নানা অনিয়মে চট্টগ্রামের দুই হাসপাতালকে জরিমানা

এছাড়া আগ্রাবাদ এলাকায় ইসলামি ব্যাংক হাসপাতাল, মাদার অ্যান্ড চাইল্ড কেয়ার হসপিটাল এবং মেডিএইড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে অভিযান চালানো হয়।

চট্টগ্রাম ব্যুরোবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 28 Feb 2024, 03:25 PM
Updated : 28 Feb 2024, 03:25 PM

মেয়াদোত্তীর্ণ রাসায়নিক পাওয়া এবং বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগে চট্টগ্রামের ম্যাক্স ও ন্যাশনাল হাসপাতালকে দুই লাখ টাকা জরিমানা করেছে ভোক্তা অধিকার ও সংরক্ষণ অধিদপ্তর।

বুধবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত নগরীর মেহেদীবাগ এলাকায় ম্যাক্স হাসপাতাল অ্যান্ড ডায়গনস্টিক হাসপাতাল এবং ন্যাশনাল হাসপাতালে অভিযান চালানো হয়।

চট্টগ্রাম বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক মো. মহিউদ্দিনের নেতৃত্বে পরিচালিত অভিযানে সাথে ছিল ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।

অভিযানে অংশ নেয়া ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. ওয়াজেদ চৌধুরী বলেন, “ম্যাক্স হাসপাতালের ডায়গিনস্টিক সেন্টারের প্যাডে টেকনোলজিস্টের অগ্রিম স্বাক্ষর দেখা যায়। এছাড়া ল্যাবে মেয়াদোর্ত্তীণ কেমিক্যাল পাওয়া যায়। ইসিজি করানোর জন্য কার্ডিওগ্রাফারও ছিল না।”

বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালকের কার্যালয় থেকে জানানো হয়, এসব অভিযোগে প্রতিষ্ঠানটিকে এক লাখ টাকা জরিমানা করে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।

এছাড়া ন্যাশনাল হাসপাতালের জরুরি বিভাগে ইসিজি করানোর জন্য কার্ডিওগ্রাফার পাওয়া যায়নি। তাদের পরিচালিত সিগমা ল্যাবে মেয়াদোর্ত্তীণ কেমিক্যাল পাওয়া গেছে।

এসব অভিযোগে ল্যাবটি থেকে এক লাখ টাকা জরিমানা আদায় করে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।

অপরদিকে সিভিল সার্জন ইলিয়াছ চৌধুরীর নেতৃত্বে নগরীর আগ্রাবাদ এলাকায় ইসলামি ব্যাংক হাসপাতাল, মাদার অ্যান্ড চাইল্ড কেয়ার হসপিটাল এবং মেডিএইড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে অভিযান পরিচালনা করা হয়।

সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে জানানো হয়, ইসলামি ব্যাংক হাসপাতালের নথিপত্র সব ঠিক পাওয়া যায়।

তবে নোংরা পরিবেশ ও অপারেশন থিয়েটার কক্ষ অপরিষ্কার থাকায় পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করা হয় মাদার অ্যান্ড চাইল্ড কেয়ার হসপিটালকে। অপরদিকে মেডিএইড ডায়গনস্টিক সেন্টারকে নথিপত্র তলব করে কারণ দর্শাতে বলা হয়েছে।