পুতিনের আশ্বাসের পরও রাশিয়া ছাড়ছেন আইটি কর্মীরা

কর্মী সঙ্কটের আশঙ্কা করছে রাশিয়ার আইটি খাত। এরই মধ্যে দেশ ছেড়েছেন অথবা ছাড়ার পরিকল্পনা করছেন রাশিয়ার ১৭ লাখ আইটি পেশাজীবীর ৩০ শতাংশ।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 29 Sept 2022, 11:23 AM
Updated : 29 Sept 2022, 11:23 AM

প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের ঘোষিত সেনাসমাবেশ এড়াতে দলে দলে রাশিয়া ছাড়ছেন দেশটির আইটি কর্মীরা। দেশটির সরকার আইটি কর্মীদের যুদ্ধে না পাঠানোর অঙ্গীকার করলেও তাতে ভরসা পাচ্ছেন না তারা।

রয়টার্স জানিয়েছে, রাশিয়া ফেব্রুয়ারি মাসে ইউক্রেইনে আগ্রাসন শুরু করার পরের সপ্তাহগুলোতে দেশ ছেড়েছেন প্রায় ৭০ হাজার রুশ আইটি কর্মী। তারই পরিপ্রেক্ষিতে চলমান সেনাসমাবেশ থেকে আইটি কর্মীদের অব্যাহতি দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে দেশটির ডিজিটাল মন্ত্রণালয়।

রাশিয়ার আইটি খাতের একটি সংগঠনের পরিচালক নিকোলাই কমলেভের বরাত দিয়ে রাশিয়ার স্থানীয় সংবাদমাধ্যম আরবিসি নিউজ জানিয়েছে, সেনাসমাবেশের ঘোষণার পর আগের চেয়ে দ্বিগুণ বা তিনগুণ আইটি কর্মীর দেশত্যাগের আশঙ্কা করছেন এ খাতের শীর্ষ কর্মকর্তারা।

সংবাদমাধ্যমটি আরও জানিয়েছে, কমলেভের ভবিষ্যদ্বাণীর সঙ্গে একমত পোষণ করেছেন স্থানীয় সফটওয়্যার নির্মাতা ‘রুসসফট’-এর প্রধানও। তবে, এক্ষেত্রে ঠিক কতোজন আইটি কর্মী দেশ ছেড়েছেন বা ছাড়ার পরিকল্পনা করছেন তার সঠিক আকার ধারণা করা সম্ভব হবে না বলেও সতর্ক করে দিয়েছেন তিনি।

রয়টার্স জানিয়েছে, গুরুত্বপূর্ণ আইটি কর্মীদের ইউক্রেইন যুদ্ধে পাঠানো থেকে রক্ষা করতে উঠে-পড়ে লেগেছে রাশিয়ার ডিজিটাল মন্ত্রণালয়। নির্দিষ্ট কিছু পেশার কর্মীরা কীভাবে বাধ্যতামূলক সেনাসমাবেশ এড়াতে পারেন তার পথও বাতলে দিয়েছে মন্ত্রণালয়টি।

১৯৫টি পেশার তালিকা দিয়েছে মন্ত্রণালয়টি। বিজ্ঞান, জ্বালানী খাত, পরিবহন খাত এবং মিডিয়া কর্মীরা আছেন ওই তালিকায়। এই খাতগুলোর কর্মীদের সেনাসমাবেশ থেকে অব্যাহতি দেওয়ার পরামর্শ রয়েছে তালিকার সঙ্গে।

তবে, আরবিসি নিউজকে স্থানীয় আইটি খাতের এক উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ডিজিটাল মন্ত্রণালয় থেকে আসা নির্দেশনা স্পষ্ট নয় এবং আইটি খাতের সকল পেশাজীবী এর আওতায় নেই।

সেনাসমাবেশের দায়িত্বে থাকা কার্যালয় বয়সের মতো মৌলিক যোগ্যতার মানদণ্ডকেও অগ্রাহ্য করছেন বলে অভিযোগ করেছেন এ খাতের জ্যেষ্ঠ পেশাজীবীরা।

ইউক্রেইন যুদ্ধের জেরে পশ্চিমা প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলো রাশিয়া থেকে পাততাড়ি গুটিয়ে নেওয়ায় স্থানীয় কোম্পানিগুলো নিজ দেশে শক্ত অবস্থান গড়ার সুযোগ দেখছিল বলে জানিয়েছে রয়টার্স। কিন্তু সেনাসমাবেশের ডাকে সে আশাতেও এখন গুড়ে-বালি অবস্থা বলে উঠে এসেছে প্রতিবেদনে।

মানবসম্পদ বিষয়ক প্রতিষ্ঠান ভেন্ট্রা পাঁচশ আইটি বিশেষজ্ঞের ওপর এক জরিপ চালিয়েছে বলে জানিয়েছে রয়টার্স। ওই জরিপে উঠে এসেছে, রুশ আইটি খাতের ব্যবস্থাপকদের মধ্যে অন্তত ১৯ শতাংশ ২০২২ সালে তাদের কর্মীদের একাংশকে দেশের সীমানার বাইরে পাঠিয়ে দিয়েছেন।

প্রেসিডেন্ট পুতিন সেনাসমাবেশের ঘোষণা দিয়েছেন ২১ সেপ্টেম্বর। অগাস্ট মাসের আরেকটি জরিপের ফলাফল প্রকাশিত হয়েছিল ওই একই দিনে। আর সেই জরিপের ফলাফল বলছে, ইতোমধ্যে দেশ ছেড়েছেন অথবা দেশ ছাড়ার পরিকল্পনা করছেন রাশিয়ার আইটি পেশাজীবীদের ৩০ শতাংশ।

অন্যদিকে, এপ্রিল মাসেই দেশটির এক জনপ্রতিনিধি বলেছিলেন, কর্মী সঙ্কটের আশঙ্কা করছে রাশিয়ার আইটি খাত। কম-বেশি ১৭ লাখ মানুষ কাজ করতেন রুশ আইটি শিল্পে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক