মহল্লায় মহল্লায় গুজব রটায় কারা, তালিকা করতে বললেন নাছির

চট্টগ্রাম নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেছেন, ‘ক্ষুদ্র ও ব্যক্তি স্বার্থে’ অনৈক্য বা বিশৃঙ্খলা রাজনৈতিক প্রতিপক্ষকে ফায়দা লোটার সুযোগ করে দেবে।

চট্টগ্রাম ব্যুরোবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 10 Sept 2022, 07:39 PM
Updated : 10 Sept 2022, 07:39 PM

রাজনৈতিক প্রতিপক্ষের ‘দূরভিসন্ধিমূলক চক্রান্ত’ প্রতিহত করতে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের প্রস্তুতি নিতে বলেছেন চট্টগ্রাম নগর কমিটির সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দীন।

তিনি বলেছেন, “মহল্লায় মহল্লায় যারা মিথ্যাচার ও গুজব ছড়িয়ে মানুষকে বিভ্রান্ত করছে তাদের নাম ঠিকানা তালিকাভুক্ত করে প্রশাসনকে অবগত করতে হবে। আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় প্রত্যেক নেতাকর্মীকে প্রশাসনকে সহযোগিতা করতে হবে।”

শনিবার আমিন জুট মিল জামে মসজিদ প্রাঙ্গণে নগর আওয়ামী লীগের ৪৩নম্বর সাংগঠনিক ওয়ার্ডের সাবেক সভাপতি দলিলুর রহমানের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকীতে আয়োজিত স্মরণ সভায় সাবেক সিটি মেয়র নাছিরের এমন বক্তব্য আসে।

তিনি বলেন, “প্রয়াত দলিলুর রহমানের মত যারা দলকে ভালবাসেন এবং দলীয় নীতি ও আদর্শের প্রতি অনুগত, তাদেরকে অবশ্যই সাংগঠনিক শৃঙ্খলা ও নির্দেশনা মেনে চলতে হবে।

“ক্ষুদ্র ও ব্যক্তি স্বার্থে কোনো অনৈক্য বা বিশৃঙ্খলা রাজনৈতিক প্রতিপক্ষকে অসৎ ফায়দা লোটার সুযোগ করে দেবে।”

নাছির বলেন, “প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বৈশ্বিক করোনা অতিমারী এবং ইউক্রেন-রুশ চলমান যুদ্ধের প্রভাবে বিশ্বব্যাপী জ্বালানি সংকটে মুদ্রাস্ফীতি, নিত্যপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির হার ঊর্ধ্বমুখী হয়েছে। এর মধ্যেও বাংলাদেশের উন্নয়ন অভিযাত্রা চলমান রয়েছে।

“মানুষ কষ্ট পাচ্ছে এটা ঠিক। এই কষ্ট লাঘবে শেখ হাসিনা হাল ছেড়ে দেননি। সংকট উত্তরণে তিনি নিরন্তর প্রয়াস অব্যাহত রাখলেও তাতে ঈর্ষান্বিত হয়ে বিএনপি-জামায়াত উল্টোপথে হাঁটছে।”

এই আওয়ামী লীগ নেতা বলেন, “তারা অতীতের মতই ধ্বংসাত্মক অপরাজনীতির জাল ছড়াচ্ছে। সময় থাকতে জনগণকে সাথে নিয়ে চক্রান্তের জাল অবশ্যই ছিন্ন করতে হবে।”

দলের নেতাকর্মীদের উদ্দেশে নাছির বলেন, “যে কোনো মুহূর্তে বড় ধরনের দূরভিসন্ধিমূলক অঘটন ঘটতে পারে, তার আগেই সেই আশঙ্কা দূর করার জন্য প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি নিতে হবে।”

নগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী বলেন, “আমরা যে সকল ত্যাগী ও পরীক্ষিত নেতা-কর্মীদের হারিয়েছি, তারা দলের সম্পদ। এরা দুঃসময়ে দলকে আকড়ে ধরে রেখেছিলেন। এদের অবদানে সংগঠনটির ভিত্তি উত্তরোত্তর মজবুত হয়েছে।

“দলের সুসময়ে সুবিধাভোগী হাইব্রিডের ভিড় বাড়লেও দুঃসময়ে এরা গা ঢাকা দেয়। তাদের একমাত্র লক্ষ্য নিজের স্বার্থ উদ্ধার ও অর্থবিত্তের পাহাড় গড়তে ক্ষমতা ও দলীয় পদ-পদবীকে ব্যবহার করা।”

ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মালেকের সঞ্চালনায় এবং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রুহুল আমিন মুন্সীর সভাপতিত্বে সভায় অন্যদের মধ্যে দলের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদদ্য শফর আলী, প্রচার সম্পাদক শফিকুল ইসলাম ফারুক, সাংস্কৃতিক সম্পাদক আবু তাহের, নির্বাহী সদস্য মহব্বত আলী খান বক্তব্য দেন।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক