রানিকে চিরবিদায় জানানো হচ্ছে যেভাবে

লন্ডনের ওয়েস্টমিনস্টার হলে কয়েকদিন ধরে শায়িত থাকার পর সোমবার স্থানীয় সময় ভোর থেকে রানিকে চিরবিদায় দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 19 Sept 2022, 05:20 AM
Updated : 19 Sept 2022, 05:20 AM

একটি বিশাল ভাবগাম্ভীর্যপূর্ণ রাষ্ট্রীয় অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার মধ্যে দিয়ে প্রয়াত ব্রিটিশ রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথকে শেষ বিদায় জানানো হচ্ছে। লন্ডনের ওয়েস্টমিনস্টার হলে কয়েকদিন ধরে শায়িত থাকার পর সোমবার স্থানীয় সময় ভোর থেকে রানিকে চিরবিদায় দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।

রানি এলিজাবেথের এই রাষ্ট্রীয় অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় বিশ্ব নেতারা ব্রিটিশ রাজপরিবারের সঙ্গে যোগ দেবেন, সঙ্গে থাকবেন দেশটির রাজনৈতিক অভিজাতরা ও সামরিক, বিচারবিভাগ ও দাতব্য সংস্থাগুলোর সদস্যরা।

ইউরোপের সব রাজপরিবারের সদস্যরা, যাদের অনেকেই রানির রক্ত সম্পর্কীয় আত্মীয়, এখানে যোগ দেবেন। এদের মধ্যে বেলজিয়ামের রাজা ফিলিপ ও রানি মাথিল্ড এবং স্পেনের রাজা ফেলিপে ও রানি লেতিতিয়া থাকবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।  

প্রথমে ওয়েস্টমিনস্টার হল থেকে ওয়েস্টমিনস্টার অ্যাবেতে কফিন নিয়ে যাওয়া হবে। এখানে এক ধর্মসমভায় কয়েক হাজার লোকের উপস্থিতিতে ধর্মীয় প্রার্থনা অনুষ্ঠিত হবে। এখান থেকে রানির শব যাবে উইন্ডসর ক্যাসেলে, এখানে আরেকটি প্রার্থনা অনুষ্ঠানের পর পারিবারিকভাবে রানিকে কবর দেওয়া হবে।

ওয়েস্টমিনস্টার

- ওয়েস্টমিনস্টার হলে রানির শায়িত অবস্থা শেষ হবে সোমবার স্থানীয় সময় ভোর সাড়ে ৬টায়।

- সকাল ৮টায় ওয়েস্টমিনস্টার হল থেকে অল্প দূরত্বে ওয়েস্টমিনস্টার অ্যাবের দরজাগুলো অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় যোগ দিতে আসা অতিথিদের জন্য খুলে দেওয়া হবে।

- ১০টা ৩৫ মিনিটের একটু পরে বহনকারীদের একটি দল রানির শববাহী কফিন ওয়েস্টমিনস্টার হলের শায়িত অবস্থা থেকে নামাবে তারপর এটি ব্রিটিশ রাজকীয় নৌবাহিনীর রাষ্ট্রীয় কামানবাহী শকটে বহন করা হবে। বুধবার বিকাল থেকে ওয়েস্টমিনস্টার হলে শায়িত ছিল রানির শব।   

-এই রাষ্ট্রীয় কামানবাহী শকটটি এর আগে রানি ভিক্টোরিয়া, রাজা সপ্তম এডওয়ার্ড, রাজা পঞ্চম জর্জ, সাবেক ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী উইনস্টন চার্চিল এবং লর্ড লুয়িস মাউন্টব্যাটনের কফিন বহনে ব্যবহৃত হয়েছে।

- রানির কফিনবাহী শকটটি ১০টা ৪৪ মিনিটে ওয়েস্টমিনস্টার অ্যাবের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করবে আর রাজকীয় নৌবাহিনীর ১৪২ জন সদস্য এটি টেনে নিয়ে যাবে।

-পুরো পথজুড়ে ব্রিটিশ রাজকীয় নৌবাহিনী ও রাজকীয় মেরিনের সদস্যরা লাইন ধরে দাঁড়িয়ে থাকবে। শববাহী মিছিলটি পার্লামেন্ট স্কয়ার পার হয়ে যাবে আর এখানে নৌবাহিনী, সেনাবাহিনী ও বিমান বাহিনী গার্ড অব অনার দেবে; তাদের সঙ্গে থাকবে রাজকীয় মেরিনের একটি বাদক দল।

-শবযাত্রার মিছিলে নেতৃত্ব দেবে স্কটিশ ও আইরিশ রেজিমেন্ট, ব্রিটিশ সেনাবাহিনীর গুর্খা ব্রিগেড ও রাজকীয় বিমান বাহিনীর ২০০ জন সঙ্গীতজ্ঞ। মিছিলে রাজার দেহরক্ষী দল, ইয়োমেন অব দ্য গার্ড এবং রাজকীয় কোম্পানি অব আর্চারসের সদস্যরা উপস্থিত থাকবেন।

- রাজা চার্লস ও ব্রিটিশ রাজপরিবারের সদস্যরাও এ শবযাত্রার অনুগামী হবেন।  

- ১০টা ৫২ মিনিটে ওয়েস্টমিনস্টার অ্যাবের পশ্চিম দরজায় শবমিছিলটি উপস্থিত হবে।

-রাষ্ট্রপ্রধানরা ও বিদেশি সরকার প্রধানরা, বিদেশি রাজপরিবারের সদস্যরা এবং রানির রাজত্বভুক্ত রাষ্ট্রের গর্ভনর জেনারেলরা এবং প্রধানমন্ত্রীরা চেলসিয়ার রাজকীয় হাসপাতালে জড়ো হবেন এবং এখান থেকে একসঙ্গে অ্যাবেতে যাবেন। 

- ওয়েস্টমিনস্টার অ্যাবের ধর্মসভাটি রাজত্বভুক্ত রাষ্ট্রের, কমনওয়েলথ পার্লামেন্ট, ডেভেলভড পার্লামেন্টগুলো, দাতব্য ও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান এবং আইন ও জরুরি বিভাগের প্রতিনিধিদের নিয়ে গঠিত হবে।

- স্থানীয় সময় সকাল ১১টায় ওয়েস্টমিনস্টারের ডিনের পরিচালনায় রাষ্ট্রীয় অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া শুরু হবে। ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী লিজ ট্রাস ও কমনওয়েলথের মহাসচিব বাইবেলের বাণী পাঠ করবেন।

- ক্যান্টারবুরির আর্চবিশপ ধর্মীয় বক্তৃতা দেবেন এবং তিনি সুপারিশও করবেন। ডিন আশীর্বাদ করবেন।

- আনুমানিক ১১টা ৫৫ মিনিটের দিকে অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার শেষ দিকে শেষ বিউগল বাজানো হবে। এরপর অ্যাবে ও পুরো যুক্তরাজ্যজুড়ে ২ মিনিট নীরবতা পালন করা হবে। এ সময় বিমানগুলো লন্ডনের কেন্দ্রীয় এলাকার আকাশ এড়িয়ে চলবে।

- রানির বাদক দলের পরিবেশিত জাতীয় সংগীত ও একটি বিলাপ সংগীতের মধ্য দিয়ে ১২টার দিকে রাষ্ট্রীয় অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া অনুষ্ঠান শেষ হবে। 

ওয়েলিংটন আর্চের উদ্দেশ্যে শবযাত্রা

- ওয়েস্টমিনস্টার অ্যাবেতে অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া শেষে বাহক দল কফিনটিকে ফের রাষ্ট্রীয় কামানবাহী শকটে তুলবে এবং রাজপরিবার তা অনুসরণ করবে। 

- সোয়া ১২টায় রাজা ও রাজপরিবারের কিছু সদস্যসহ শববাহী মিছিলটি হাইড পার্ক কর্নারে ওয়েলিংটন আর্চের দিকে রওনা হবে। কুইন কনসোর্ট ক্যামেলিয়া এবং উইলিয়াম ও হ্যারি ও প্রিন্স এডওয়ার্ডের স্ত্রী কেট, মেগান ও সোফি গাড়িতে করে মিছিল অনুসরণ করবেন।  

- এই পুরো গমনপথজুড়ে সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যরা লাইন ধরে দাঁড়িয়ে থাকবেন। শব মিছিলে কমনওয়েলথ, কানাডীয় পুলিশ, স্বাস্থ্য কর্মী ও অন্যান্য প্রতিনিধিরা উপস্থিত থাকবেন। মিছিলটি সাতটি দলে বিভক্ত থাকবে, প্রত্যেক দলের সঙ্গে বাদক দল থাকবে।

- হাইড পার্কে মিনিটখানেক ধরে কামান দাগানো হবে। শবযাত্রার পুরোটা সময় বিগ বেন ঘণ্টাধ্বনি বাজবে। কফিন ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল পার হওয়ার সময় বাকিংহাম প্রসাদের সামনে রাজার রক্ষীরা রাজকীয় স্যালুট প্রদান করবে।

- দুপুর ১টায় মিছিলটি ওয়েলিংটন আর্চে গিয়ে উপস্থিত হবে। এখান থেকে কফিনটি উইন্ডসর প্রাসাদে নিয়ে যাওয়ার জন্য শববাহী একটি গাড়িতে তোলা হবে। শববাহী গাড়ি যাত্রা শুরু করলে রাজকীয় স্যালুট দেওয়া হবে ও জাতীয় সংগীত বাজানো হবে।

- রাজপরিবার গাড়িযোগে উইন্ডসর প্রাসাদে যাবে।

উইন্ডসরে কবর হবে

- স্থানীয় সময় বিকাল ৩টা ১০ মিনিট থেকে উইন্ডসরে শবযাত্রা শুরু হবে। ৩টা ৪০ মিনিটে রাজা ও রাজপরিবারের সদস্যরা শবযাত্রায় যোগ দেবেন।

- এখানেও পুরো পথজুড়ে সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যরা দাঁড়িয়ে থাকবেন, মিনিটখানেক ধরে কামান দাগা হবে। সেবাস্তাপোল বেল ও কারফিউ টাওয়ার বেল ঘণ্টাধ্বনি বাজাবে।

-  বিকাল ৩টা ৫৩ মিনিটে সেন্ট জর্জ চ্যাপেলের নিচে শবযাত্রা থামবে।

- বিকাল ৪টা থেকে একান্তে রানিকে শেষ বিদায় জানানো শুরু হবে। উইন্ডসরের ডিন এ পর্ব পরিচালনা করবেন। রানির বিভিন্ন বাসস্থানের নিকটবর্তী গির্জাগুলোর যাজকরা প্রার্থনা পরিচালনা করবেন। এখানে ধর্মসভায় রানির ব্যক্তিগত কর্মীবৃন্দ এবং রানি যে দেশগুলোর রাষ্ট্রপ্রধান ছিলেন সেই সব দেশের গভর্নর জেনারেলরা ও প্রধানমন্ত্রীরা উপস্থিত থাকবেন। 

- শেষ স্তোত্র পাঠের আগে কফিন থেকে রাজমুকুট, রাজদণ্ড ও রাজকীয় গোলক সরিয়ে নিয়ে বেদিতে রাখা হবে।

-  রাজা গ্রেনেডিয়ার গার্ডের কুইন্স কোম্পানি ক্যাম্প কালার কফিনের উপর রাখবেন। লর্ড চেম্বারলিন রানির দাপ্তরিক লাঠি ওয়ান্ড অব অফিস ‘ভেঙ্গে’ কফিনের উপর রেখে দেবেন। 

- কফিনটি রাজকীয় ভল্টে নামানোর পর উইন্ডসরের ডিন একটি ধর্মীয় সংগীত গাইবেন এবং গার্টার কিং অব আর্মসের সামনে রানির প্রংশসা ও তার টাইটেলগুলো উচ্চারণ করবেন।

- সার্বভৌম বাদকরা একটি বিলাপ সংগীত বাজাবেন। তিনি চলে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে চ্যাপেলের ভেতরে সংগীতের আওয়াজ ধীরে ধীরে স্তিমিত হয়ে আসবে।   

- ক্যান্টারবুরির আর্চবিশপ আশীর্বাদ করবেন আর তারপর ‘গড সেইভ দ্য কিং’ গাইবেন।

- সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় একান্তে পরিবারের সদস্যদের উপস্থিতিতে রানিকে ষষ্ঠ জর্জ মেমোরিয়াল চ্যাপেলে তার স্বামী প্রিন্স ফিলিপ সঙ্গে কবর দেওয়া হবে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক