স্যামসাংয়ের নোট ৭ তৈরি 'বন্ধ'

নিজেদের সর্বশেষ ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন গ্ল্যালাক্সি নোট ৭ উৎপাদন বন্ধ করে দিয়েছে দক্ষিণ কোরীয় ইলেকট্রনিকস জায়ান্ট স্যামসাং।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 10 Oct 2016, 10:02 AM
Updated : 10 Oct 2016, 10:03 AM

সোমবার এক সূত্রের বরাতে রয়টার্স এ খবর জানায়। বিস্ফোরণ আর অগ্নিঝুঁকি নিয়ে একবার ফেরত নিয়ে বদলে দেওয়ার পর, পরের সংস্করণগুলোতেও একই অভিযোগ উঠার পর এমন খবর প্রকাশিত হল। 

ইতোমধ্যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র আর অস্ট্রেলিয়ার শীর্ষস্থানীয় টেলিযোগাযোগ অপারেটরগুলো নোট ৭ বিক্রি বন্ধ করে দিয়েছে। সেইসঙ্গে তারা ইতোমধ্যে নোট ৭ কিনেছেন এমন গ্রাহকদের হ্যান্ডসেট বদলে অন্য হ্যান্ডসেট নেওয়ার প্রস্তাবও দিচ্ছে। সম্প্রতি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এক এয়ারলাইন-এর এক যাত্রায় এই হ্যান্ডসেট থেকে ধোঁয়া বের হওয়ার ঘটনার পর প্লেনে এই হ্যান্ডসেট নিয়ে ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে বড় বড় অনেক এয়ারলাইনও।   

নীতিনির্ধারকদের কাছে দেওয়া এক নথিতে স্যামসাং জানিয়েছে, তারা কিছু ডিভাইসে আগুন লাগার কারণে পরিদর্শন আর শক্তিশালী মান নিয়ন্ত্রণের জন্য নোট ৭-এর চালান 'সমন্বয়' করে নিচ্ছে। তবে, উৎপাদন বন্ধ করে দেওয়ার বিষয়ে প্রতিষ্ঠানটি কোনো মন্তব্য করেনি। গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলার অনুমতি না থাকায় ওই সূত্র নিজের পরিচয় প্রকাশ করেননি। উৎপাদন বন্ধ হওয়ার কথা জানালেও, ঠিক কখন আর নির্দিষ্টভাবে কোন সমস্যা চিহ্নিত করে এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে তার ব্যাখ্যা দেওয়া হয়নি। 

ব্র্যান্ড কৌশল বিশেষজ্ঞ ও রেপুটেশন ম্যানেজমেন্ট কনসালটেন্টস-এর চেয়ারম্যান এরিক শিফার বলেন, "যদি নোট ৭ উৎপাদন অব্যাহত রাখা হত, তবে এটি হত আধুনিক প্রযুক্তির ইতিহাসে কোনো ব্র্যান্ডের জন্য একমাত্র সবচেয়ে বড় আত্মঘাতী আচরণ। স্যামসাংয়ের একটি বড় বিবৃতি লিখে এই নোট ৭-কে প্রকৌশলখাতের হল অফ শেইমে ফোর্ড পিন্টো'র সামনে রাখা উচিৎ।" 

গাড়ি নির্মাতা মার্কিন প্রতিষ্ঠান ফোর্ড-এর ফোর্ড পিন্টো গাড়িটি জ্বালানী ট্যাংকে আগুন লাগার ঘটনায় নিরাপত্তা ঝুঁকির কারণে গাড়ি ফেরত নিতে হয়েছিল নির্মাতাদের।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক