একাত্তরের গণহত্যা নিয়ে কানাডায় আন্তর্জাতিক সম্মেলন বুধবার

অনলাইনে পুরো সম্মেলনে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ অংশগ্রহণ করা যাবে।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 20 Sept 2022, 05:48 PM
Updated : 20 Sept 2022, 05:48 PM

বাংলাদেশের গণহত্যার স্বীকৃতির দাবি জোরালো করার লক্ষ্য নিয়ে কানাডায় অনুষ্ঠিত হবে ‘স্মরণ ও স্বীকৃতি: ১৯৭১ সালের বাংলাদেশের গণহত্যা’ শীর্ষক আন্তর্জাতিক সম্মেলন।

 কানাডায় বাংলাদেশ হাই কমিশনের সহায়তায় বুধবার যৌথভাবে এই সম্মেলনের আয়োজন করেছে কানাডার বঙ্গবন্ধু সেন্টার ফর বাংলাদেশ স্টাডিজ (বিসিবিএস), কনফ্লিক্ট অ্যান্ড রিজিলিয়েন্স রিসার্চ ইন্সটিটিউট (সিআরআরআই), ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্টার ফর জেনোসাইড স্টাডিজ এবং মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর।

আয়োজককের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, কানাডা ও আমেরিকার খ্যাতনামা বিশেষজ্ঞরা দিনব্যাপী এই সম্মেলনে বাংলাদেশের গণহত্যার বিভিন্ন দিক নিয়ে আলোকপাত করবেন এবং স্বীকৃতির গুরুত্ব তুলে ধরবেন।

সম্মেলনের মূল আয়োজনটি এবং বিভিন্ন প্যানেল আলোচনা কানাডার ম্যানিটোবায় অবস্থিত কানাডিয়ান মিউজিয়াম ফর হিউম্যান রাইটসের অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে। অনলাইনে পুরো সম্মেলনে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে অংশগ্রহণ করা যাবে।

বাংলাদেশ সময় বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় সম্মেলনটি শুরু হবে।

আয়োজকরা বলছেন, বাংলাদেশের বাইরে এই প্রথম এমন একটি সম্মেলনের আয়োজন করা হচ্ছে, যেখানে বাংলাদেশের ‘ফরগটেন জেনোসাইড’ বা ‘ভুলে যাওয়া গণহত্যা’কে স্মরণ করার পাশাপাশি এর আন্তর্জাতিক স্বীকৃতির জন্য বিশ্ববাসীর কাছে জোরালো আবেদন করা হবে।

সম্মেলনে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করবেন ওয়াশিংটন ডিসির জেনোসাইড ওয়াচের অধ্যাপক গ্রেগরি স্ট্যান্টন। অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন এবং জাতিসংঘের আন্ডার সেক্রেটারি এলিস ওয়াইরিমু এনডেরিতুর ভিডিও বার্তা প্রচার হবে।

কেন্দ্রীয় অধিবেশন-১ এ বাংলাদেশের গণহত্যা বিষয়ে উপস্থাপনা করবে মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর এবং বিসিবিএস।

একাত্তরে গণহত্যার শিকার ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের উপস্থাপনা করবে ’প্রজন্ম ‘৭১’। সম্মেলনে জহির রায়হানের প্রামাণ্য চলচ্চিত্র ’স্টপ জেনেসাইড’ প্রদর্শন করা হবে।

কেন্দ্রীয় অধিবেশন-২ এ বাংলাদেশের গণহত্যা বিষয়ে উপস্থাপনা করবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্টার ফর জেনোসাইড স্টাডিজ এবং বিসিবিএস।

মধ্যাহ্ন এবং নেটওয়ার্কিং বিরতিতে মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের উপর সংক্ষিপ্ত তথ্যচিত্র প্রদর্শিত হবে।

‘জেনোসাইড প্রিভেনশন: আপ, মিড এন্ড ডাউন স্ট্রিম’ বিষয়ে বিশেষ বক্তৃতা দেবেন যুক্তরাষ্ট্রের কিন স্টেট কলেজের কোহেন প্রফেসর অব হলোকাস্ট অ্যান্ড জেনোসাইড স্টাডিজ ড. জেমস ওয়ালার এবং ইউনিভার্সিটি অব ম্যানিটোবার পিস অ্যান্ড কনফ্লিক্ট স্টাডিজ পরিচালক অধ্যাপক ড. অ্যাডাম মুলার।

‘আদিবাসী গণহত্যা: অতীত থেকে শেখা’ বিষয়ে উপস্থাপনা করবেন সাউদার্ন চিফ অফ অর্গানাইজেশনের সিইও।

“বাংলাদেশ-কানাডা সাম্য ও সম্প্রীতি: ১৯৭১ এবং এরপর” শীর্ষক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের পোস্টার প্রদর্শনীও হবে সম্মেলনে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক