‘সর্বোত্তমদের’ খুঁজতে ৬ ফেব্রুয়ারি বসবে সার্চ কমিটি

নতুন নির্বাচন কমিশন গঠনে রাষ্ট্রপতিকে সুপারিশের জন‌্য দশ জনের নাম চূড়ান্ত করতে আগামী ৬ ফেব্রুয়ারি আবারও বৈঠকে বসবে সার্চ কমিটি।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 2 Feb 2017, 11:45 AM
Updated : 2 Feb 2017, 03:58 PM

বৃহস্পতিবার বিকাল সুপ্রিম কোর্টের জাজেস লাউঞ্জে সার্চ কমিটির বৈঠকের পর মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব (প্রশাসন ও বিধি) আব্দুল ওয়াদুদ সাংবাদিকদের এ তথ‌্য জানান।

তিনি বলেন, “বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ যে মতামত দিয়েছেন বা কমিশিন গঠনের বিষয়ে সংবিধানে যে কথাগুলো বলা আছে, সবকিছুর আলোকে এই কমিটি সমস্ত ক্রাইটেরিয়া বিবেচনা করে সর্বোত্তম ব্যক্তিদের সুপারিশ করার প্রয়াস চলছে।”

আপিল বিভাগের বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে ছয় সদস‌্যের সার্চ কমিটির সবাই বিকাল ৫টা থেকে প্রায় দেড় ঘণ্টার এই বৈঠকে অংশ নেন।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ এই কমিটিকে সাচিবিক সহায়তা দেওয়ায় মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলমও উপস্থিত ছিলেন বৈঠকে। পরে অতিরিক্ত সচিব ওয়াদুদ সভার বিষয়ে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন।

তিনি বলেন, গত মঙ্গলবার রাজনৈতিক দলগুলোর কাছ থেকে পাওয়া নাম থেকে বাছাই করে ২০ জনের যে সংক্ষিপ্ত তালিকা করা হয়েছিল, সেগুলো পর্যালোচনা করেছে সার্চ কমিটি।

“এটি আরও পর্যালোচনার প্রয়োজন রয়েছে বলে কমিটি মনে করে। একইসাথে বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গের দেওয়া মতামতও পর্যালোচনা করা হয়েছে।”

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব আব্দুল ওয়াদুদ

গত ৩০ জানুয়ারি
ও ১ ফেব্রুয়ারি আরও
বিশিষ্ট নাগরিকের সঙ্গে বসে নির্বাচন কমিশন গঠনের বিষয়ে তাদের মতামত নেয় সার্চ কমিটি। তাদের মতামতগুলোর একটা খসড়াও এ বৈঠকে তৈরি করা হয়েছে বলে আব্দুল ওয়াদুদ জানান।

তিনি বলেন, “এটি চূড়ান্ত হওয়ার পর আশা করছি আপনারা সেটি পাবেন। কমিটি আগামী ৬ ফেব্রুয়ারি বিকাল ৫টায় একই স্থানে আবার বৈঠকে বসবে।

“একই সঙ্গে আমরা আশা করছি, নির্ধারিত সময়ের মধ্যে, অর্থাৎ আগামী ৮ তারিখের মধ্যে কমিটি সুপারিশ চূড়ান্ত করতে পারবে এবং রাষ্ট্রপতি বরাবর উপস্থাপন করতে পারবে।”

এক প্রশ্নের জবাবে অতিরিক্ত সচিব বলেন, “সংক্ষিপ্ত তালিকায় যে নামগুলো ছিল এখনও সেগুলো রয়েছে। তাদের বিষয়ে তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ করা হচ্ছে, আরও তথ্য সংগ্রহ করতে হবে। এগুলো আবার পরবর্তী বৈঠকে পর্যালোচনার জন্য তোলা হবে।”

এদিন বৈঠকে কমিটির সদস্যদের মধ‌্যে কেউ নতুন কোনো নাম প্রস্তাব করেননি বলে এক প্রশ্নের উত্তরে জানান আব্দুল ওয়াদুদ।

তিনি বলেন, সংক্ষিপ্ত তালিকা যখন করা হয়েছে সেটি পর্যালোচনা করেই করা হয়েছে। ওই তালিকা আরও পর্যালোচনা করে এটাকে চূড়ান্ত করা হবে।

“তবে এটি নিশ্চিত করে বলা যাবে না যে, এর মধ‌্যে বিবেচনার জন্য নতুন নাম আসবে না”, বলেন ওয়াদুদ।

সংক্ষিপ্ত তালিকা সার্চ কমিটি প্রকাশ করবে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, “এটা কমিটি নিশ্চয়ই বিবেচনা করবে। এই মুহূর্তে আমি ঠিক বলতে পারছি না। তবে বিশিষ্টজনদের মতামতগুলো আমরা প্রকাশের চেষ্টা করব। চূড়ান্ত হলে অন্তত ওয়েবসাইটে দেওয়ার চেষ্টা করব।”

আব্দুল ওয়াদুদ বলেন, “কমিটি এখন পর্যন্ত পরীক্ষা-নিরীক্ষা করছে। আমার মনে হয় বিশিষ্টজনেরা যে সুপারিশ করেছে, এগুলোর চৌম্বক অংশ চূড়ান্ত তালিকার সাথে মহামান্য রাষ্ট্রপতির কাছে পাঠানো হবে। এটি এখন চূড়ান্ত করা হয়নি।”

সার্চ কমিটির ওই সুপারিশের মধ্যে থেকে একজন প্রধান নির্বাচন কমিশনারসহ অন্যূন পাঁচ সদস্যের নতুন নির্বাচন কমিশন নিয়োগ দেবেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

কাজী রকিব উদ্দিন আহমদ নেতৃত্বাধীন বর্তমান নির্বাচন কমিশনের মেয়াদ শেষে ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝি দায়িত্ব নেবে নতুন কমিশন। তাদের অধীনেই ২০১৯ সালের শুরুতে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন হবে।  

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক