চট্টগ্রামের আওয়ামী লীগ নেতা আবু ছালেহর মৃত্যু

প্রবীণ এই আওয়ামী লীগ নেতার বয়স হয়েছিল ৮২ বছর।

চট্টগ্রাম ব্যুরোবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 3 August 2022, 03:16 PM
Updated : 3 August 2022, 03:16 PM

মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক, সাবেক গণ পরিষদ সদস্য ও দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এম আবু ছালেহ মারা গেছেন।

বুধবার বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে নগরীর একটি বেসরকারি ক্লিনিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। এ সময় তার বয়স হয়েছিল ৮২ বছর।

দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “বার্ধক্যজনিত নানা অসুস্থতায় ভুগছিলেন তিনি। মঙ্গলবার উনাকে হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। বুধবার বিকালে তিনি শেষ নি:শ্বাস ত্যাগ করেন।

“এম. আবু ছালেহ ছিলেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ সহচর। ষাটের দশকের খ্যাতিমান এ ছাত্রনেতা মুক্তিযুদ্ধের সময় মুক্তিবাহিনীর পূর্বাঞ্চলীয় অধিনায়ক ছিলেন।”

তিন কন্যা সন্তানের জনক এম আবু ছালেহর প্রথম জানাজা বুধবার রাতে নগরীর কদম মোবারক মসজিদে অনুষ্ঠিত হবে। পরে বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় সাতকানিয়া হাইস্কুল মাঠে দ্বিতীয় জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হবে।

আবু ছালেহর মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এক শোকবার্তায় তিনি বলেন, “জনাব ছালেহ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান-এর আদর্শের একনিষ্ঠ অনুসারী এবং তার ঘনিষ্ঠ সহচর ছিলেন। অত্যন্ত কর্মীবান্ধব এই বর্ষীয়ান আওয়ামী লীগ নেতা ছাত্রজীবনে চট্টগ্রাম জেলা ছাত্রলীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছিলেন। শুদ্ধ রাজনীতির চর্চায় তিনি বর্তমান ও ভবিষ্যত প্রজন্মের নিকট স্মরণীয় এবং অনুকরণীয় হয়ে থাকবেন।”

প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ও আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া শোক জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন।

শিক্ষা উপমন্ত্রী ও চট্টগ্রামের কোতোয়ালী-বাকলিয়া আসনের সংসদ সদস্য মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল তার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেন।

সাবেক গণ পরিষদ সদস্য আবু ছালেহর মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোছলেম উদ্দিন আহমেদ ও সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান।

নগর আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে শোক জানিয়েছেন সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।

বর্তমান মেয়র নগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এম রেজাউল করিম চৌধুরীও পৃথক শোক বার্তায় মরহুমের আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক