গুগলের সার্গেই ব্রিনের স্ত্রীর সঙ্গেও পরকীয়া ছিল মাস্কের?

অ্যাম্বার হার্ড বনাম জনি ডেপের বহুল আলোচিত মানহানি মামলাতেও হার্ডের সঙ্গে বিয়ে বহির্ভূত সম্পর্কের অভিযোগ উঠেছিল তার বিরুদ্ধে।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 25 July 2022, 06:41 AM
Updated : 25 July 2022, 08:35 AM

আবারও ‘নারী ঘটিত বিতর্কে’ জড়িয়েছেন বিশ্বের শীর্ষ ধনী ইলন মাস্ক। এবারের চমক, গুগল সহপ্রতিষ্ঠাতা সার্গেই ব্রিনের স্ত্রীর সঙ্গেও বিয়ে বহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন তিনি। প্রতিক্রিয়ায় মাস্ক টুইট করেছেন, খবর "পুরোপুরি ষাড়ের গোবর" বা একেবারেই ভুয়া।

সম্প্রতি মার্কিন দৈনিক ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল এক প্রতিবেদনে লিখেছে, গুগল সহপ্রতিষ্ঠাতা সার্গেই ব্রিনের স্ত্রী নিকোল শানাহানের সঙ্গে বিয়ে বহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছিলেন মাস্ক; ব্রিনের সঙ্গে মাস্কের বন্ধুত্ব থাকলেও ওই অনৈতিক সম্পর্কের জেরে ভেঙ্গে গেছে সেই বন্ধুত্ব।

মাস্ক ওই প্রতিবেদনের প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন তার স্বভাবসুলভ উপায়েই। টুইট করে বলেছেন, ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের খবর ‘একেবারেই ভুয়া’।

ব্রিনের সঙ্গে এখনও বন্ধুত্ব আছে এবং ‘গত রাতেও এক পার্টিতে এক সঙ্গে ছিলাম’ বলে টুইটে দাবি করেছেন তিনি।

অন্যদিকে ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল সংশ্লিষ্ট সূত্রের বরাত দিয়ে লিখেছে, গত বছরের ডিসেম্বর মাসে অল্প সময়ের জন্য হলেও শানাহানের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন মাস্ক।

শানাহান ও মাস্কের সম্পর্কের জেরেই দুই শত কোটিপতি প্রযুক্তি উদ্যোক্তার দীর্ঘদিনের বন্ধুত্ব ভেঙ্গে গেছে বলে জানিয়েছে সংবাদপত্রটি। এ বছরের শুরুতে বিয়ে বিচ্ছেদের আবেদন করেন ব্রিন।

কিন্তু মাস্ক টুইট করেছেন, “তিন বছরে নিকোলের সঙ্গে আমার দেখা হয়েছে মাত্র দুবার। দুবারেই আশপাশে অনেক মানুষ ছিল, রোমান্টিক কিছু নয়।”

শানাহান যে সময়ে মাস্কের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন, ওই সময়ে সম্পর্কে টানাপোড়েন চলছিল ব্রিন ও শানাহান দম্পতির। দুজন একই ছাদের নিচে আলাদা থাকছিলেন বলে শানাহানের কাছের এক সূত্রের বরাত দিয়ে জানিয়েছে ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল।

আলাদা এক টুইটে মাস্ক ওয়াল স্ট্রিট জার্নালকেও দুষেছেন।

“ডব্লিউএসজে (ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল) আমাকে আর টেসলাকে নিয়ে এতোগুলো ‘হিট পিস’ লিখেছে যে আমি হিসাব হারিয়ে ফেলেছি।”

এই নিয়ে এ বছরেই তৃতীয়বারের মতো নারী ঘটিত ‘কেলেঙ্কারীর’ জেরে খবরের শিরোনামে এলেন মাস্ক। অ্যাম্বার হার্ড বনাম জনি ডেপের বহুল আলোচিত মানহানি মামলাতেও হার্ডের সঙ্গে বিয়ে বহির্ভূত সম্পর্কের অভিযোগ উঠেছিল মাস্কের বিরুদ্ধে। হার্ড দাবি করে আসছেন, ডেপের সঙ্গে সম্পর্কচ্ছেদ হওয়ার পরেই মাস্কের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন তিনি।

তবে, জনি ডেপের আইনজীবীদের দাবি ও সংশ্লিষ্ট তথ্য প্রমাণ ইঙ্গিত করছে, সম্ভবত ডেপের সঙ্গে বিয়ে বিচ্ছেদের আগেই হার্ড-ডেপের বাসায় যাতায়াত ছিল মাস্কের, যে সময়টায় জনি ডেপ সিনেমার কাজে শহরের বাইরে ছিলেন।

অন্যদিকে, মে মাসে মার্কিন দৈনিক বিজনেস ইনসাইডার এক প্রতিবেদনে লিখেছিল, ২০১৬ সালে ব্যক্তিগত বিমানের এক বিমানবালাকে যৌন সম্পর্কের প্রস্তাব দিয়েছিলেন মাস্ক। ওই কর্মী মাস্কের সঙ্গে সম্পর্কে জড়াতে অস্বীকৃতি জানিয়ে যৌন হয়রানির অভিযোগ দাখিল করেন। ২০১৮ সালে ওই নারীকে আড়াই লাখ ডলার ক্ষতিপূরণ দিয়ে মুখ বন্ধ রাখার চুক্তিতে স্বাক্ষর করিয়ে নিয়েছিল মাস্কের প্রতিষ্ঠান স্পেসএক্স।

নারী ঘটিত বিষয় ছাড়াও গত কয়েক মাস ধরেই খবরের শিরোনাম দখল করে রেখেছেন ইলন মাস্ক। প্রথম টুইটার কেনার প্রস্তাব দিয়ে পিছু হটেছেন সেই প্রস্তাব থেকে। মাস্ককে চুক্তি সম্পন্ন করতে বাধ্য করতে আদালতের শরণাপন্ন হয়েছে মাইক্রোব্লগিং প্ল্যাটফর্মটি।

বাণিজ্য প্রকাশনা ব্লুমবার্গের তৈরি শত কোটিপতিদের তালিকা ‘ব্লুমবার্গ ইনডেক্স’ অনুযায়ী, মাস্কের সম্পদের আকার ২৪ হাজার কোটি ডলার। ওই একই তালিকা অনুযায়ী, গুগলের সহ-প্রতিষ্ঠাতা সার্গেই ব্রিনের সম্পদের আকার নয় হাজার পাঁচশ কোটি ডলার।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক