নতুন রঙে ম্যাকবুক প্রো’র আপডেট সংস্করণ দেখাল অ্যাপল

হ্যালোইন থিমের আদলে সাজানো এ আয়োজনে আরও ছিল ভৌতিক সঙ্গীত ও মেঘাচ্ছন্ন অ্যাপল ক্যাম্পাসের ছবি। আর কেবল ৩০ মিনিট দীর্ঘ ছিল আয়োজনটি।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 31 Oct 2023, 10:26 AM
Updated : 31 Oct 2023, 10:26 AM

ম্যাকবুক প্রো’র নতুন আপডেট সংস্করণ উন্মোচন করেছে মার্কিন টেক জায়ান্ট অ্যাপল। এর মধ্যে আছে নতুন চিপ এমনকি নতুন রংও।

‘স্কেয়ারি ফাস্ট’ আয়োজনে অ্যাপলের নতুন সংস্করণের ম্যাক পিসি’র প্রথম ঝলক মিলেছে বলে প্রতিবেদনে লিখেছে ব্রিটিশ সংবাদপত্র ইন্ডিপেন্ডেন্ট। পাশাপাশি, আয়োজনে আইম্যাকের আপডেটেড সংস্করণও প্রকাশ করেছে অ্যাপল, যেটি প্রথম উন্মোচিত হয়েছিল ২০২১ সালে। আর এতে রয়েছে নতুন প্রসেসর।

নতুন ম্যাকবুক ও আপডেট করা আইম্যাক দুটিতেই ব্যবহৃত হয়েছে অ্যাপলের এম৩ চিপ। অ্যাপলের সিলিকন চিপ শ্রেণির তৃতীয় প্রজন্ম এটি, যা ২০২০ সালে উৎপাদন শুরু করেছিল কোম্পানিটি।

অ্যাপল বলেছে, আগের এম২ চিপের তুলনায় ১৫ থেকে ৩০ শতাংশ দ্রুত কাজ করে এম৩ চিপ। তবে, এর পারফর্মেন্সকে ইনটেল চিপের সঙ্গে তুলনা করতেই স্বাচ্ছন্দ বোধ করেছে অ্যাপল, যারা ২০১৯ সালের আগ পর্যন্ত অ্যাপলের বিভিন্ন কম্পিউটারের জন্য চিপ উৎপাদন করতো।

অ্যাপল বলেছে, এম৩ চিপের প্রাথমিক সংস্করণ ইনটেল কোর আই৭-এর চেয়ে সাত দশমিক চার গুণ দ্রুত ভিডিও এডিট করতে পারে। এ ছাড়া, পূর্বসূরি এম১ চিপের চেয়ে ৬০ গুণ পর্যন্ত দ্রুত কাজ করে এটি।

তবে, জানুয়ারিতে উন্মোচিত এম২ চিপের সঙ্গে খুব কমই এই চিপের তুলনা করেছে অ্যাপল।

অ্যাপলের দাবি, নতুন চিপের পারফর্মেন্স উন্নত করার পাশাপাশি তারা এর ব্যাটারি লাইফও ২২ ঘণ্টা পর্যন্ত বাড়িয়েছে। আর নতুন ম্যাকবুক প্রো মডেলে থাকবে ১২৮জিবি পর্যন্ত মেমরি স্টোরেজ।

আয়োজনে ২৪ ইঞ্চির আইম্যাক ও ১৪ ইঞ্চির ম্যাকবুক প্রো’তে এম৩ চিপের প্রাথমিক সংস্করণ দেখানোর পাশাপাশি এর চেয়ে বেশি ক্ষমতার ‘এম৩ প্রো’ ও ‘এম৩ ম্যাক্স’ চিপও উন্মোচন করেছে অ্যাপল। আর কোম্পানির একইসঙ্গে তিনটি চিপ দেখানোরও প্রথম ঘটনা এটি। তবে, কয়েক মাস আগেই এম৩ চিপের প্রাথমিক সংস্করণ উন্মোচন করেছিল অ্যাপল।

অ্যাপলের উন্মোচিত উচ্চমানের চিপগুলো আপাতত ব্যবহার করা যাবে ১৪ ও ১৬ ইঞ্চির ম্যাকবুক প্রো মডেলে। তবে, ম্যাক স্টুডিও’র মতো কোম্পানির অন্যান্য পিসিতে এখনও এম২ চিপ ব্যবহার করতে হবে। এ ছাড়া, আয়োজনে আইম্যাক প্রো’র নতুন সংস্করণ আসার কথা থাকলেও, তা দেখা যায়নি।

নতুন চিপের পাশাপাশি ম্যাকবুক প্রো’তে নতুন ‘স্পেস ব্ল্যাক’ রং যুক্ত করেছে অ্যাপল। কোম্পানি বলেছে, এতে এক বিশেষ ধরনের অ্যালুমিনিয়াম ব্যবহার করা হয়েছে যাতে ব্যবহারকারীর আঙ্গুলের ছাপ এতে না পড়ে।

আপডেটেড ম্যাকবুক প্রো’র দাম অবশ্য প্রায় দুই হাজার ডলার থেকে প্রায় এক হাজার ছয়শ ডলারে কমিয়ে এনেছে অ্যাপল। আর এটি বাজারে আসবে আগামী সপ্তাহ থেকে। তবে, এম৩ ম্যাক্স চিপওয়ালা ম্যাকবুক প্রো বাজারে আসতে সময় লাগতে পারে নভেম্বরের শেষ নাগাদ পর্যন্ত।

নতুন শ্রেণির চিপ, নতুন আইম্যাক ম্যাকবুক প্রো’র দুটি সংস্করণ, আয়োজনে কেবল এই তিনটি ঘোষণা দিয়েছে অ্যাপল। আর নিজস্ব লাইনআপ থেকে ১৩ ইঞ্চির ম্যাকবুক সরিয়ে ফেললেও আয়োজনে এ নিয়ে চুপচাপ ছিল কোম্পানিটি।

এদিকে খবর চাউর হয়েছে, গত মাসে উন্মোচিত আইফোন ১৫’তে কোম্পানির প্রচলিত লাইটনিং পোর্ট সরিয়ে ফেলার পর ম্যাকের কিবোর্ড ও ট্র্যাকপ্যাডেও ইউএসবি-সি পোর্ট যোগ করতে পারে অ্যাপল। তবে, অ্যাপলের ওয়েবসাইটের তালিকা অনুসারে, কোম্পানি এখনও নতুন আইম্যাক পিসি’তে লাইটনিং পোর্ট দিচ্ছে। আর ইউএসবি-সি ওয়ালা কোনো পণ্যের কথাও উল্লেখ করেনি অ্যাপল।

বছরের বাকি সময়ে আর কোনো বড় ঘোষণা আসবে না, এমন ইঙ্গিত দিয়ে আয়োজন শেষ করেন অ্যাপল সিইও টিম কুক। হ্যালোইন থিমের আদলে সাজানো এ আয়োজনে আরও ছিল ভৌতিক সঙ্গীত ও মেঘাচ্ছন্ন অ্যাপল ক্যাম্পাসের ছবি। আর কেবল ৩০ মিনিট দীর্ঘ ছিল আয়োজনটি, যা অ্যাপলের অন্যান্য আয়োজনের সময়কাল বিবেচনায় নিলে কিছুটা অস্বাভাবিক।

অনলাইনে লাইভস্ট্রিম করা আয়োজনটি শুরু থেকেই উদ্ভট ছিল। সাধারণত অ্যাপলের আয়োজন সকালে ঘটে থাকলেও এবারের আয়োজনটি ছিল রাতের বেলায়। আর এতে তেমন প্রস্তুতিও ছিল না অ্যাপলের।