হুয়াওয়ের ওপর নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার চায় মাইক্রোসফট

হুয়াওয়ে’র ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন মাইক্রোসফট প্রেসিডেন্ট ব্র্যাড স্মিথ।

মো. ফয়সাল ইসলামবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 20 Sept 2019, 05:40 PM
Updated : 20 Sept 2019, 05:40 PM

কম্পিউটার নির্মাতা চীনা প্রতিষ্ঠানটিকে উইন্ডোজ সফটওয়্যার সরবরাহ করতে আগ্রহী মাইক্রোসফট। এতে নিরাপত্তার “কোনো হুমকি নেই” বলে জানিয়েছেন স্মিথ।

বিবিসিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে স্মিথ বলেন, “হুয়াওয়ের গ্রাহকদের মাইক্রোসফটের পণ্য ব্যবহারে নিরাপত্তাজনিত কোনো সমস্যা হবে বলে তিনি মনে করেন না। বরং নিষেধাজ্ঞার এই সিদ্ধান্তটি হবে ভুল এবং এর কারণে মার্কিন যুক্তরষ্ট্র অনেক পিছিয়ে পড়বে এবং বৈশ্বিক গণতন্ত্রও পশ্চাদমুখী হবে।”

স্মিথ আরও বলেন, “হুয়াওয়ের বিভিন্ন ডিভাইস যেমন ল্যাপটপে আামাদের সফটওয়্যার সরবরাহ করতে অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের মতো আমরাও আবেদন করেছি এবং যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে কাজ করে যাচ্ছি।”

“৫জি নিয়ে হয়তো কিছু সমস্যা তৈরি হতে পারে। কিন্তু আমাদের প্রশ্ন করা উচিত যে, প্রতিষ্ঠানের সব পণ্যের ক্ষেত্রেই একই পদক্ষেপ ঠিক কিনা?”

মার্কিন বাণিজ্যিক নিষেধাজ্ঞা আসার আগেই ফেব্রুয়ারিতে উইন্ডোজচালিত মেইটবুক এক্স প্রো উন্মোচন করে হুয়াওয়ে।

এ ব্যাপারে মার্কিন বাণিজ্য মন্ত্রী উইলবার রস জানিয়েছেন, তার মন্ত্রণালয় থেকে এই নিষেধাজ্ঞা বাতিল সংক্রান্ত একটি লাইসেন্স ইস্যু করা হতে পারে এবং বলা হয়েছে এতে যুক্তরাষ্ট্রের “জাতীয় নিরাপত্তায় কোন সমস্যা হবে না।”

এদিকে ৫জি প্রযুক্তির পণ্য সরবরাহেও অনেকে প্রশ্ন তুলছেন। সম্প্রতি জানানো হয়, ডনাল্ড ট্রাম্পের দেওয়া ৫জি পণ্য সরবরাহে নিষেধাজ্ঞার আদেশে কোনো পরিবর্তন হবে না।

যদিও এই নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের জন্য একশ’র বেশি প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে আবেদন এসেছে। তবে যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্য মন্ত্রণালয় থেকে কোনো রকমের অনুমোদনের খবর পাওয়া যায়নি।

হুয়াওয়ের একটি ওয়েব সাইট থেকে জানানো হয়, তাদের ডিভাইস এবং নেটওয়ার্ক “মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বা পৃথিবীর কোন দেশের জন্য মোটেও হুমকি নয়।” সেখানে আরও উল্লেখ করা হয়, যেসব দেশে তারা পণ্য সরবরাহ করছে সেই সব “দেশের আইন মেনেই তা করা হচ্ছে।

স্মিথ তার লেখা বই নিয়ে বিবিসিকে দেওয়া এক দীর্ঘ সাক্ষাৎকারে বলেন, তিনি যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্য বিভাগকে পরামর্শ দিয়েছেন কোনো প্রতিষ্ঠানকে লাইসেন্স দেওয়ার আগে প্রয়োজনীয় সময় নিয়ে বিবেচনা করতে।

আবার একথাও তিনি বলেন, পৃথিবীর যেকোনো দেশেই আমাদের আউটলুক বা ওয়ার্ড এর মতো অ্যাপ্লিকেশন বা আমাদের সার্চ ইঞ্জিন ব্যবহারে সেই দেশের নিরাপত্তা কখনই বিঘ্নিত হবে না। আমরা মনে করি এতে জনগনের জন্য সম্ভাবনার দুয়ার আরও খুলে যাবে।

এদিকে হুয়াওয়ের প্রতিষ্ঠাতা রেন ঝেংফেই জানান, তার প্রতিষ্ঠান একটি “জীবন-মরণ সঙ্কটের মধ্যে রয়েছে।”

মার্কিন নিষেধাজ্ঞার সিদ্ধান্তের পর চীন সরকার পাল্টা নিষেধাজ্ঞার সিদ্ধান্ত নিতে পারে বলেও গুজব রয়েছে।

স্মিথ অ্যাপলসহ আরও অন্যান্য প্রতিষ্ঠানকে এই নিষেধাজ্ঞার ব্যাপারে সতর্ক করেন। নিষেধাজ্ঞার ফলে সমন্বিত গবেষণায় কেমন প্রভাব পড়তে পারে তা নিয়েও সতর্ক করেছেন তিনি।

স্মিথ বলেন, “অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের মতো চীনে আমাদের ব্যাবসা খুব বড় নয়। মাইক্রসফটের আয়ের মাত্র ১.৮ শতাংশ আসে চীন থেকে। তবে এর প্রভাব নিয়েও আমরা চিন্তিত।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক