুস ছালামের ছেলে। তিনি পেশায় ছিলেন জেলে ও দিনমজুর।

রোববার রাতে উপজেলার পালংখালী ইউনিয়নের রহমতেরবিল সীমান্তে নাফ নদীর তীরের বেঁড়িবাধ থেকে তার লাশ উদ্ধার করার কথা জানান উখিয়া থানার ওসি মো. শামীম হোসেন।

মোস্তাফিজের ছোট ভাই মো. আমির হোসেন বলেন, ১ ফেব্রুয়ারি সকালে অন্য জেলেদের সঙ্গে মাছ ধরতে আঞ্জুমান পাড়া সীমান্তে নাফ নদীতে গিয়েছিলেন তার ভাই।

“এক পর্যায়ে আরাকান আর্মির সদস্যরা তাকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে নিয়ে যায়। পরে বিষয়টি বিজিবি ও পুলিশসহ সংশ্লিষ্টদের অবহিত করা হলেও ভাইয়ের সন্ধান পাওয়া যায়নি। অপহরণকারীরা আমাদের সঙ্গে কোনো ধরনের যোগাযোগও করেনি।”

আমির বলেন, রোববার সন্ধ্যার আগে আগে রহমতেরবিল সীমান্তে চিংড়ি ঘেরে কাজ করার সময় নাফ নদীর বেঁড়িবাধের উপর মোস্তাফিজের লাশ দেখে সবাইকে খবর দেন স্থানীয় বাসিন্দা আবুল কালাম।

“খবর শোনার পর আমরা বিজিবি ও পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করি। রাত সাড়ে ১১টার দিকে বিজিবির সহায়তায় রহমতেরবিল সীমান্তের বেঁড়িবাধ থেকে মরদেহ নিয়ে আসা হয়।”

ওসি শামীম হোসেন বলেন, সোমবার সকালে মোস্তাফিজের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

“তার শরীরের আঘাতের কোনো চিহ্ন নেই। তবে তার পায়ে রশি বা শিকল জাতীয় কোনো কিছু দিয়ে বেঁধে রাখার চিহ্ন রয়েছে।”

তবে কারা, কী কারণে মোস্তাফিজকে অপহরণ করে হত্যা করেছে, সে বিষয়ে পুলিশ এখনো নিশ্চিত হতে পারেনি বলে জানান ওসি।

মোস্তাফিজের বিষয়টি নিয়ে কক্সবাজার বিজিবি-৩৪ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আব্দুল্লাহ আল মাশরুকির মোবাইল ফোনে একাধিকবার কল করা হলে তিনি রিসিভ করেননি।