নারায়ণগঞ্জে প্রধানমন্ত্রীর ছবি ভাঙচুরের দায়ে যুবকের ১০ বছর কারাদণ্ড

রায়ের সময় আসামি আদালতে অনুপস্থিত ছিলেন।

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 20 Sept 2022, 04:08 PM
Updated : 20 Sept 2022, 04:08 PM

সোনারগাঁ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে রাখা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি ভাঙচুরের দায়ে এক যুবককে ১০ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে নারায়ণগঞ্জের একটি আদালত।

মঙ্গলবার সকালে নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ দ্বিতীয় আদালতের বিচারক সাবিনা ইয়াসমিন আসামির অনুপস্থিতিতে এই রায় ঘোষণা করেন বলে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী (এপিপি) জাসমীন আহমেদ জানান।

দণ্ডপ্রাপ্ত সোহাগ আলী (২৮) সোনারগাঁ পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের সাহাপুর এলাকার বাসিন্দা।

মামলার বরাত দিয়ে আইনজীবী বলেন, ২০১৫ সালের ২৭ ডিসেম্বর সোহাগ আলী সোনারগাঁ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে থাকা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবিসহ ফ্রেম বের করে পরিষদ প্রাঙ্গণে শহীদ মিনারে ভাঙচুর করেন। এ সময় আশপাশের লোকজন তাকে আটক করে মারধর করে পুলিশে দেয়।

এ ঘটনায় তৎকালীন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) নির্দেশে পরিষদের কম্পিউটার অপারেটর আশরাফুল ইসলাম বাদী হয়ে বিশেষ ক্ষমতা আইনে সোনারগাঁ থানায় একটি মামলা করেন। মামলায় সোহগসহ তিনজনকে আসামি করা হয়।

আইনজীবী জাসমীন আহমেদ বলেন, মামলায় তিনজনকে আসামি করা হলেও তদন্তকারী কর্মকর্তা অভিযোগপত্রে কেবল সোহাগ আলীকে অভিযুক্ত করেন। বাকি দুজনকে অব্যাহতি দেওয়া হয়।

রায়ে সোহাগকে ১০ বছরের সাজা ছাড়াও বিচারক তাকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও তিন মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন।

এদিকে সোহাগ আলীকে ‘মানসিক ভারসাম্যহীন’ দাবি করে তার চাচা মো. কালাম বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “ডেকোরেটর শ্রমিক হিসেবে কাজ করতো সোহাগ আলী। ওই ঘটনার দুই বছর আগে ডেকোরেটরের কাজ করতে গিয়ে উঁচু থেকে পড়ে মাথায় আঘাত পেয়ে মানসিকভাবে ভারসাম্য হারিয়ে ফেলে। এক বছর জেলে খেটে জামিন নিয়েছিল।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক