নাঈম-তৌহিদের ফিফটি, সাইফ-মিরাজের ৫ উইকেট

বিসিএলের প্রথম ম্যাচে অলরাউন্ড নৈপুণ্যে দক্ষিণাঞ্চলকে জেতালেন অধিনায়ক মেহেদী হাসান মিরাজ।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 20 Nov 2022, 11:09 AM
Updated : 20 Nov 2022, 11:09 AM

আঁটসাঁট বোলিংয়ে ৫ উইকেট নিলেন মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিন। ভালো বোলিং করলেন তাসকিন আহমেদ, শফিকুল ইসলামরাও। উত্তরাঞ্চলের পেসারদের তোপ সামলে দক্ষিণাঞ্চলকে লড়াই করার মতো সংগ্রহ এনে দিলেন মোহাম্মদ নাঈম শেখ ও তৌহিদ হৃদয়। পরে নিয়ন্ত্রিত স্পিনে উত্তরাঞ্চলকে চেপে ধরে বাকিটা সারলেন দক্ষিণাঞ্চলের দুই স্পিনার মেহেদী হাসান মিরাজ ও নাসুম আহমেদ। 

বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগের দশম আসরের উদ্বোধনী দিনে বিকেএসপির ৪ নম্বর মাঠে উত্তরাঞ্চলের বিপক্ষে ৭২ রানের বড় জয় পেয়েছে দক্ষিণাঞ্চল। ১৯৯ রান তাড়ায় উত্তরাঞ্চল থেমেছে স্রেফ ১২৭ রানে। 

ডানহাতি অফ স্পিনে ৪২ রান খরচায় ৫ উইকেট পেয়েছেন মিরাজ। লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে এটি তার প্রথম ৫ উইকেট। এর সঙ্গে ব্যাট হাতে ২৫ রানের ইনিংস খেলে ম্যাচ সেরার পুরস্কারও জিতেছেন তিনি। 

অন্যান্য ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতার ম্যাচে ফিফটি করেন নাঈম ও তৌহিদ। সাবলীল ব্যাটিংয়ে ৬৬ রান করেন তৌহিদ। নাঈমের ব্যাট থেকে আসে ৫৪ রান। উত্তরাঞ্চলের হয়ে শামীম হোসেন খেলেন ৪২ রানের ইনিংস।

টস জিতে দক্ষিণাঞ্চলকে ব্যাটিংয়ে পাঠায় উত্তরাঞ্চল। নিচু বাউন্সের উইকেটে শুরুতেই প্রতিপক্ষকে চেপে ধরেন সাইফ ও তাসকিন। প্রথম পাওয়ার প্লের ১০ ওভারে ৪ উইকেট হারায় দক্ষিণাঞ্চল। চারজনই ফেরেন এলবিডব্লিউ হয়ে। আচমকা নিচু হয়ে যাওয়া ডেলিভারির বিপক্ষে তেমন কিছুই করার ছিল না তাদের। 

পঞ্চম উইকেটে ৮৩ রানের জুটি গড়ে প্রাথমিক ধাক্কা সামাল দেন নাঈম ও তৌহিদ। শামীমের হাতে বল তুলে দিয়ে এ জুটি ভাঙেন মাহমুদউল্লাহ। ব্যক্তিগত পঞ্চাশ ছুঁয়ে বড় শটের চেষ্টায় লং অন বাউন্ডারিতে ধরা পড়েন নাঈম। ৪ চারের সঙ্গে ২ ছয়ে ৬৬ বলে ৫৪ রান করেন তিনি। 

এরপর মিরাজের সঙ্গে দলকে এগিয়ে নিতে থাকেন তৌহিদ। এ জুটিতে আসে ৪২ রান। শফিকুলের বলে ফেরার আগে ৭১ বলে ৬৬ রান করেন এই মিডলঅর্ডার ব্যাটসম্যান। তার ইনিংসে ছিল ৪ চারের সঙ্গে ২টি ছক্কা। মিরাজ আউট হন ২৫ রান করে।

পাওয়ার প্লেতে ৩ উইকেট পাওয়া সাইফ দ্বিতীয় স্পেলে ফেরেন ৩৯তম ওভারে। পঞ্চম বলে এলবিডব্লিউ করেন জিয়াউর রহমানকে। এক ওভার পরে নাসুমকে মিড-অনে ক্যাচ বানিয়ে ৫ উইকেট পূরণ করেন তিনি। 

সবমিলিয়ে ৮ ওভারে ৩০ রান খরচায় ৫ উইকেট নেন এ ডানহাতি মিডিয়াম পেসার। লিস্ট 'এ' ক্রিকেটে এটি সাইফের তৃতীয় ৫ উইকেট। এছাড়া শফিকুল ও তাসকিনের শিকার ২টি করে উইকেট।

উইকেটের গতিপ্রকৃতি বুঝতে পেরে উত্তরাঞ্চলের ইনিংসের শুরু থেকেই স্পিন ব্যবহার করে দক্ষিণাঞ্চল। প্রথম ওভারে রানের খাতা খোলার আগে সাজঘরে ফেরেন ওপেনার তানজিদ হাসান। সেখান থেকে আর ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি তারা। 

বাকি ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতার ভিড়ে লড়েছেন কেবল শামীম। শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে আউট হওয়ার আগে ৫ চার ও ২ ছয়ে ৪২ রান করেন বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান। এছাড়া ফজলে মাহমুদ রাব্বি করেন ২৬ রান। অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহর ব্যাট থেকে আসে স্রেফ ৮ রান। 

বাঁহাতি স্পিনার নাসুম ৭ ওভারে এক মেডেনসহ ২০ রানে পেয়েছেন ৩ উইকেট।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

বিসিবি দক্ষিণাঞ্চল: ৪৩.৩ ওভারে ১৯৯ (এনামুল ১২, নাঈম শেখ ৫৪, জাকির ০, নাঈম ইসলাম ৪, নাসির ৪, তৌহিদ ৬৬, মিরাজ ২৫, জিয়াউর ২, আলাউদ্দিন ১০*, নাসুম ৭, শরিফুল ৬; তাসকিন ৮-১-৩৩-২, সাইফ ৮-১-৩০-৫, শফিকুল ৭.৩-০-৩৯-২, রকিবুল ১০-০-৪৩-০, মাহমুদউল্লাহ ৪-০-২৫-০, শামীম ৪-০-২০-১, ফজলে রাব্বি ২-০-৮-০)

বিসিবি উত্তরাঞ্চল: ২৯.৩ ওভারে ১২৭ (তানজিদ ০, সৈকত ২৬, শাহাদাত ৩, ফজলে রাব্বি ২৬, মাহমুদউল্লাহ ৮, আকবর ১৬, শামীম ৪২, সাইফ ২, তাসকিন ০, রকিবুল ২, শফিকুল ০*; শরিফুল ৭-২-৩৮-১, নাসুম ৭-১-২০-৩, মিরাজ ৯-১-৪২-৫, জিয়াউর ৪.৩-০-১৩-১, আলাউদ্দিন ১-০-৯-০, নাসির ১-০-৫-০)

ফল: বিসিবি দক্ষিণাঞ্চল ৭২ রানে জয়ী

ম্যান অব দা ম্যাচ: মেহেদি হাসান মিরাজ

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক