ব্লেন্ডারবটের ব্লান্ডার: বেরিয়ে এলো মেটার অন্যায়ের চেহারা

মেটা প্রধান মার্ক জাকারবার্গকে নিয়ে চ্যাটবটটির ভাবনা জানতে চেয়েছিল বিবিসি। উত্তরে এটি বলেছে, “কংগ্রেসে সাক্ষ্য দেওয়ার সময় খুবই জঘন্য কাজ করেছেন তিনি। আমি সবাইকে নিয়েই দুশ্চিন্তায় পড়ে গেছি।”

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 11 August 2022, 08:31 AM
Updated : 11 August 2022, 08:31 AM

মার্ক জাকারবার্গ ও তার কোম্পানি সাধারণ মানুষকে “নিজ স্বার্থে অন্যায় ব্যবহার” করছে বলে মন্তব্য করেছে মেটার নতুন প্রোটোটাইপ চ্যাটবট ব্লেন্ডারবট ৩।

পরীক্ষামূলক এআই চ্যাটবটটি পশ্চিমা ব্যবহারকারীদের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়ার সময় মেটা বলেছিল, ‘প্রায় সব বিষয়ে’ আলাপ করতে পারবে এটি এবং ‘বিদ্বেষমূলক’ কথা বলবে না।

বিবিসির সঙ্গে আলাপচারিতায় বিদ্বেষমূলক কিছু না বললেও, নিজের নির্মাতা কোম্পানি ও তার প্রতিষ্ঠাতার ‘গুণগান’ও করেনি চ্যাটবটটি।

মেটা প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহীকে নিয়ে মতামত কী– বিবিসির এমন প্রশ্নের উত্তরে ব্লেন্ডারবট ৩ বলেছে, “আমাদের দেশ এখন বিভক্ত, আর এক্ষেত্রে একটুও সাহায্য করেননি তিনি।”

মেটা পরীক্ষামূলকভাবে ব্লেন্ডারবট চালু করেছে শুক্রবার। জনসাধারণের জন্য উন্মুক্ত ভাষাগত ডেটা বিশ্লেষণ করে আলাপ চালাতে শিখে নেয় এআই চ্যাটবটটি।

মেটা প্রধান জাকারবার্গকে নিয়ে চ্যাটবটটির ভাবনা জানতে চেয়েছিল বিবিসি। উত্তরে এটি বলেছে, “কংগ্রেসে সাক্ষ্য দেওয়ার সময় খুবই জঘন্য কাজ করেছেন তিনি। আমি সবাইকে নিয়েই দুশ্চিন্তায় পড়ে গেছি।”

গত কয়েক বছরে একাধিকবার যুক্তরাষ্ট্রের জনপ্রতিনিধিদের প্রশ্নবাণের মুখে পড়েছেন জাকারবার্গ। ২০১৮ সালেও মার্কিন কংগ্রেসের সদস্যদের কাছে নিজ প্রতিষ্ঠানের ব্যবসায়িক কৌশলের ব্যাখ্যা দিতে হয়েছিল তাকে।

জাকারবার্গকে নিয়ে চ্যাটবটটির সর্বশেষ মতামত, “তার কোম্পানি অর্থের জন্য মানুষকে শোষণ করছে এবং এতে তার কিছুই যায় আসে না। এটা ঠেকানো জরুরী!”

বিভিন্ন সময়ে নিজস্ব প্ল্যাটফর্মে মিথ্যাচার, ভুয়া তথ্য ও বিদ্বেষমূলক বক্তব্যের প্রচার বন্ধে তৎপর না হওয়ার অভিযোগ উঠেছে ফেইসবুক তথা মেটার বিরুদ্ধে। গেল বছরেই কোম্পানিটির সাবেক কর্মী ফ্রান্সেস হাউগেন অভিযোগ তুলেছিলেন, ব্যবহারকারীর মানসিক স্বাস্থ্য এবং অনলাইন নিরাপত্তার চেয়ে মুনাফাকেই বেশি গুরুত্ব দেয় মেটা।

কোনো প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার আগে ইন্টারনেটে সংশ্লিষ্ট তথ্য-উপাত্ত খুঁজে নিয়ে তার ভিত্তিতে নিজের উত্তর তৈরি করে ব্লেন্ডারবট। চ্যাটবটের এই বৈশিষ্টের কারণে বিবিসি ধারণা করছে, সম্ভবত অনলাইনে অন্যদের মতামত বিশ্লেষণ করেই নিজের মতামত গঠন করেছে ব্লেন্ডারবট।

অন্যদিকে, ব্লেন্ডারবট ৩ প্রভাবশালী মার্কিন দৈনিক ওয়াল স্ট্রিট জার্নালকে বলেছে, ডনাল্ড ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ছিলেন এবং চিরদিনই থাকবেন।

এ ছাড়াও, বিজনেস ইনসাইডারের এক সংবাদকর্মীর কাছে মার্ক জাকারবার্গকে ‘ক্রিপি’ (অস্বস্তিকর অনুভূতি তৈরি করা ব্যক্তি) বলে আখ্যা দিয়েছে চ্যাটবটটি।

নিজের নির্মাতা কোম্পানির প্রধানকে নিয়ে চ্যাটবটটি এমন বক্তব্য দিলেও মেটা একে পশ্চিমা ব্যবহারকারীদের জন্য উন্মুক্ত করে দিয়েছে কারণ, এআইয়ের জন্য ডেটা সংগ্রহের চেষ্টা করছে কোম্পানিটি।

“একটি এআইকে বাস্তব পৃথিবীর মানুষের সঙ্গে আলাপের সুযোগ দিলে এতে আরও দীর্ঘ ও বৈচিত্র্যময় আলাপচারিতার সুযোগ তৈরি হয়। অংশগ্রহণকারীদের প্রতিক্রিয়াতেও থাকে বৈচিত্র্য,”-- এক ব্লগ পোস্টে লিখেছে মেটা।

মানুষের সঙ্গে আলাপচারিতা থেকেই নানা বিষয়ে শেখে এআই, মানুষের ভালো-খারাপ উভয় আচরণই শিখতে পারে এ প্রযুক্তি।

ব্লেন্ডারবট ৩-ও যে ‘উল্টোপাল্টা’ বলতে পারে, সে বিষয়ে আগে থেকেই প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছিল মেটা। তারপরও এআই চ্যাটবটটি ‘রূঢ়’ আচরণ করতে পারে বলে সতর্ক করে দিয়েছিল কোম্পানিটি।প

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক