গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু বিশ্ববিদ্যালয়ের ৮ শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার

গত ২৩ নভেম্বর আত্মপক্ষ সমর্থনে এ আট শিক্ষার্থীকে নোটিশ দিয়েছিল বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 25 Jan 2024, 10:01 AM
Updated : 25 Jan 2024, 10:01 AM

হামলা-মারপিট বা পরীক্ষায় অসদুপায় অবলম্বন করে শৃঙ্খলা ভঙ্গ ও আইন অমান্য করায় গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের আট শিক্ষার্থীকে বিভিন্ন মেয়াদে বহিষ্কার করা হয়েছে।

বুধবার বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার দলিলুর রহমান স্বাক্ষরিত এক অফিস আদেশে এই তথ্য জানা গেছে। 

এর মধ্যে গত বছরের ৫ নভেম্বর ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে হামলা ও মারপিটের ঘটনায় পাঁচ জনকে এবং পরীক্ষায় অসদুপায় অবলম্বন করায় তিনজন বহিষ্কার করা হয়েছে।

হামলা ও মারপিটের ঘটনায় আজীবন বহিষ্কার করা হয়েছে ফার্মেসি বিভাগের চতুর্থ বর্ষের রনি মৃধা এবং ফিশারিজ ও মেরিন বায়োসায়েন্স (এফএমবি) বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের উজ্জ্বল আহমেদ সাকিবকে।

দুই সেমিস্টারের জন্য বহিষ্কার করা হয়েছে ফার্মেসি ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী আবু হেনা, চতুর্থ বর্ষের রাতুল হাসান রুমান এবং এফএমবি বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী সাইফুল ইসলাম সাগরকে।

অন্যদিকে পরীক্ষার শেষে অতিরিক্ত উত্তরপত্র নিয়ে বাড়ি থেকে উত্তর লিখে এনে অফিসের কর্মচারীর মাধ্যমে মূল খাতায় সংযুক্ত করার অপরাধে মনোবিজ্ঞান বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী রেহানা আক্তার, লিওন সিকদার ও শিহাব ইসলামকে চার সেমিস্টারের জন্য বহিষ্কার করা হয়েছে।

এর আগে গত ২৩ নভেম্বর ‘কেন বহিষ্কার করা হবে না’ তা জানিয়ে সাত কর্ম দিবসের মধ্যে আত্মপক্ষ সমর্থনে এ আট শিক্ষার্থীকে নোটিশ দিয়েছিল বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ।

শিক্ষার্থীদের বহিষ্কার প্রসঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. একিউএম মাহবুব বলেন, “বিশ্ববিদ্যালয়ের শৃঙ্খলা ভঙ্গ, আইনের প্রতি অনুগত ও শ্রদ্ধাশীল না থাকায় তাদের ব্যাপারে আমরা এই সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আশা করি ভবিষ্যতে শিক্ষার্থীরা এ ধরনের কার্যকলাপ থেকে বিরত থাকবে।”