ছোটদের ন্যাপি বাদ, এখন শুধু বড়দের ডায়াপার বানাবে জাপানি কোম্পানি

জাপানে বয়স্ক মানুষের সংখ্যা দ্রুত বেড়ে যাওয়া এবং জন্মহার রেকর্ড নিম্নে চলে যাওয়াই এর কারণ।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 27 March 2024, 02:12 PM
Updated : 27 March 2024, 02:12 PM

জাপানের একটি ডায়াপার প্রস্তুতকারক কোম্পানি ঘোষণা করেছে, তারা দেশে শিশুদের জন্য ডায়াপার বানানো বন্ধ করে এর পরিবর্তে বড়দের জন্য ডায়াপার তৈরি করবে।

এর আগেও জাপানের বেশকিছু কোম্পানি এধরনের সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছিল। সর্বশেষ এমন সিদ্ধান্ত ঘোষণা করল জাপানের ওজি হোল্ডিংস।

জাপানে বয়স্ক মানুষের সংখ্যা দ্রুত বেড়ে যাওয়া এবং জন্মহার রেকর্ড নিম্নে চলে যাওয়াই এর কারণ। গত এক দশকেরও বেশি সময় ধরে জাপানে শিশুদের তুলনায় প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য তৈরি ডায়াপারের বিক্রি বেড়ে গেছে।

২০২৩ সালে জাপানে শিশুর জন্মহার আগের বছরের তুলনায় ৫ দশমিক ১ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ৭৫৮,৬৩১ জনে। ১৯ শতকের পর থেকে এটিই জাপানে রেকর্ড সর্বনিম্ন জন্ম সংখ্যা। ১৯৭০ এর দশকে দেশটিতে শিশু জন্মের সংখ্যা ছিল ২০ লাখেরও বেশি।

জাপানের ডায়াপার প্রস্তুতকারক কোম্পানি ওজি হোল্ডিংস এক বিবৃতিতে বলেছে,তাদের সহায়ক কোম্পানি ওজি নেপিয়া এখন বছরে ৪০ কোটি শিশু ডায়াপার তৈরি করে। ২০০১ সালে এই পরিমাণ ছিল ৭০ কোটি। উৎপাদন ওই বছর থেকেই কমতে শুরু করেছিল।

২০১১ সালে, জাপানের সবচেয়ে বড় ডায়াপার নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ইউনিচার্ম বলেছিল, তাদের তৈরি প্রাপ্তবয়স্কদের ডায়াপার বিক্রি শিশুদের ডায়াপার বিক্রিকে ছাড়িয়ে গেছে।

জাপানে প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য ডায়াপারের বাজার বড় হচ্ছে এবং এর আনুমানিক মূল্য ২ শ’ কোটি ডলারের সমপরিমাণ।

জাপান এখন বিশ্বের অন্যতম বাধ্যক্যপূর্ণ জনসংখ্যার দেশ। দেশটির মোট জনসংখ্যার ৩০ শতাংশের বয়স ৬৫ বছর বা তার বেশি। গত বছর, ৮০ বছরের বেশি বয়সীদের অনুপাত প্রথম মোট জনসংখ্যার ১০ শতাংশ ছাড়িয়ে গেছে।

বিবিসি জানায়, ওজি হোল্ডিংস জাপানে শিশুদের জন্য ডায়াপার তৈরি বন্ধের ঘোষণা দিলেও বলেছে, তারা মালয়েশিয়া এবং ইন্দোনেশিয়ায় শিশুদের জন্য ডায়াপার তৈরি করবে। সেখানে এই ডায়াপারের চাহিদা বাড়বে বলেই আশা করছে তারা।

জাপানে জনসংখ্যা কমছে। জন্মহার কমে যাওয়া এবং বয়স্ক মানুষ বেড়ে যাওয়া বিশ্বের সবচেয়ে বড় অর্থনীতির এ দেশটিতে সংকট হয়ে দেখা দিয়েছে।

নারীদের সন্তান ধারণের অনাগ্রহ জাপানে জন্মহার নিম্ন হওয়ার অন্যতম কারণ।বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বিয়ের হার কম এবং কর্মক্ষেত্রে আরও বেশি নারীর যোগদান থেকে শুরু করে সন্তান লালন-পালনের বাড়তি খরচ- এ সবই সন্তান নিতে অনিচ্ছুক করে তুলছে জাপানি নারীদের।

সন্তান নিতে উৎসাহিত করার জন্য নানা প্রচেষ্টা চালাচ্ছে জাপান সরকার। কিন্তু এখন পর্যন্ত তা খুব সামান্যই সফলতার মুখ দেখেছে।