বাফুফের চাওয়াগুলো পুরনো, দ্রুত প্রস্তুতিতে নামতে চান কাবরেরা

ফিফা উইন্ডো ও সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ নিয়ে কাজ শুরু করতে চান জাতীয় দলের কোচ হাভিয়ের কাবরেরা।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 25 Jan 2023, 09:13 AM
Updated : 25 Jan 2023, 09:13 AM

পুরনো সব চাওয়া নিয়েই নতুন বছরের পরিকল্পনা চলছে। সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে ভালো করা, ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ে নামতে নামতে প্রায় তলানিতে ঠেকে যাওয়া থেকে একটু মাথা তুলে দাঁড়ানোর আকাঙ্ক্ষা বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের। নতুন চুক্তি করার পর আলোচনায় বসে কোচ হাভিয়ের কাবরেরাও জানালেন, চাওয়া পূরণে মাঠের প্রস্তুতি শুরুর প্রয়োজন।

বাফুফে ভবনে বুধবার ন্যাশনাল টিমস কমিটির সঙ্গে আলোচনায় বসেন কাবরেরা। সেখানে মূলত আগামী মার্চের ফিফা উইন্ডো কাজে লাগানো এবং সম্ভাব্য জুন-জুলাইয়ে অনুষ্ঠেয় সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের প্রস্তুতি নিয়ে আলোচনা হয়েছে।

২০০৩ সালে প্রথম এবং সবশেষ সাফের শিরোপা জিতেছিল বাংলাদেশ। পরের আসরে ফাইনালে উঠে হেরেছিল ভারতের কাছে। এরপর থেকে চলছে দুঃসময়; যে বৃত্তে গত সাত আসর ধরে বন্দী বাংলাদেশ। ২০২১ সালের সবশেষ আসরেও রাউন্ড রবিন লিগের বৈতরণী পার হতে পারেনি দল।

ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়েও দীর্ঘসময় ধরে ধুঁকছে বাংলাদেশ। এক-দুই ধাপ এগুনোর তুষ্টি মাঝে মিললেও বর্তমানে ১৯২তম স্থানে আছে দল। তাই বরাবরের মতো নতুন বছরেও সাফ ও ফিফা র‌্যাঙ্কিং পাখির চোখ করে পরিকল্পনা সাজাচ্ছে বাফুফে। ন্যাশনাল টিমস কমিটির চেয়ারম্যান কাজী নাবিল আহমেদ অবশ্য বললেন, এই পরিকল্পনা বর্তমানে রয়েছে প্রাথমিক পর্যায়ে।

“সাত দিন পর আমাদের আরেকটি মিটিং আছে। সেটা সামনে রেখে কিছু বিষয় নিয়ে আজকে আমরা আলোচনা করেছি। নতুন বছর শুরু হয়ে গেল, কাবরেরার সঙ্গে আমাদের চুক্তিও নবায়ন হলো, এরই মধ্যে সে আমাদের লিগের এবং ফেডারেশন কাপের বেশ কিছু খেলা দেখেছে। সেটা নিয়েও আলোচনা হয়েছে।”

“মূলত আমাদের আজকের আলোচনা ছিল মার্চে আমাদের যে ফিফা উইন্ডো আছে, সেটার জন্য আমরা কী রকম প্রস্তুতি নিতে পারি, কাদের বিপক্ষে খেলতে পারি এই বিষয়গুলো। মার্চের বিষয়টি আলোচনার কারণ, জুনে বা জুলাইতে যে সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ হতে যাচ্ছে, সাফের জন্য আমাদের প্রস্তুতি যেন ভালো হয়। সবই আমরা প্রস্তাবনা আকারে আলোচনা করেছি।”

জানুয়ারি মাস শেষের পথে। মার্চের উইন্ডোর আগে বেশ সময় হাতে আছে বাফুফের। দেশের ফুটবলের নিয়ন্তা সংস্থাটির চাওয়া এই সময়ের মধ্যে সমমানের দলগুলোর সঙ্গে খেলে প্রস্তুতি শাণিয়ে নেওয়ার।

“মার্চের উইন্ডোতে আমরা আমাদের কাছাকাছি মানের দেশগুলোর বিপক্ষে ম্যাচের আয়োজনের চেষ্টা করছি। তাদের সাথে খেললে সেটা আমাদের সাফের প্রস্তুতির সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ হবে। আমরা চেষ্টা করব দেশের ভেন্যুতে তা আয়োজন করতে। যেহেতু সাফ আমাদের কিংবা পার্শ্ববর্তী দেশের ভেন্যুতে হবে, সেটার জন্য প্রস্তুতি যেন ভালো থাকে।”

“এই বছর ম্যাচগুলো এমনভাবে খেলতে পারি, যাতে আমাদের র‌্যাঙ্কিংয়ে উন্নতি হয়। আমরা যেন বেশ কয়েকধাপ এগুতে পারি। এটা একদিনে হওয়ার নয়, ধাপে ধাপে হতে হবে।”

বাফুফের পরিকল্পনা বাস্তবায়নে মাঠের প্রস্তুতি শুরু যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ, সেটাই মনে করিয়ে দিলেন কাবরেরা।

“মার্চের ফিফা উইন্ডোর জন্য আমাদের মাঠে প্রস্তুতি নেওয়া প্রয়োজন। গুছিয়ে নেওয়ার জন্য আশা করি আমরা পর্যাপ্ত সময় পাব। নিজেদের মেলে ধরার জন্য ভালো মাঠও পাব।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক