ভয়েস চ্যাটিংয়ে আড়ি পাতবে ভ্যালোর‌্যান্ট নির্মাতা রায়ট

গেইমারদের ভয়েস চ্যাটিংয়ে আড়ি পাতবে ভ্যালোর‌্যান্টের নির্মাতা রায়ট গেইমস। বিনা খরচের ফার্স্ট পারসন শুটার গেইমটিতে বিদ্বেষমূলক আচরণ মোকাবেলা করতেই এই পদক্ষেপ নেওয়ার কথা বলেছে নির্মাতা প্রতিষ্ঠানটি।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 27 June 2022, 08:15 AM
Updated : 27 June 2022, 08:15 AM

গেইমের সার্বিক রিপোর্টিং প্রক্রিয়াকে আরও উন্নত করার অংশ হিসেবে গেইমারদের ভয়েস ডেটা সংগ্রহ করে নিজস্ব ‘ল্যাঙ্গুয়েজ মডেলগুলোকে’ প্রশিক্ষণ দিতে চায় রায়ট গেইমস, যেন পরবর্তীতে ভয়েস চ্যাটিংয়ে বিদ্বেষমূলক আচরণ স্বয়ংক্রিয়ভাবে চিহ্নিত করা সম্ভব হয়।

২০২১ সালে নিজস্ব গোপনতা নীতিমালায় পরিবর্তন আনার পরপরই ভয়েস চ্যাট ডেটা সংগ্রহ করার পরিকল্পনার কথা বলেছিল রায়ট । নতুন নীতিমালায় গেইমাররা রায়টের নিজস্ব ভয়েস কমিউনিকেশন চ্যানেল ব্যবহারের সময় ‘ভয়েস ডেটা রেকর্ড করার এবং প্রয়োজনে বিচার-বিশ্লেষণ করার’ অনুমোদন পেয়েছে নির্মাতা প্রতিষ্ঠানটি।

এ ক্ষেত্রে, রায়ট ভয়েস চ্যাটিংয়ে বিদ্বেষমূলক আচরণ ও হয়রানি মোকাবেলার লক্ষ্য নিয়ে কাজ করছে বলে জানিয়েছে প্রযুক্তিবিষয়ক সাইট ভার্জ। ১৩ জুলাই থেকে গেইমারদের ভয়েস চ্যাটিংয়ের রেকর্ডিং সংগ্রহ করা শুরু করবে প্রতিষ্ঠানটি।

রায়ট জানিয়েছে, কোনো গেইমার কারও বিরুদ্ধে আক্রমণাত্মক আচরণের অভিযোগে রিপোর্ট করলে সেক্ষেত্রে ভয়েস চ্যাটিংয়ের রেকর্ডিং শুনে দেখবে তারা। এতে অভিযুক্ত গেইমার আদৌ রায়টের নীতিমালা লঙ্ঘন করে বিদ্বেষমূলক আচরণ করেছেন কি না, সেটি নির্ধারণ সহজ হবে প্রতিষ্ঠানটির জন্য।

তবে, এখনই সকল গেইমারের ভয়েস চ্যাটিংয়ের রেকর্ডিং শুনে অভিযোগ বিচার-বিশ্লেষণ শুরু করছে না রায়ট গেইমস। আপাতত তথ্য সংগ্রহ করে নিজস্ব ব্যবস্থার বেটা সংস্করণ নির্মাণ করবে কোম্পানিটি। ফিচারটি পুরো দমে চালু হবে বছরের শেষ নাগাদ।

আপাতত, কেবল উত্তর আমেরিকার ইংরেজি ভাষার গেইমারদের ভয়েস চ্যাট বিচার-বিশ্লেষণ করবে প্রতিষ্ঠানটি। রায়টের ‘আড়ি পাতা’ এড়ানোর একমাত্র উপায় হচ্ছে গেইমের ভয়েস চ্যাট সম্পূর্ণ বন্ধ করে দেওয়া এবং ডিসকর্ডের মতো বিকল্প কোনো প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করা।

নতুন ফিচারটি নিয়ে ঘোষণায় রায়ট বলেছে, “আমরা জানি যে নতুন টুলটির কাজের পরিধি বাড়ানোর আগে আমাদের সেই আত্মবিশ্বাস অর্জন করতে হবে যে এটি কার্যকর। ভুল চিহ্নিত করার জন্য আমরা প্রয়োজনীয় প্রস্তুতিও নিয়ে রেখেছি।”

নতুন টুলটি চালু হলে, গেইম খেলার সময় তাৎক্ষণিকভাবে ভয়েস চ্যাট শুনবে না রায়ট গেইমস। বরং, বাজে আচরণের অভিযোগ উঠলে কেবল তখনই গেইমারের ভয়েস চ্যাটিংয়ের রেকর্ডিং শুনে সিদ্ধান্ত নেবে তারা।

অভিযোগের নিস্পত্তি হয়ে গেলে সংশ্লিষ্ট ডেটা মুছে ফেলার কথাও জানিয়েছে রায়ট।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক