হাসানের সঙ্গে কাজ করতে মুখিয়ে ডমিঙ্গো

ইমার্জিং কাপের নেটে কাছ থেকে দেখেছিলেন হাসান মাহমুদকে। তরুণ পেসারকে এবার পেয়েছেন নিজের ক্যাম্পে। প্রথমবারের মতো জাতীয় দলে ডাক পাওয়া এই বোলারকে নিয়ে কাজ শুরু করতে উন্মুখ বাংলাদেশ কোচ। দলে একঝাঁক তরুণ ক্রিকেটারের উপস্থিতিতে রোমাঞ্চিত রাসেল ডমিঙ্গো।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 19 Jan 2020, 12:39 PM
Updated : 19 Jan 2020, 06:01 PM

হাসান ছাড়াও নাজমুল হোসেন শান্ত, আফিফ হোসেন, আমিনুল ইসলাম, মোহাম্মদ নাঈম শেখ, মেহেদি হাসান আছেন পাকিস্তান সফরের ১৫ সদস্যের টি-টোয়েন্টি দলে। দলে নতুন প্রাণ সঞ্চার করা তরুণদের সঙ্গে কাজ করতে অধীর ডমিঙ্গো। 

“অবশ্যই কয়েকজন তরুণ খেলোয়াড় দলে এসেছে। প্রথমবারের মতো আমি তরুণ হাসান মাহমুদকে দেখব। ওর কিছু পারফরম্যান্স আমি দেখেছি, ইমার্জিং দলের নেটে কাছ থেকে দেখেছি। ওর সঙ্গে কাজ করতে মুখিয়ে আছি।”

“দলের তরুণ খেলোয়াড়দের নিয়ে আমি রোমাঞ্চিত। এটি সিস্টেমের গভীরতা দেখাচ্ছে। অবশ্যই এদের কয়েকজন বিশ্বকাপ দলে জায়গা করে নিতে পারে। এখনও বিশ্বকাপ দল চূড়ান্ত হয়নি। বেশ কিছু ব্যাপার আছে যেগুলো আমাকে দেখতে হবে। এটি তরুণ ক্রিকেটারদের জন্য দারুণ সুযোগ নিজের দাবি জানিয়ে রাখার।”   

ভারত সফর থেকে ডমিঙ্গো বলছেন, তার নজর আগামী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দিকে। ক্রিকেটের রোমাঞ্চকর এই টুর্নামেন্টের জন্য গুছিয়ে নিতে চান দল। খুব বেশি ক্রিকেটারকে নিয়ে পরীক্ষা নিরীক্ষার ইচ্ছে তার নেই। জানালেন, যদি ক্রিকেটাররা ভালো খেলে তাহলে বিশ্বকাপ পর্যন্ত এই দলকে ধরে রাখতে তার আপত্তি নেই।

“এই দলটাই থাকবে কি না নির্ভর করে ওরা কেমন করে তার ওপর। একজন খেলোয়াড়ের যদি যথেষ্ট গভীরতা না থাকে তাকে নিয়ে এগিয়ে যাওয়া সম্ভব না। কারো ব্যাপারে যদি মনে হয়, উন্নতির সম্ভাবনা আছে তাহলে হয়তো এই সিরিজের পর তাকে সুযোগ দেব। আমরা স্কোয়াড যত সম্ভব ছোট রাখতে চাই, সর্বোচ্চ ১৬ কিংবা ১৭ জন খেলোয়াড়কে নিয়ে চেষ্টা করতে পারি।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক