চীনে নতুন এক ভাইরাসে আক্রান্ত ৩৫

চীনের পূর্বাঞ্চলে প্রাদুর্ভাব ঘটা নতুন এই প্রাণীবাহিত ভাইরাসটির নাম ল্যাংইয়া হেনিপাভাইরাস (লেভি)।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 10 August 2022, 12:47 PM
Updated : 10 August 2022, 12:47 PM

করোনাভাইরাস মহামারী এখনও বিদায় নেয়নি। তার মধ্যেই চীনের পূর্বাঞ্চলে প্রাদুর্ভাব ঘটেছে নতুন এক ভাইরাসের। প্রাণীবাহিত ভাইরাসটির নাম ল্যাংইয়া হেনিপাভাইরাস (লেভি)।

বিবিসি-র খবরে বলা হয়, চীনের শানডং এবং হেনান প্রদেশে এখন পর্যন্ত ৩৫ জনের দেহে এ ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। আক্রান্তদের অনেকের শরীরে জ্বর, অবসাদ এবং কাশির মত উপসর্গ দেখা গেছে।

তারা সবাই প্রাণীদেহ থেকে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। মানুষ থেকে মানুষে লেভি ভাইরাস সংক্রমিত হওয়ার প্রমাণ এখন পর্যন্ত পাওয়া যায়নি।

গবেষকরা ‌ এখন পর্যন্ত ইঁদুরের মতো দেখতে শ্রুয়ের দেহে মূলত এই ভাইরাস শনাক্ত করেছেন।

চীন, সিঙ্গাপুর ও অস্ট্রেলিয়ার গবেষকরা এক চিঠিতে নতুন এই ভাইরাস আবিষ্কারের বিষয়টি উল্লেখ করেন। এ মাসে ‘নিউ ইংল্যান্ড জার্নাল অব মেডিসিন’ এ ওই চিঠি প্রকাশ পায়।

গবেষকদের একজন সিঙ্গাপুরের ডিউক-এনইউএস মেডিকেল স্কুলের ওয়াং লিনফা চীনের রাষ্ট্রায়ত্ত্ব সংবাদ মাধ্যম গ্লোবাল টাইমসকে বলেন, এখন পর্যন্ত লেভি ভাইরাস সংক্রমণের যে কয়টি ঘটনা পাওয়া গেছে সেখানে কেউ মারা যাননি বা গুরুতর অসুস্থ হননি।

‘‘তাই এটা নিয়ে এখনই আতঙ্কিত হওয়ার প্রয়োজন নেই।”

পরীক্ষায় ২৭ শতাংশ শ্রেউর দেহে লেভি ভাইরাস পাওয়া গেছে। এছাড়া, ৫ শতাংশ কুকুর ও ২ শতাংশ ছাগলের দেহেও ভাইরাসটির উপস্থিতি শনাক্ত হয়েছে।

লেভি ভাইরাসের প্রদুর্ভাবের বিষয়টি ‘গভীর মনযোগে’ লক্ষ্য রাখা হচ্ছে বলে গত রোববার জানায় তাইওয়ানের সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল।

লেভি ভাইরাস হেনিপাভাইরাস গোত্রের একটি জুনোটিক ভাইরাস। যেটি লাফিয়ে প্রাণী দেহ থেকে মানবদেহে যেতে পারে।

আমাদের পরিবেশে জুনোটিক ভাইরাস খুবই সাধারণ। কিন্তু কোভিড-১৯ মহামারীর কারণে এই ধরনের ভাইরাসের দিকে বিজ্ঞানীদের মনযোগ বেড়েছে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক