নোট ৭ স্থগিত করল স্যামসাং

শেষ পর্যন্ত মঙ্গলবার গ্যালাক্সি নোট ৭ বিক্রি স্থগিত ঘোষণা করেছে নির্মাতা প্রতিষ্ঠান স্যামসাং।

তাহমিন আয়শা মুর্শেদবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 11 Oct 2016, 11:50 AM
Updated : 11 Oct 2016, 11:50 AM

এর আগে ফোন 'বিস্ফোরণের' পুরো বিষয়ের তদন্ত শেষ হওয়ার আগ পর্যন্ত ব্যবহারকারীদের স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট ৭ ব্যবহার না করার অনুরোধ জানানো হয় এই দক্ষিণ কোরীয় টেক জায়ান্টের পক্ষ থেকে।

সোমবার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র আর অস্ট্রেলিয়ায় স্যামসাং নোট ৭ বিক্রি এবং এই ডিভাইস বদল স্থগিত করা হয়। এর আগে স্যামসাং নোট ৭ 'বিস্ফোরণ' বা 'আগুন' ধরে যাচ্ছে- এমন প্রতিবেদন প্রকাশের পর স্যামসাং নোট ৭-এর বদলে নতুন ডিভাইস দেওয়ার পদক্ষেপ নেয়।

এই খবর প্রকাশের আগের সপ্তাহে, 'বদলে দেওয়া ফোনেও আগুন ধরে যাচ্ছে'- এমন খবর প্রকাশের পর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্লেন চলাচল কর্তৃপক্ষ তাদের যাত্রীবাহী প্লেনে বিশেষ ওই মডেলের ফোনটির ব্যবহার নিষিদ্ধ ঘোষণা করে।

বিশ্বের শীর্ষ এই স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান এ ঘটনার তদন্ত শেষ হওয়ার আগ পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী সব মোবাইল সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলোকে নোট ৭ 'বিক্রি' বা 'প্রতিস্থাপন' বন্ধ করতে নির্দেশ দিয়েছে।

"স্যামসাং নোট ৭ এবং এই ফোনের বদলে নেওয়া 'প্রতিস্থাপিত' স্যামসাং ফোন ব্যবহারকারীদের এসব ডিভাইস ব্যবহার বন্ধ করা উচিত", প্রতিষ্ঠানটি এক বিবৃতিতে জানায়।

রয়টার্স জানিয়েছে, দুই মাসেরও কম সময়ের মধ্যে স্যামসাং নোট ৭ বিক্রি বন্ধ আর প্রতিস্থাপিত ফোন বাজারে ছাড়া এবং তা 'ব্যর্থ' হওয়ার পুরো ঘটনা প্রতিষ্ঠানের মান নিয়ন্ত্রণ সম্পর্কে সবার মনে প্রশ্নের সৃষ্টি করেছে। এসব ঘটনায় প্রতিষ্ঠানের ব্যাপক আর্থিক ক্ষতি আর মর্যাদাহানী ঘটেছে।

মঙ্গলবার দিনের মাঝামাঝি সময় পর্যন্ত লেনদেনের হিসাবে দেখা যায় বিনিয়োগকারীরা ১৪.৭ ট্রিলিয়ন ইউরো ওন সরিয়ে নেওয়ার পর স্যামসাং ইলেকট্রনিক্স-এর বাজারমূল্য সাত শতাংশের মতো কমে গেছে।  

অগাস্টে বাজারে আনা স্যামসাং নোট ৭ একই সময়ে বাজারে আসা অ্যাপলের নতুন আইফোনের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে বলে ধারণা করা হচ্ছিল। তবে বাজারে আসার পরপরই এই ফোনের সমস্যাগুলো মিডিয়াতে উঠে আসছিল। ত্রুটিপুর্ণ ব্যাটারির জন্য শেষ পর্যন্ত বাজার থেকে ২৫ লাখ স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট ৭ সরিয়ে নেয় প্রতিষ্ঠানটি। পরে তা বদল নতুন করে বাজারে নোট ৭ ছাড়ার পরও একই সমস্যায় পড়ে তারা।

"এসব ঘটনা মূলত 'নোট ৭ ব্র্যান্ড নাম'- কে হত্যা করেছে। কে জানে তারা আবার এটি পুনরায় চালু করতে পারবে কিনা", বলেন চার্টার ইকুইটি রিসার্চ-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক অ্যাডওয়ার্ড স্নাইডার।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক