যুদ্ধের ‘নির্দোষ ভুক্তভোগী’ বাংলাদেশ: কৃষিমন্ত্রী

খাদ্য ও কৃষি উপকরণকে যুদ্ধ ও অবরোধের বাইরে রাখার প্রস্তাব দিয়েছেন তিনি।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 22 Jan 2023, 06:26 PM
Updated : 22 Jan 2023, 06:26 PM

ইউক্রেইন-রাশিয়া যুদ্ধের কারণে খাদ্য নিরাপত্তায় বাংলাদেশ ‘নির্দোষ ভুক্তভোগী’ হয়েছে উল্লেখ করে খাদ্য ও কৃষি উপকরণকে যুদ্ধ ও অবরোধের বাইরে রাখার প্রস্তাব দিয়েছেন কৃষিমন্ত্রী আব্দুর রাজ্জাক।

কৃষিমন্ত্রীদের বার্লিন সম্মেলনে তিনি বলেছেন, “চলমান রাশিয়া-ইউক্রেইন যুদ্ধের নির্দোষ ভুক্তভোগী বাংলাদেশ। এ যুদ্ধের ফলে সারের দাম চার গুণ বৃদ্ধি পেয়েছে, খাদ্যশস্যের দাম অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে ও খাদ্য নিরাপত্তায় প্রভাব ফেলেছে। এ নেতিবাচক প্রভাব নিরসনের জন্য আমি উন্নত বিশ্বকে নমনীয়, সহজ ও দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণের আহ্বান জানাচ্ছি।”

শনিবার জার্মানির বার্লিনে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে আব্দুর রাজ্জাক এ কথা বলেন বলে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে কৃষি মন্ত্রণালয়।

সম্মেলনে জানানো হয়, ২০৩০ সালের মধ্যে টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট (এসডিজি) অনুযায়ী বৈশ্বিক ক্ষুধা নিরসন (জিরো হাঙ্গার) করার কথা ছিল। কিন্তু বাস্তবতা হলো ক্ষুধায় আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে।

২০২১ সালে ৭০ কোটি ২০ লাখ থেকে ৮২ কোটি ৮০ লাখ মানুষ ক্ষুধায় আক্রান্ত হয়েছে, যা ২০২০ সালের তুলনায় ৪ কোটি ৬০ লাখ এবং ২০১৯ সালের তুলনায় ১৫ কোটি বেশি। বর্তমানে বিশ্ব দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর সবচেয়ে খারাপ খাদ্য সংকট পরিস্থিতি মোকাবেলা করছে। প্রজাতি বিলুপ্তি, কোভিড ১৯ আর যুদ্ধ খাদ্যসংকটে নতুন মাত্রা যোগ করেছে।

জার্মান ফেডারেল মিনিস্ট্রি অব ফুড অ্যান্ড এগ্রিকালচারের উদ্যোগে ‘গ্লোবাল ফোরাম ফর ফুড অ্যান্ড এগ্রিকালচার’ (জিএফএফএ) সম্মেলনের ১৫তম আসর শুরু হয় ১৮ জানুয়ারি থেকে। চার দিনের এ আয়োজনে ৭০টিরও বেশি দেশের কৃষিমন্ত্রী ও ১০টি আন্তর্জাতিক সংস্থার প্রতিনিধি অংশ নেন।

সম্মেলনে বাংলাদেশ প্রতিনিধি দলে কৃষি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. রুহুল আমিন তালুকদার ও বার্লিনে বাংলাদেশ দূতাবাসের মিনিস্টার সাইফুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন। 

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক