ভারতে এক সিরিঞ্জে ৩০ শিক্ষার্থীকে কোভিড টিকা

মধ্যপ্রদেশে সাগর জেলার একটি স্কুলের এ ঘটনায় যে স্বাস্থ্যকর্মীর বিরুদ্ধে অভিযোগ, সেই জিতেন্দ্রর দাবি, স্বাস্থ্য বিভাগ কেবল একটি সিরিঞ্জই পাঠিয়েছে।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 28 July 2022, 01:42 PM
Updated : 28 July 2022, 01:42 PM

ভারতের মধ্যপ্রদেশে একই সিরিঞ্জ ব্যবহার করে ৩০ জন স্কুল শিক্ষার্থীকে কোভিড টিকা দেওয়ার ঘটনায় এক স্বাস্থ্যকর্মীর বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু হয়েছে।

ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার সাগর জেলার জৈন পাবলিক হায়ার সেকেন্ডারি স্কুলে। সেখানে শিক্ষার্থীদেরকে কোভিড টিকা দেওয়া চলছিল। টিকা দিচ্ছিলেন স্বাস্থ্যকর্মী জিতেন্দ্র রায়।

গণমাধ্যমে জিতেন্দ্র দাবি করেছেন, স্বাস্থ্য বিভাগ কেবল একটি সিরিঞ্জই পাঠিয়েছে। তাই সেটি দিয়ে সব শিশুকে টিকা দিতে বিভাগীয় প্রধানের নির্দেশই কেবল তিনি পালন করেছেন।

যদিও ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা অনুসারে, কোভিড টিকা দেওয়ার সময় এক সুঁচ, একটি সিরিঞ্জ, কেবল একবার ব্যবহার করাই নিয়ম।

বিবিসি জানায়, টিকাদানের সময় শিক্ষার্থীদের সঙ্গে থাকা কয়েকজন অভিভাবক এক সিরিঞ্জে টিকা দেওয়ার বিষয়টি খেয়াল করেন এবং স্কুল কর্তৃপক্ষের কাছে অভিযোগ করেন।

রাজ্য কর্মকর্তারা স্কুলে পৌঁছানোর পর জিতেন্দ্র রায়কে খুঁজে পাওয়া যায়নি। তার ফোনও বন্ধ ছিল।

জিতেন্দ্রর বিরুদ্ধে ‘এক সিরিঞ্জ এক টিকা’র নিয়ম লঙ্ঘন এবং দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগে মামলা করেছে রাজ্যের স্বাস্থ্য বিভাগ। তাছাড়া, টিকার সরঞ্জাম বিতরণে জড়িত কর্মকর্তার বিরুদ্ধেও তদন্ত শুরু হয়েছে।

ওদিকে, ভারতের বিরোধীদল কংগ্রেস পার্টির মুখপাত্র এক সিরিঞ্জে একাধিক টিকা দেওয়ার এ ঘটনায় রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করেছেন।

ভারতে রক্তবাহিত সংক্রামক রোগ বিশষ করে, এইডস এর মতো প্রাণঘাতী রোগের বিস্তার ঠেকাতে একবার ব্যবহারযোগ্য সিরিঞ্জ ব্যাপকভাবে ব্যবহার করা শুরু হয়। তবে অতীতে হাসপাতালে সরঞ্জাম ঘাটতির কারণে এমন সিরিঞ্জ একাধিকবার ব্যবহারের বেশ কয়েকটি ঘটনাও ঘটেছে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক