চীনের প্রতি ‘ধ্বংসাত্মক’ সামরিক তৎপরতা বন্ধের আহ্বান তাইওয়ানের

চীন বছরখানেক আগে থেকে তাইওয়ান প্রণালীতে দুই ভূখণ্ডের মধ্যবর্তী রেখা নিয়মিতভাবে অতিক্রম করতে থাকে।

নিউজ ডেস্ক
Published : 26 Jan 2024, 11:56 AM
Updated : 26 Jan 2024, 11:56 AM

চীন তাইওয়ান দ্বীপের কাছে সামরিক তৎপরতা অনেক বেড়েছে জানিয়ে বেইজিংকে এসব ‘ধ্বংসাত্মক, একতরফা কর্মকাণ্ড’ বন্ধ করার আহ্বান জানিয়েছে তাইপে। এ ধরনের কর্মকাণ্ডে ‘উত্তেজনা’ বেড়ে যেতে পারে বলে সতর্ক করেছে তাইওয়ানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়। 

গণতান্ত্রিকভাবে শাসিত তাইওয়ানকে নিজেদের ভূখণ্ড বলে বিবেচনা করে চীন। কয়েক বছর ধরে তারা তাইওয়ানের আশপাশের একের পর এক সামরিক মহড়া চালিয়ে তাইপের ওপর চাপ সৃষ্টি করছে, যেন দ্বীপটি স্বাধীনতা ঘোষণা করা থেকে বিরত থাকে।  

সোমবার তাইওয়ানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, তারা রোববার থেকে সাগরের উপরে চীনের ১০৩টি সামরিক বিমান চিহ্নিত করেছে। গত কিছুদিনের মধ্যে এ সংখ্যা ‘সর্বোচ্চ’।  

চীন বছরখানেক আগে থেকে তাইওয়ান প্রণালীতে দুই ভূখণ্ডের মধ্যবর্তী রেখা নিয়মিতভাবে অতিক্রম করতে থাকে। এর আগে এ রেখাটি দুই ভূখণ্ডের মধ্যে অঘোষিত সীমারেখা হিসেবে কাজ করত। তাইওয়ান গত ২৪ ঘণ্টায় চীনের সামরিক তৎপরতার যে ছবি তুলে ধরেছে, তাতে যুদ্ধবিমানগুলোকে ওই রেখা অতিক্রম করতে দেখা গেছে। চীনের অন্য যুদ্ধবিমানগুলো তাইওয়ানের দক্ষিণে বাশি প্রণালী দিয়ে উড়ে গেছে; ওই প্রণালীটি স্বশাসিত এ দ্বীপটিকে প্রতিবেশী ফিলিপিন্স থেকে পৃথক করেছে।

তাইওয়ানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে বলেছে, “তাইওয়ান প্রণালীতে শান্তি ও স্থিতিশীলতা বজায় রাখা এ অঞ্চলের সব পক্ষের সাধারণ দায়িত্ব।” 

তাইওয়ানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের এ বিবৃতির বিষয়ে রয়টার্সের মন্তব্যের অনুরোধে তাৎক্ষণিকভাবে সাড়া দেয়নি চীনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়।

সংবাদসূত্র: রয়টার্স 

(প্রতিবেদনটি প্রথম ফেইসবুকে প্রকাশিত হয়েছিল ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩ তারিখে: ফেইসবুক লিংক)