ইন্দোনেশিয়ায় আগ্নেয়গিরির অগ্ন্যুৎপাতে মৃত বেড়ে ২২

রোববার অগ্ন্যুৎপাতের সময় পশ্চিম সুমাত্রার ওই এলাকায় ৭৫ জন পর্বতারোহী ছিলেন।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 5 Dec 2023, 04:38 PM
Updated : 5 Dec 2023, 04:38 PM

ইন্দোনেশিয়ার মারাপি আগ্নেয়গিরিতে অগ্ন্যুৎপাতে মৃত্যু বেড়েছে। উদ্ধারকারীরা নতুন ৯ টি লাশ খুঁজে পাওয়ায় মৃতের সংখ্যা ২২ জনে দাঁড়ায়।

নিখোঁজ ১০ জনের সন্ধানে উদ্ধার অভিযান মঙ্গলবার শুরু করা হয়। এর আগে নিরাপত্তা উদ্বেগের কারণে অভিযান সাময়িকভাবে স্থগিত রাখা হয়েছিল। 

কর্মকর্তারা বলছেন, বিকালের মধ্যে ৯ টি লাশ উদ্ধার হয়েছে। আরও একজন এখনও নিখোঁজ রয়েছেন। অন্য ১২ জন আহত পর্বতারোহীকে হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

রোববার অগ্ন্যুৎপাতের সময় পশ্চিম সুমাত্রার ওই এলাকায় ৭৫ জন পর্বতারোহী ছিলেন। সোমবারের প্রথম কয়েক ঘণ্টায় ৪৯ জন পর্বতারোহীকে সরিয়ে নেওয়া হয়। পরে জীবিত এবং মৃত কয়েকজনকে উদ্ধার করা হয়।”   

রোববার ২৮৯১ মিটার (৯৪৮৫ ফুট) উঁচু আগ্নেয়গিরিটি ছাই উদ্গিরণ শুরু করে যা ৩ কিলোমিটার পর্যন্ত উচ্চতায় উঠে যায়। কর্তৃপক্ষ দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সতর্কতা জারি করে। তারা স্থানীয় বাসিন্দাদের জ্বালামুখের ৩ কিলোমিটারের মধ্যে যাওয়া থেকে বিরত থাকার নির্দেশ দেয়।

ভিডিও ফুটেজে পর্বতটির উপরে আগ্নেয় ছাইয়ের বিশাল মেঘ দেখা গেছে। আশপাশের রাস্তা ও গাড়িগুলো ওই ছাইয়ে ঢাকা পড়ে আছে।

মারাপি সুমাত্রা দ্বীপের সবচেয়ে সক্রিয় আগ্নেয়গিরিগুলোর একটি। এর সবচেয়ে প্রাণঘাতী উদ্গিরণ হয়েছিল ১৯৭৯ সালের এপ্রিলে, তখন ৬০ জনের মৃত্যু হয়।

চলতি বছরের জানুয়ারি ও ফেব্রুয়ারিতেও মারাপিতে উদ্গিরণ হয়েছিল। তখন আগ্নেয়গিরিটি ৭৫ থেকে সর্বোচ্চ ১০০০ মিটার পর্যন্ত আগ্নেয় ছাই ছুড়ে দিয়েছিল।

ইন্দোনেশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরের তথাকথিত ‘আগ্নেয় মেখলা’র (রিং অব ফায়ার) ওপর অবস্থিত হাজারো দ্বীপের দেশ। দেশটিতে ১২৭টি সক্রিয় আগ্নেয়গিরি আছে।