ক্লাসে ফিরেছেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় চারুকলার শিক্ষার্থীরা

তবে ক্লাসে ফিরলেও ভবনের বাইরে চারুকলা প্রাঙ্গণে ক্লাস করেন তারা

চট্টগ্রাম ব্যুরোবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 23 Jan 2023, 03:24 PM
Updated : 23 Jan 2023, 03:24 PM

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনির সঙ্গে বৈঠকের দুইদিন পরে ক্লাসে ফিরেছেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) চারুকলা ইন্সস্টিটিউটের শিক্ষার্থীরা।

সোমবার ৮৩ দিন পর একাডেমিক কার্যক্রম শুরু হলেও ভবনের বাইরে চারুকলা প্রাঙ্গণে ক্লাস করেন তারা।

চারুকলার স্নাতকোত্তরের শিক্ষার্থী মোহাম্মদ শহীদ বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “শিক্ষামন্ত্রী এবং উপমন্ত্রীর পর গতকালও প্রশাসনের পক্ষ থেকে আমাদের দাবিগুলো পূরণের আশ্বাস দেওয়া হয়েছে। ইনস্টিটিউট স্থানান্তরের বিষয়টি যেহেতু দীর্ঘ সময়ের ব্যাপার তাই আমরা ক্লাসে ফিরতে রাজি হয়েছি।

“তবে আজ আমরা সবাই ভবনের বাইরে চারুকলা প্রাঙ্গণে ক্লাস করেছি। ভবনের সংস্কার কাজ শেষ না হওয়া পর্যন্ত আমরা ঝুঁকিপূর্ণ একাডেমিক ভবনে ক্লাস করব না।”

এর আগে রোববার সকালে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সঙ্গে প্রশাসন ও বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের বৈঠকের পর আন্দালনকারীরা ক্লাসে ফিরতে রাজি হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর মুহম্মদ ইয়াকুব বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “গতকাল বৈঠকে শিক্ষার্থীরা আন্দোলন প্রত্যাহার করতে রাজি হয়েছে। আজ থেকেই একাডেমিক কার্যক্রম শুরু হয়েছে। একাডেমিক ভবনের সংস্কার কাজের জন্য ইতোমধ্যে প্রকৌশলীরা গিয়েছেন। ইনফরমেশন সেন্টারের যে ভবনটি করা হয়েছিল সেটিও শিক্ষার্থীদের জন্য খালি করে দেওয়া হচ্ছে।” 

এরআগে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে রোববারের বৈঠকে চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক, চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দিন, পুলিশের ঊর্ধ্বতন প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

সহকারী প্রক্টর মুহম্মদ ইয়াকুব জানান, “জেলা প্রশাসক বলেছেন, চারুকলা ইন্সটিটিউট স্থানান্তরের বিষয়টি চিঠি দিয়ে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে জানাবেন।”

শনিবার দুপুরে চট্টগ্রাম সার্কিট হাউজে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপুমনি ও শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, জেলা প্রশাসক, নগর পুলিশের কমিশনার আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ৬০ জনকে নিয়ে বৈঠক করেন।

মন্ত্রী ও উপমন্ত্রী শিক্ষার্থীদের দাবি পূরণের আশ্বাস দিয়ে তাদের ক্লাসে ফেরার আহ্বান জানান।

বৈঠক শেষে শিক্ষামন্ত্রী নগরীর বাদশা মিয়া সড়কের চারুকলা ইন্সটিটিউটে গিয়ে গেইটের তালা খুলে দেন এবং শিক্ষার্থীদের ক্লাস করার আহ্বান জানান।

অবশ্য মন্ত্রী ও উপমন্ত্রী ইনস্টিটিউট থেকে ফিরে যাওয়ার পর আবারও মানববন্ধন করে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা মূল ক্যাম্পাসে ফিরে যাওয়ার দাবিতে অনড় থাকার কথা জানায়। 

শ্রেণিকক্ষের ছাদ থেকে ইট-সিমেন্ট খসে পড়ায় গত ২ নভেম্বর থেকে ক্লাস বর্জন শুরু করে চারুকলা ইনস্টিটিউটের শিক্ষার্থীরা। পরে তারা ২২ দফা দাবি জানায়। দাবি আদায়ে সাড়া না পেয়ে তারা এক দফা অর্থাৎ চবি ক্যাম্পাসে ফিরে যাওয়ার দাবিতে বাদশা মিয়া সড়কের ক্যাম্পাসের মূল ফটকে তালা দিয়ে ক্লাস বর্জন ও আন্দোলন শুরু করে। এরপর ৮৩ দিন পেরিয়েছে।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস নগরী থেকে ২২ কিলোমিটার দূরে নগরীর বাদশা মিয়া সড়কের সরকারি চারুকলা কলেজ ২০১০ সালে বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা বিভাগের সাথে একীভূত হয় এবং চারুকলা ইনস্টিটিউট হিসেবে সেখানেই শিক্ষা কার্যক্রম শুরু করে। তার আগে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে চারুকলা বিভাগের কার্যক্রম চলত।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক