মার্কিন সামরিক বিমানকে ‘সতর্ক করেছে’ চীনা জঙ্গি বিমান

যুক্তরাষ্ট্রের সপ্তম নৌবহর জানিয়েছে তাদের একটি সামুদ্রিক টহল বিমান তাইওয়ান প্রণালীর আন্তর্জাতিক আকাশসীমা ধরে উড়ে গেছে।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 12 Oct 2023, 10:51 AM
Updated : 12 Oct 2023, 10:51 AM

চীন জানিয়েছে, তাইওয়ান প্রণালী দিয়ে উড়ে যাওয়া যুক্তরাষ্ট্রের নৌবাহিনীর একটি টহল ও নজরদারি বিমানকে পর্যবেক্ষণ ও সতর্ক করতে জঙ্গি বিমান পাঠিয়েছিল তারা।

গণতান্ত্রিকভাবে শাসিত তাইওয়ানের ওপর সার্বভৌমত্ব দাবি করে আসছে চীন। তাইওয়ান প্রণালীর ওপর তাদের আইনগত অধিকার রয়েছে বলে দাবি বেইজিংয়ের। কিন্তু তাইওয়ান ও যুক্তরাষ্ট্র এর বিরোধিতা করে প্রণালীটিকে আন্তর্জাতিক জলপথ বলে দাবি করে আসছে।  

বৃহস্পতিবার সকালে মার্কিন নৌবাহিনীর সপ্তম নৌবহর জানায়, তাদের পি-৮এ পোসাইডেন সামুদ্রিক টহল ও নজরদারি বিমান তাইওয়ান প্রণালীর আন্তর্জাতিক আকাশসীমা ধরে উড়ে গেছে।

পি-৮এ পোসাইডেন বিমান শক্রপক্ষের ডুবোজাহাজ শনাক্ত করতেও ব্যবহার করা হয়।

এক বিবৃতিতে মার্কিন নৌবাহিনী বলেছে, “আন্তর্জাতিক আইন অনুযায়ী তাইওয়ান প্রণালীর মধ্য দিয়ে বিমান চালিয়ে যুক্তরাষ্ট্র সব জাতির নৌ-চলাচলের অধিকার ও স্বাধীনতাকে উর্ধ্বে তুলে ধরেছে। এটি একটি ‘মুক্ত ও অবাধ ভারত-প্রশান্ত মহাসাগরের’ বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিশ্রুতি প্রদর্শন করেছে।

অপরদিকে চীনের সামরিক বাহিনী এই ফ্লাইটকে ‘জনগণের মনোযোগ আকর্ষণের চেষ্টা’ বলে অভিহিত করেছে। মার্কিন বিমানটিকে পর্যবেক্ষণ ও সতর্ক করতে তারা জঙ্গি বিমান পাঠিয়েছিল বলে জানিয়েছে। 

এক বিবৃতিতে চীনের গণমুক্তি ফৌজের পূর্বাঞ্চলীয় কমান্ড বলেছে, “এই অংশের সেনারা জাতীয় সার্বভৌমত্ব এবং নিরাপত্তার পাশাপাশি আঞ্চলিক শান্তি ও স্থিতিশীলতা রক্ষায় সদাজাগ্রত ও অটল রয়েছে।”

তাইওয়ানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, মার্কিন বিমানটি প্রণালীর মধ্যরেখা বরাবর উত্তর দিকে উড়ে গেছে আর তাইওয়ানের বাহিনী পরিস্থিতির ওপর নজর রেখেছে, পরিস্থিতি ‘স্বাভাবিকই’ ছিল।  

চীন প্রায় প্রতিদিনই তাইওয়ান প্রণালীর নিজেদের সীমায় এবং তাইওয়ানের আশপাশের সাগরে ও আকাশে সামরিক তৎপরতার চালিয়ে যাচ্ছে।