‘বাঁচা-মরার’ ম্যাচে দেম্বেলেকে নিয়েও অনিশ্চয়তায় ফ্রান্স

চোট পাওয়া বার্সেলোনা ফরোয়ার্ডকে নিয়ে ঝুঁকি নিতে নারাজ ফ্রান্স কোচ দিদিয়ের দেশম।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 25 Sept 2022, 11:02 AM
Updated : 25 Sept 2022, 11:02 AM

চোট সমস্যা কিছুতেই পিছু ছাড়ছে না ফ্রান্সের। দলের বাইরে আছেন এক ডজনের বেশি খেলোয়াড়। সবশেষ এই তালিকায় যুক্ত হয়েছে উসমান দেম্বেলের নাম। পায়ে চোট পাওয়ায় ডেনমার্কের বিপক্ষে বার্সেলোনা ফরোয়ার্ডের অংশগ্রহণ নিয়ে জেগেছে সংশয়।

নেশন্স লিগে গত বৃহস্পতিবার গ্রুপ পর্বের ম্যাচে অস্ট্রিয়ার বিপক্ষে ২-০ গোলে জয়ের ম্যাচে শেষের দিকে বদলি হিসেবে নেমেছিলেন দেম্বেলে। গণমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, ওই ম্যাচের পর মাঠ ছাড়ার সময়ই পায়ে অস্বস্তি অনুভব করেন তিনি।

ডেনমার্কের বিপক্ষে ম্যাচে দেম্বেলেকে না পেলে ফ্রান্সের জন্য তা হবে বড় ধাক্কা। কারণ বিভিন্ন চোটে আগেই ছিটকে গেছেন গোলরক্ষক হুগো লরিস, মিডফিল্ডার পল পগবা, স্ট্রাইকার করিম বেনজেমাসহ গুরুত্বপূর্ণ কয়েকজন খেলোয়াড়। অস্ট্রিয়ার বিপক্ষে ম্যাচে চোট পান আরেক গোলরক্ষক মাইক মিয়াঁ ও ডিফেন্ডার জুল কুন্দে।

ডেনমার্কের বিপক্ষে জিততে না পারলে নেশন্স লিগের আগামী আসরে দ্বিতীয় স্তরে নেমে যাওয়ার শঙ্কা রয়েছে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের।

নিয়মিত খেলোয়াড়দের অনেকে না থাকলেও এই ম্যাচে দেম্বেলেকে নিয়ে ঝুঁকি নেওয়ার পক্ষপাতী নন ফ্রান্স কোচ দিদিয়ের দেশম। সংবাদ সম্মেলনে শনিবার তিনি বলেন, কেবল শতভাগ ফিট থাকলেই খেলবেন ২৫ বছর বয়সী দেম্বেলে। 

“উসমান (দেম্বেলে) পায়ে অস্বস্তি অনুভব করছিল এবং সে আলাদাভাবে অনুশীলন করবে।”

“অনুশীলনের পর আমরা (দেম্বেলের অবস্থা) পর্যালোচনা করব। দলে কিছু পরিবর্তন আসবে, তবে আমি আজ রাতে সিদ্ধান্ত নেব না। আমি মেডিকেল রিপোর্ট দেখে এবং খেলোয়াড়রা কেমন অনুভব করে, সেটা জানার জন্য অপেক্ষা করব। (ডেনমার্কের বিপক্ষে) দলে অবশ্যই পরিবর্তন আসবে, তবে আপনাদের বলব না যে কতগুলো হবে।”

‘এ’ লিগের ১ নম্বর গ্রুপ পাঁচ ম্যাচে ৫ পয়েন্ট নিয়ে তিনে আছে ফ্রান্স। ৪ পয়েন্ট নিয়ে তলানিতে অস্ট্রিয়া। ১০ ও ৯ পয়েন্ট নিয়ে যথাক্রমে প্রথম দুই স্থানে আছে ক্রোয়েশিয়া ও ডেনমার্ক।

ফ্রান্স নিজেদের ম্যাচে জিততে ব্যর্থ হলে এবং অন্য ম্যাচে অস্ট্রিয়া জিতলে অবনমন হয়ে যাবে ফরাসিদের। নেশন্স লিগের নিয়ম অনুযায়ী, গ্রুপের তলানির দল পরের আসরে খেলবে নিচের স্তরের লিগে।

ফ্রান্স ও ডেনমার্কের রোববারের লড়াইয়ে নেশন্স লিগ ছাপিয়ে আলোচনায় উঠে আসছে কাতার বিশ্বকাপও। কেননা বিশ্বসেরার মঞ্চেও একই গ্রুপে পড়েছে তারা। সেখানে গ্রুপ ‘ডি’ এর অন্য দুই দল অস্ট্রেলিয়া ও তিউনিসিয়া।

বিশ্বকাপের ম্যাচের মহড়া আগেই হয়ে যাওয়ায় প্রতিপক্ষের ব্যাপারে তা ফ্রান্সকে দিতে পারে বাড়তি সুবিধা। একইরকম হতে পারে ডেনিশদের ক্ষেত্রেও। দেশম অবশ্য সেভাবে দেখছেন না বিষয়টা।

“(এই ম্যাচ থেকে) একমাত্র সুবিধা পাবে ওই খেলোয়াড়রা, যারা সেখানে থাকবে এবং যাদের শুরুর একাদশে থাকা বা বদলি হিসেবে নামার সম্ভাবনা আছে। এছাড়া আমি এই ম্যাচ থেকে বিশেষ প্রাপ্তির কিছু দেখছি না।”

“কাতারে পুরোপুরি আলাদা একটা ম্যাচ হবে। তবে এটা সত্যি যে এই ম্যাচ দিয়ে দলগুলো একে অপরকে ভালোভাবে জানার সুযোগ পাবে।”

বিশ্বকাপে আগামী ২৬ নভেম্বর ডেনমার্কের বিপক্ষে খেলবে ফ্রান্স।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক