বায়ার্ন মিউনিখ কোনো ভয়ানক জায়গা নয়: শাভি

ইউরোপিয়ান প্রতিযোগিতায় বায়ার্ন মিউনিখের মাঠে কখনও জিততে পারেনি বার্সেলোনা।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 13 Sept 2022, 01:35 PM
Updated : 13 Sept 2022, 01:35 PM

আলিয়াঞ্জ অ্যারেনায় বার্সেলোনার অতীত ইতিহাস মোটেই সুখকর নয়। বায়ার্ন মিউনিখের বিপক্ষে সাম্প্রতিক ফলাফলও তাদের পক্ষে নেই। তবে এসব নিয়ে একদমই ভাবছেন না শাভি এরনান্দেস। কাতালান দলটির কোচের বিশ্বাস, নিজেদের সামর্থ্য অনুযায়ী খেলতে পারলে ধরা দেবে কাঙ্ক্ষিত জয়।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে গ্রুপ পর্বে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে মঙ্গলবার বায়ার্নের মাঠে খেলবে বার্সেলোনা। ‘সি’ গ্রুপের ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় রাত একটায়।

ইউরোপিয়ান প্রতিযোগিতায় বায়ার্নের মাঠে কখনও জিততে পারেনি বার্সেলোনা। সেখানে ৬ ম্যাচ খেলে চারটি তারা হেরেছে, ড্র হয়েছে অন্য দুটি। বুন্ডেসলিগার দলটির বিপক্ষে সবশেষ চার ম্যাচেই তারা হেরেছে। এই সময়ে গোল হজম করেছে তারা ১৭টি, দিতে পেরেছে স্রেফ ৪টি।

২০১৯-২০ চ্যাম্পিয়ন্স লিগে এক লেগের কোয়ার্টার-ফাইনালে লিসবনে বার্সেলোনাকে ৮-২ গোলে গুঁড়িয়ে দেওয়া বায়ার্ন শেষ পর্যন্ত হয়েছিল চ্যাম্পিয়ন। এর এক মৌসুম পর গত আসরে গ্রুপ পর্বেই দেখা হয়ে যায় তাদের। শক্তি হারানো বার্সেলোনা কোনো প্রতিরোধই গড়তে পারেনি সেবার; দুই লেগেই তাদের ৩-০ গোলে হারায় জার্মানির সফলতম দলটি।  

গ্রীষ্মের দলবদলে বেশ কয়েক জন নতুন খেলোয়াড় কেনায় এবার যদিও বার্সেলোনার শক্তি বেড়েছে অনেক। বায়ার্ন থেকেই তারা দলে টেনেছে রবের্ত লেভানদোভস্কিকে। কাম্প নউয়ের দলটির হয়ে পোলিশ তারকা দারুণ ছন্দেও আছেন। সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে গত পাঁচ ম্যাচে টানা জালের দেখা পেয়েছেন তিনি, মোট গোল ৯টি।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগেও তিনি আছেন স্বরূপে। গ্রুপের প্রথম ম্যাচে চেক রিপাবলিকের দল ভিক্তোরিয়া প্লাজেনকে ৫-১ গোলে হারানো ম্যাচে করেছেন হ্যাটট্রিক। প্রতিযোগিতাটির ইতিহাসে প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে ভিন্ন তিন দলের হয়ে হ্যাটট্রিকের কীর্তিও গড়েছেন তিনি।

এবারের মৌসুমে বার্সেলোনার শুরুটাও হয়েছে দারুণ। সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ছয় ম্যাচেই তারা আছে অপরাজিত। সবশেষ পাঁচ ম্যাচে ২০ গোল করার বিপরীতে হজম করেছে তারা মাত্র ২টি।

বায়ার্নের মাঠে খেলা কতটা কঠিন, ভালো করেই জানেন শাভি। ম্যাচের আগে সংবাদ সম্মেলনে বললেন, এবার তিনি জয়ের ব্যাপারে দারুণ আত্মবিশ্বাসী।

“আমি এটাকে কোনো ভয়ানক জায়গা বলব না, এটা স্রেফ বায়ার্নের মাঠ। আমি মুদ্রার দুই পিঠই দেখেছি। তাদের বড় ব্যবধানে হারিয়েছে এবং তাদের বিপক্ষে বড় ব্যবধানে হেরেছি। কিন্তু আমরা কখনোই আলিয়াঞ্জ অ্যারেনায় জিততে পারিনি, এটিই বলে দেয় সেখানে খেলা কতটা কঠিন। তবে আমরা আশাবাদী।”

“আমাদের সাম্প্রতিক ভালো ফলাফলের করণে আমরা অতি আত্মবিশ্বাসী হতে পারি না। আমাদের মনে রাখতে হবে, গত বছর তাদের বিপক্ষে খেলাটা কেমন ছিল। কিন্তু আমি খুশি হব যদি আমরা আমাদের সামর্থ্য অনুযায়ী খেলি এবং যদি তা করতে পারি তাহলে আমি মনে করি, আমরা জিততে পারব এবং অতীত ইতিহাস বদলাতে পারব।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক