পরমাণু অস্ত্র পরীক্ষা নিয়ে উত্তর কোরিয়াকে কড়া হুঁশিয়ারি দক্ষিণের

উত্তর কোরিয়া পরমাণু অস্ত্র পরীক্ষা চালালে তাদেরকে কঠোর নিষেধাজ্ঞার মুখে পড়ার পাশাপাশি সাইবার হামলা চালানোর সক্ষমতাও হারাতে হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে দক্ষিণ কোরিয়া।

রয়টার্স
Published : 27 July 2022, 01:28 PM
Updated : 27 July 2022, 01:28 PM

আবারও পরমাণু অস্ত্র পরীক্ষা চালানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে উত্তর কোরিয়া। দেশটি সত্যিই এ পরীক্ষা চালালে তাদেরকে কঠোর নিষেধাজ্ঞার মুখে পড়ার পাশাপাশি সাইবার হামলা চালানোর সক্ষমতাও হারাতে হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে দক্ষিণ কোরিয়া।

দক্ষিণ কোরিয়ার নতুন পররাষ্ট্রমন্ত্রী পার্ক জিন বুধবার এ হুঁশিয়ারি দেন। গত মে মাসে দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন পার্ক।

পরমাণু অস্ত্র এবং বিভিন্ন ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার কারণে উত্তর কোরিয়ার উপর ‍নানা ধরনের আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞা জারি আছে।

এখন তারা পরমাণু অস্ত্র পরীক্ষা চালালে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ দেশটির উপর ‘আরও কঠোর এবং কঠিন’ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করবে, বলেন পার্ক।

এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, ‘‘সেই নিষেধাজ্ঞার নিশানায় পড়বে উত্তর কোরিয়ার হ্যাকাররাও।”

‘‘উত্তর কোরিয়ার যেসব আইটি কর্মী বিদেশে অবস্থান করছেন এবং অবৈধ সাইবার হ্যাকিং কার্যকলাপের মাধ্যমে তহবিল সংগ্রহ করছেন, তাদের বিরুদ্ধে আরও কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা প্রয়োজন।”

যুক্তরাষ্ট্র ও দক্ষিণ কোরিয়ার দাবি, উত্তর কোরিয়া তাদের হাজার হাজার হ্যাকার দিয়ে হ্যাকিংয়ের ‍মাধ্যমে ক্রিপ্টোকারেন্সিসহ নানাভাবে অর্থচুরি করে অস্ত্রখাতের খরচ জোগায়।

উত্তর কোরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয় অবশ্য বরাবরের মত এসব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছে, অস্ত্রখাতের উন্নয়নে তারা যেসব কাজ করছে, তার সবই নিজেদের প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা আরও শক্তিশালী করার জন্য।

২০০৬ সাল থেকে এখন পর্যন্ত ছয়বার পরমাণু অস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়েছে উত্তর কোরিয়া। তারা পরমাণু অস্ত্রের সর্বশেষ পরীক্ষাটি চালায় ২০১৭ সালে।

এ বছর দেশটি বেশ কয়েকবার ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়েছে এবং দাবি করেছে তাদের পরীক্ষা করা ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র যুক্তরাষ্ট্রে আঘাত হানতে সক্ষম।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক