টেকনাফে ৩৩ কেজির পোয়া, দাম হাঁকলেন সাড়ে ৭ লাখ টাকা

পোয়ার বায়ুথলি দিয়ে বিশেষ ধরনের সার্জিকেল সুতা তৈরি করা যায় বলে বিশ্বে এর ব্যাপক চাহিদা।

টেকনাফ প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 14 Sept 2022, 03:18 PM
Updated : 14 Sept 2022, 03:18 PM

কক্সবাজারের টেকনাফের শাহপরীর দ্বীপে জেলেদের জালে ধরা পড়েছে ৩৩ কেজি ৮৪ গ্রাম ওজনের একটি পোয়া মাছ; যার দাম হাঁকানো হচ্ছে সাড়ে সাত লাখ টাকা।

বুধবার ভোরে ‘এফবি ইসতিয়াক আহমদ’ নামে ফিশিং ট্রলারের জেলেরা মাছটি ধরা পড়ে; দুপুর ১টার দিকে মাছটি মিস্ত্রীপাড়া ফিশারি ঘাটে নিয়ে আসা হয়।

টেকনাফের জ্যেষ্ঠ মৎস্য কর্মকর্তা মো. দেলোয়ার হোসেন জানিয়েছেন, স্থানীয়রা মাছটিকে ‘কালা পোপা’ [কালো পোয়া] নামে চিনলেও এর বৈজ্ঞানিক নাম মিকটেরো পারকা বোনাসি (Mycteroperca bonaci); যার বায়ুথলি দিয়ে বিশেষ ধরনের সার্জিক্যাল সুতা তৈরি হয়ে থাকে। 

শাহপরীর দ্বীপ বাজার পাড়ার ট্রলারের মালিক মো. ইসমাইল জানান, ৩৩ কেজির মাছটির দাম তিন লাখ টাকা পর্যন্ত উঠেছে। তবে ন্যায্যমূল্য না পাওয়ায় তিনি মাছটি কক্সবাজারে পাঠিয়েছেন। বিদেশে মাছের পটকা (বায়ুথলি) রপ্তানি করেন এমন ব্যবসায়ীদের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করছেন।

ফিশিং ট্রলারটির মাঝি আমিন উল্লাহ জানান, “মঙ্গলবার বিকালে মাছ ধরার জন্য শাহপরীর দ্বীপ মিস্ত্রিপাড়া ঘাট থেকে ১০ জন মাঝিমাল্লা নিয়ে বঙ্গোপসাগরে রওনা হন। বুধবার ভোরে জাল ওঠালে কয়েকটি লাল কোরালসহ বড় একটি ’কালা পোপা’ [কালো পোয়া] পাওয়া যায়। বিষয়টি ট্রলারের মালিককে জানালে তিনি ঘাটে চলে আসতে বলেন।

মাছটি পেয়ে তারা খুব খুশি বলে জানান আমিন উল্লাহ মাঝি।

টেকনাফ উপজেলার জ্যেষ্ঠ মৎস্য কর্মকর্তা মো. দেলোয়ার হোসেন বলেন, এত বড় পোয়া মাছ সাধারণত ধরা পড়ে না। মাছটির বায়ুথলি বা এয়ার ব্লাডার দিয়ে বিশেষ ধরনের সার্জিকেল সুতা তৈরি করা যায় বলে বিশ্বে এর ব্যাপক চাহিদা। এই মাছের পটকা থাইল্যান্ড ও সিঙ্গাপুরে রপ্তানি হয়।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক