মোবাইল ফোন কিনে দেওয়ার কথা দিয়ে মামাত বোনকে ‘ধর্ষণ’

মেয়েটির মা একটি কারখানার শ্রমিক। সকালে তিনি কাজে বেরিয়ে গেলে মেয়েটি বাড়িতে একাই ছিল।

পঞ্চগড় প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 22 Feb 2024, 03:40 PM
Updated : 22 Feb 2024, 03:40 PM

পঞ্চগড়ে ষষ্ঠ শ্রেণীর এক ছাত্রীকে মোবাইল ফোন কিনে দেওয়ার কথা বলে ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠেছে তার ফুফাত ভাইয়ের বিরুদ্ধে।

দেবীগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) নজরুল ইসলাম জানান, বুধবার রাতে উপজেলার পামুলি ইউনিয়নের ডাঙ্গাপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। রাতেই ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে নারী ও শিশু দমন নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন।

মামলার আসামি আমীর আলী (৩৫) ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছেন। তার বাড়িও ডাঙ্গাপাড়া এলাকায়। আর ভুক্তভোগী মেয়েটি পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বলে জানিয়েছেন পরিদর্শক নজরুল।

নজরুল বলেন, “মেয়েটির মা একটি কারখানার শ্রমিক। বুধবার সকালে তিনি কাজে বেরিয়ে যাওয়ার পর মেয়েটি বাড়িতে একাই ছিল। এ সুযোগে আমীর মেয়েটির ঘরে ঢুকে তাকে মোবাইল ফোন কিনে দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ করে। এ সময় ওই স্কুল ছাত্রীর চিৎকারে প্রতিবেশীরা ছুটে গেলে আমীর পালিয়ে যায়।”

পরে ওই ছাত্রীকে উদ্ধার করে প্রথমে দেবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসকদের পরামর্শে উন্নত চিকিৎসার জন্য পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠানো হয় বলে জানান এ পুলিশ কর্মকর্তা।

পামুলি ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য গৌরিকান্ত রায় বলেন, “মেয়েটিকে তার ফুপাত ভাই ধর্ষণ করেছে বলে শুনেছি। তাকে দ্রুত গ্রেপ্তারের দাবি জানাই।”

আমীরকে গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে বলে পরিদর্শক নজরুল ইসলাম জানিয়েছেন।