ফিফা ২০২২: অনাকাঙ্ক্ষিত ড্রোন ঢুকলেই জাল ছুঁড়বে নিরাপত্তা ড্রোন

আয়োজকদের আশঙ্কা, ওয়ার্ল্ডকাপ স্টেডিয়ামে ড্রোন ব্যবহার করে সন্ত্রাসী হামলা চালানো হতে পারে।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 23 July 2022, 11:27 AM
Updated : 23 July 2022, 11:27 AM

এ বছরের ফিফা ওয়ার্ল্ডকাপে মানব নিরাপত্তা কর্মীদের পাশাপাশি কাজ করবে ড্রোন। ম্যাচের আয়োজনস্থলে অনুমতি ছাড়া কোনো ড্রোন প্রবেশের চেষ্টা করলেই জাল ছুড়ে ‘বহিরাগত’ ড্রোনগুলোকে বন্দি করবে স্টেডিয়ামের নিরাপত্তা রক্ষার দায়িত্বে থাকা ‘ড্রোনহান্টার’।

বিবিসি জানিয়েছে, ওয়ার্ল্ডকাপের নিরাপত্তা ব্যবস্থার জন্য ড্রোন সরবরাহ করছে ‘ফোর্টেম টেকনোলজিস’ নামের একটি প্রতিষ্ঠান। এরই মধ্যে কাতারের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে ড্রোন সরবরাহের চুক্তি করেছে কোম্পানিটি।

ফোর্টেমের বরাত দিয়ে বিবিসি জানিয়েছে, ওয়ার্ল্ডকাপ স্টেডিয়ামে ড্রোন ব্যবহার করে হামলা হতে পারে, এমন ভয় বাড়ছে এবং তারই প্রতিফলন মিলছে কাতার সরকারের সঙ্গে কোম্পানির চুক্তিতে।

ফোর্টেম দাবি করছে, জনবহুল এলাকায় বহিরাগত ড্রোন নিরাপদে আটক করার পূর্ণ সক্ষমতা আছে তাদের।

কোম্পানিটি নিজস্ব রেডার নির্ভর ‘ইন্টারসেপ্টর’ ড্রোনগুলোর নাম দিয়েছে ‘ড্রোনহান্টার’। ড্রোনহান্টার বহিরাগত ড্রোনের দিকে জাল ছুড়ে দিয়ে আটক করে। তবে, আটক হওয়া ড্রোনগুলো মাটিতে আছড়ে পড়ে না, বরং ড্রোনহান্টার জালে বাধা রশি ধরে ড্রোনগুলোকে ঝুলিয়ে নিয়ে যায় পূর্বনির্ধারিত নিরাপদ কোনো স্থানে।

আর অনুপ্রবেশকারী ড্রোনের আকার যদি বেশি বড় হয়, সে ক্ষেত্রেও ড্রোনগুলোর মাটিতে বা দর্শকদের ওপর আছড়ে পড়ার আশঙ্কা নেই; পতনের গতি কমিয়ে আনতে জালের সঙ্গে বাঁধা থাকবে আলাদা প্যারাসুট।

টার্গেট চিহ্নিত করতে “অনেকগুলো ছোট ছোট রেডার ভেনুর বিভিন্ন জায়গায় থাকবে, এতে (ড্রোনের জন্য) আকাশসীমার পরিষ্কার ছবি তৈরি হবে,” বিবিসিকে বলেছেন ফোর্টেমের সহ-প্রতিষ্ঠাতা এবং প্রধান নির্বাহী টিমথি বিন।

কোম্পানিটি দাবি করছে, বিশ্বের বিভিন্ন জায়গায় এমন ড্রোন নির্ভর নিরাপত্তা ব্যবস্থা প্রয়োগের অভিজ্ঞতা তাদের আছে।

ড্রোন মোকাবেলার কৌশল হিসেবে ক্ষেত্রবিশেষে স্বয়ংক্রিয় যানটির দূরনিয়ন্ত্রণ সিগনালে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টির সুযোগ রয়েছে। তবে, ফোর্টেমের দাবি, সন্ত্রাসীরা ড্রোন দিয়ে হামলা চালাতে চাইলে তারা সেটি দূর থেকে নিয়ন্ত্রণ না করে বরং গতিপথ আগেভাগেই নির্ধারণ করে দেবে।

“যে কারণে দ্রুত আমাদের ব্যবসা বাড়ছে, সেটি হলো সন্ত্রাসীরা জয়স্টিক ব্যবহার করে না। সন্ত্রাসীরা জয়স্টিক নিয়ে আপনার পার্কিং লটে হাজির হবে না। এই ড্রোনগুলো প্রোগ্রাম করে দেওয়া যায়, তাই সিগন্যাল আটকে দেওয়া সম্ভব নয়,” বিবিসিকে বলেছেন বিন।

ডাভোসে অনুষ্ঠিত হওয়া ওয়ার্ল্ড ইকোনোমিক ফোরাম এবং খেলাধুলা বা অন্যান্য আয়োজনে নিজস্ব ‘অ্যান্টি-ড্রোন সিস্টেম’-এর কার্যকর প্রয়োগের দাবি করেছে ফোর্টেম। নিরাপত্তা ব্যবস্থাটির বহনযোগ্য সংস্করণ ইউক্রেইনে সরবরাহ করা হয়েছে এবং যুক্তরাজ্যের স্থানীয় এয়ারপোর্টেও এই প্রযুক্তি প্রয়োগের লক্ষ্যে কাজ চলছে বলে জানিয়েছে কোম্পানিটি।

বিবিসি জানিয়েছে, তোশিবা এবং বোয়িংয়ের মতো প্রথমসারির প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানের সমর্থন পেয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের ইউটাহভিত্তিক ফোর্টেম। নভেম্বর ও ডিসেম্বর মাসে কাতার ওয়ার্ল্ডকাপের নিরাপত্তা ব্যবস্থার জোরদার করতে দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে কাজ করবে কোম্পানিটি।

ড্রোন ব্যবহারে সন্ত্রাসী হামলার ঝুঁকি বাড়ছে:

ইউনিভার্সিটি অফ বার্মিহামের অধ্যপক ডেভিড ডানের মতে, ড্রোন প্রযুক্তি এখন এতোটাই সহজলভ্য হয়ে উঠেছে যে, সন্ত্রাসীদের ড্রোন ব্যবহার করে হামলার ঝুঁকি ক্রমশ বাড়ছে।

মাটিতে থাকা সন্ত্রাসীরা সরাসরি স্টেডিয়ামে প্রবেশ করতে না পারলেও আকাশপথে একটি ড্রোন ঢুকে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

একই আশঙ্কার কথা বলেছেন ইউনিভার্সিটি অফ দ্য ওয়েস্ট অফ ইংল্যান্ডের গবেষক ড. স্টিভ রাইট। বাণিজ্যিক উদ্দেশ্যে বিক্রি হওয়া ড্রোনের সামরিকায়ন করে ইয়েমেন এবং ইউক্রেইনে ব্যবহৃত হওয়ায় সন্ত্রাসী হামলায় ড্রোন ব্যবহারের ঝুঁকি আরও বেড়েছে বলে মনে করেন তিনি।

আকারে তুলনামূলক ছোট ড্রোন মোকাবেলায় ফোর্টেমের প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা কার্যকর হতে পারে বলে মনে করেন তিনি। তবে, ‘সোয়ার্ম’ বা আক্রমণকারী ড্রোনের ঝাঁক নিয়েও শঙ্কিত ড. রাইট। ইয়েমেন যুদ্ধে সৌদি নাগরিকরা ইতোমধ্যে ‘ড্রোন সোয়ার্ম’-এর মুখোমুখি হয়েছেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

তবে, আক্রমণকারীদের বিপরীতে প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা আরও কঠোর করে গড়ে তোলার মাধ্যমে সন্ত্রাসী হামলার ঝুঁকি কমিয়ে আনা সম্ভব বলে মনে করেন এই বিশেষজ্ঞরা।

“আপনার পাল্টা পদক্ষেপ যদিও হেরেও যায়, তার মানে এই নয় য়ে আপনার প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ব্যর্থ হয়েছে। কারণ এতে আপনার শত্রু ঠিকই ক্ষতিগ্রস্ত হবে,” বিবিসিকে বলেছেন ড. রাইট।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক