আয় কমার দায় মাস্ক আর বিজ্ঞাপন বাজারের: টুইটার

“টুইটার এমন একটি অনভিপ্রেত পরিস্থিতিতে পড়েছে যেখানে তাদের বিজ্ঞাপনদাতাদের বোঝাতে হচ্ছে যে মাস্কের সঙ্গে আদালতের লড়াইয়েই যাই হোক না কেন, বিজ্ঞাপন ব্যবসা শক্ত অবস্থানেই থাকবে।”

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 24 July 2022, 08:28 AM
Updated : 24 July 2022, 08:28 AM

বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে অপ্রত্যাশিতভাবে আয় কমে নেট ক্ষতি হয়েছে মাইক্রোব্লগিং প্ল্যাটফর্ম টুইটারের। ক্ষতির দায় দুর্বল বিজ্ঞাপন বাজার এবং টেসলা প্রধান ইলন মাস্ককে ওপর চাপিয়েছে কোম্পানিটি।

চার হাজার চারশ কোটি ডলারের বিনিময়ে টুইটার কেনার প্রস্তাব দিয়েও চুক্তি সম্পন্ন করতে সময়ক্ষেপেণের পর সর্বশেষ অধিগ্রহণের সমঝোতা বাতিলের আবেদন করেছেন মাস্ক। শুক্রবারে মাস্কের কারণে সৃষ্ট নাটকীয়তাকেই দুষেছে টুইটার।

টুইটার আপাতত মাস্কের সঙ্গে বিবাদের সমাধানে আদালতে গিয়েছে। শুনানি শুরু হবে অক্টোবর মাসে। অধিগ্রহণে অনিশ্চিয়তায় বিজ্ঞাপনদাতারা শঙ্কিত হওয়ার পাশাপাশি কোম্পানিতে অভ্যন্তরীণ অস্থিরতা তৈরি হয়েছে বলে জানিয়েছে রয়টার্স।

দ্বিতীয় প্রান্তিকে টুইটারের বিজ্ঞাপনী আয় কেবল দুই শতাংশ বেড়ে ১০৮ কোটিতে পৌঁছেছে। তবে, বাজার বিশ্লেষকদের ধারণা ছিল, বিজ্ঞাপন থেকে অন্তত ১২২ কোটি ডলার কামাবে কোম্পানিটি।

দ্বিতীয় প্রান্তিকে সব মিলিয়ে টুইটারের মোট আয় ছিল ১১৮ কোটি ডলার; সাবস্ক্রিপশন থেকে আসা কামাইও এর অন্তর্ভূক্ত আছে। আগের বছরে একই সময়ে কোম্পানির মোট আয় ছিল ১১৯ কোটি ডলার। আর বাজার বিশ্লেষকদের প্রত্যাশা ছিল, এ বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে টুইটারের মোট আয় হবে ১৩২ কোটি ডলার।

টুইটারের দ্বিতীয় প্রান্তিকের আর্থিক প্রতিবেদন প্রসঙ্গে বাজার গবেষণা প্রতিষ্ঠান ইনসাইডার ইন্টেলিজেন্স-এর জ্যেষ্ঠ বিশ্লেষক জেসমিন এনবার্গ বলেছেন, “টুইটার এমন একটি অনভিপ্রেত পরিস্থিতিতে পড়েছে যেখানে তাদের বিজ্ঞাপনদাতাদের বোঝাতে হচ্ছে যে মাস্কের সঙ্গে আদালতের লড়াইয়ের ফল যাই হোক না কেন, বিজ্ঞাপন ব্যবসা শক্ত অবস্থানেই থাকবে। এক্ষেত্রে টুইটারকে যে অনেক কাজ করতে হবে সেটি দ্বিতীয় প্রান্তিকের আর্থিক প্রতিবেদনই দেখাচ্ছে।”

শুক্রবার দিনের শুরুতে শেয়ার বাজারে টুইটারের শেয়ার লেনদেন হয়েছে ৩৮ ডলার ৯০ সেন্ট দামে। কোম্পানির শেয়ারর ভবিষ্যৎ মাস্কের সঙ্গে আইনি লড়াইয়ের ওপর অনেকটাই নির্ভর করছে বলে বলে মন্তব্য করেছেন বাজার বিশ্লেষক ওয়েডবুশ অ্যানালিটিক্সের কর্মী ড্যান আইভস। এ মুহুর্তে কোম্পানির আর্থিক প্রতিবেদনও বিনিয়োগকারীদের আকৃষ্ট করার মতো অবস্থায় নেই বলে মন্তব্য তার।

টুইটার বলছে, দ্বিতীয় প্রান্তিকে কোম্পানির নেট ক্ষতি ছিল ২৭ কোটি ডলার। আগের বছরের একই সময়ে কোম্পানির মুনাফা ছিল সাড়ে ছয় কোটি ডলারের বেশি; শেয়ার প্রতি ৮ সেন্ট করে মুনাফা পেয়েছিলেন বিনিয়োগকারীরা।

টুইটারের বর্তমান পরিস্থিতির কেন্দ্রে রয়েছে প্ল্যাটফর্মটিতে উপস্থিত ভুয়া বা স্প্যাম অ্যাকাউন্টের সঠিক সংখ্যা নিয়ে বিতর্ক। ২০১৩ সাল থেকেই টুইটার বলে আসছে, প্ল্যাটফর্মে স্প্যাম ও বট অ্যাকাউন্টের সংখ্যা ৫ শতাংশের কম।

টুইটারের এই দাবির সঙ্গেই একমত নন ইলন মাস্ক। টেসলা কাণ্ডারীর দাবি, টুইটারে স্প্যাম অ্যাকাউন্টের হার ২০ শতাংশও হতে পারে। স্প্যাম অ্যাকাউন্টের সংখ্যা স্বাধীনভাবে যাচাই করতে টুইটারের কাছে প্রয়োজনীয় তথ্য-উপাত্ত চাইলেও, টুইটার সেটি দেয়নি অভিযোগ তুলেই অধিগ্রহণের সমঝোতা চুক্তি বাতিলের আবেদন করেছেন তিনি।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক