কনওয়ের সেঞ্চুরির পর পাকিস্তানকে গুঁড়িয়ে সমতায় নিউ জিল্যান্ড

দ্বিতীয় ওয়ানডেতে রান তাড়ায় কিউইদের সামনে পাত্তাই পেল না বাবর আজমের দল।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 11 Jan 2023, 05:29 PM
Updated : 11 Jan 2023, 05:29 PM

সময় যত গড়াল, উইকেট হয়ে উঠল আরও বেশি মন্থর। ব্যাটসম্যানদের জন্য রান করা হয়ে পড়ল কঠিন। ডেভন কনওয়ের সেঞ্চুরি ও কেন উইলিয়ামসনের ফিফটিতে তিনশর সম্ভাবনা জাগিয়েও ব্যাটিং ধসে নিউ জিল্যান্ড থমকে গেল আড়াইশ পেরিয়ে। সেটিই পাকিস্তানের জন্য হয়ে উঠল যেন পাহাড়সম। তাদের অল্পতে গুটিয়ে দিয়ে সিরিজে সমতা ফেরাল কিউইরা।

করাচিতে বুধবার দ্বিতীয় ওয়ানডেতে পাকিস্তানের বিপক্ষে নিউ জিল্যান্ডের জয় ৭৯ রানে।

১ উইকেটে ১৮৩ রানের শক্ত অবস্থানে থেকে নিউ জিল্যান্ড শেষ ওভারে অল আউট হয় ২৬১ রানে।

সিরিজের শেষ টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসের পর প্রথম ওয়ানডে- টানা দুই ইনিংসে প্রথম বলে আউট হওয়া কনওয়ে এবার খেলেন ৯২ বলে ১০১ রানের দুর্দান্ত ইনিংস। এই ওপেনারের ইনিংসটি গড়া ১৩ চার ও এক ছক্কায়।

অধিনায়ক উইলিয়ামসন ১০০ বলে ১০ চারে করেন ৮৫ রান। দুই অঙ্কে যেতে পারেন আর কেবল মিচেল স্যান্টনার, ৩৭।

জবাবে শুরু থেকে ধুঁকতে ধুঁকতে ৪৩ ওভারে ১৮২ রানেই গুটিয়ে যায় পাকিস্তান। অধিনায়ক বাবর আজমের ১১৪ বলে ৭৯ রান ছাড়া উল্লেখ করার মতো কিছু করতে পারেননি আর কেউ।

টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে প্রথম ওভারেই ফিন অ্যালেনকে হারায় নিউ জিল্যান্ড। কনওয়ে ও উইলিয়ামসন শুরু থেকে ছিলেন ইতিবাচক। তাদের ব্যাটে ছুটতে থাকে দল।

অবশ্য কনওয়েকে ২৯ রানে ফেরানোর সুযোগ আসে। কঠিন ফিরতি ক্যাচ নিতে পারেননি বোলার মোহাম্মদ নাওয়াজ।

লেগ স্পিনার উসামা মিরকে চার মেরে কনওয়ে ফিফটি পূর্ণ করেন ৫৭ বলে। একই ওভারে ৫৩ বলে পঞ্চাশ স্পর্শ করেন উইলিয়ামসন।

খানিক পর উইলিয়ামসনকে ফেরানোর সুযোগ পাকিস্তান দুবার হারায় একই ওভারে। মোহাম্মদ ওয়াসিমের বলে সোহেল ক্যাচ ফেলার তিন বল পর বল গ্লাভসে জমাতে ব্যর্থ হন কিপার মোহাম্মদ রিজওয়ান।

৮৬ থেকে উসমাকে তিনটি চার মারার পর ডাবল নিয়ে কনওয়ে দ্বিতীয় ওয়ানডে সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন ৮৯ বলে। পরের ওভারেই বাঁহাতি ব্যাটসম্যানকে বোল্ড করে থামান নাসিম শাহ। ১৮১ রানের জুটি ভাঙার পাশাপাশি নিউ জিল্যান্ডের পথ হারানোর শুরুও সেখানেই।

বাঁহাতি স্পিনার নাওয়াজ একই ওভারে বিদায় করেন ড্যারিল মিচেল ও টম ল্যাথামকে। পরের ওভারে এসে তিনি বোল্ড করে দেন উইলিয়ামসনকে। এর পরের ওভারে তার শিকার ফিলিপস। উসামা ফিরিয়ে দেন মাইকেল ব্রেসওয়েলকে।

১ উইকেটে ১৮৩ থেকে দ্রুতই স্কোর হয়ে যায় ৭ উইকেটে ২২০! ৩৭ রানের মধ্যে নেই ৬ উইকেট।

সেখান থেকে সফরকারীদের সংগ্রহ আড়াইশ ছাড়ায় মূলত স্যান্টনারের ৪০ বলে একটি করে চার-ছক্কায় গড়া ৩৭ রানের সৌজন্যে।

৩৮ রানে ৪ উইকেট নিয়ে পাকিস্তানের সফলতম বোলার নাওয়াজ। টানা দুই ওয়ানডেতে পাঁচ উইকেটের স্বাদ পাওয়ার পর এবার ৫৮ রানে ৩টি নেন তরুণ পেসার নাসিম।

রান তাড়ায় প্রথম ৪ ওভারের মধ্যে দুই ওপেনার ফখর জামান ও ইমাম-উল-হককে হারিয়ে বড় ধাক্কা খায় পাকিস্তান।

৭ বল খেলে রানের খাতা খুলতে পারেননি ফখর। লকি ফার্গুসনের ১৫২ কিলোমিটার গতির বাউন্সারে ক্যাচ দেন ইমাম।

তৃতীয় উইকেট জুটিতে প্রতিরোধ গড়েন বাবর ও রিজওয়ান। তবে রানের গতি বাড়াতে পারেননি তারা। ৫৫ রানের জুটিতে তারা বল খেলে ফেলেন ৯৯টি।

রিজওয়ানকে (৫০ বলে ২৮) বোল্ড করে জুটি ভাঙেন বাঁহাতি স্পিনার স্যান্টনার। হ্যারিস সোহেল ২১ বলে করেন ১০। আঘা সালমান দারুণ শুরু করলেও তিনি রান আউটে ফেরেন ২২ বলে ২৫ রান করে। নাওয়াজ টিকতেই পারেননি।

১৪২ রানে ৬ উইকেট হারানোর পর বাবরের ব্যাটে পরাজয়ের ব্যবধানই কমে শুধু। অধিনায়ক নবম ব্যাটসম্যান হিসেবে আউট হন লেগ স্পিনার ইশ সোধির বলে স্টাম্পড হয়ে।

টানা পঞ্চম ওয়ানডে ফিফটিতে বাবরের ৭৯ রানের ইনিংসটি গড়া ৮ চার ও এক ছক্কায়। এই সংস্করণে সবশেষ ১২ ম্যাচে তার পঞ্চাশ ছোঁয়া ইনিংস হলো ১১টি!

নিউ জিল্যান্ডের হয়ে ছয় জন হাত ঘুরিয়ে অন্তত একটি উইকেট পান সবাই। এর মধ্যে সাউদি ও সোধি নেন সর্বোচ্চ ২টি করে।

একই মাঠে আগামী শুরবার শেষ ম্যাচে হবে সিরিজের ফয়সালা।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

নিউ জিল্যান্ড: ৪৯.৫ ওভারে ২৬১ (অ্যালেন ১, কনওয়ে ১০১, উইলিয়ামসন ৮৫, মিচেল ৫, ল্যাথাম ২, ফিলিপস ৩, ব্রেসওয়েল ৮, স্যান্টনার ৩৭, সোধি ৭, সাউদি ০, ফার্গুসন ০*; নাসিম ৮.৫-০-৫৮-৩, রউফ ১০-০-৪৭-১, ওয়াসিম ৭-০-৪৬-০, নাওয়াজ ১০-০-৩৮-৪, উসামা ১০-০-৪২-১, সালমান ৪-০-২৮-০)

পাকিস্তান: ৪৩ ওভারে ১৮২ (ফখর ০, ইমাম ৬, বাবর ৭৯, রিজওয়ান ২৮, সোহেল ১০, সালমান ২৫, নাওয়াজ ৩, উসামা ১২, ওয়াসিম ১০, নাসিম ০*, রউফ ০; সাউদি ৬-১-৩৩-২, ফার্গুসন ৭-০-৩১-১, স্যান্টনার ১০-০-৩৪-১, ব্রেসওয়েল ১০-০-২৯-১, সোধি ৮-০-৩৮-২, ফিলিপস ২-০-১৩-১)

ফল: নিউ জিল্যান্ড ৭৯ রানে জয়ী

সিরিজ: তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম দুটির পর ১-১ সমতা

ম্যান অব দা ম্যাচ: ডেভন কনওয়ে

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক