জোড়া গোল করা রদ্রিগোতে মুগ্ধ আনচেলত্তি

ব্রাজিলিয়ান এই তারকার কাছে ধারাবাহিক পারফরম্যান্স প্রত্যাশা করছেন রেয়াল মাদ্রিদ কোচ।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 1 April 2024, 09:57 AM
Updated : 1 April 2024, 09:57 AM

ম্যাচের শুরুতে ডি-বক্সের বাইরে থেকে চোখধাঁধানো এক গোল করা রদ্রিগো দ্বিতীয়ার্ধে জালের দেখা পান আরেকবার। আথলেতিক বিলবাওয়ের বিপক্ষে তার চমৎকার পারফরম্যান্সে ভীষণ খুশি কার্লো আনচেলত্তি। তরুণ ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ডের কাছে ধারাবাহিকতা চাইলেন রেয়াল মাদ্রিদ কোচ। 

ঘরের মাঠ সান্তিয়াগো বের্নাবেউয়ে রোববার লা লিগার গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচটি ২-০ গোলে জেতে রেয়াল। অষ্টম মিনিটে দলকে এগিয়ে নেওয়ার পর ৭৩তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন রদ্রিগো। 

স্পেনের সফলতম দলটির নিয়মিত সদস্য হলেও রদ্রিগোর এমন পারফরম্যান্সের দেখা মেলে কমই। চলতি মৌসুমে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ৪১ ম্যাচ খেলে গোল করেছেন তিনি ১৩টি। বিলবাও ম্যাচের আগে রেয়ালের জার্সিতে সবশেষ জালের দেখা পেয়েছিলেন ১৪ জানুয়ারি, স্প্যানিশ সুপার কাপের ফাইনালে বার্সেলোনাকে ৪-১ গোলে হারানোর ম্যাচে। 

বিলবাওয়ের বিপক্ষে দুর্দান্ত খেলা রদ্রিগোর প্রশংসা করে আনচেলত্তি বললেন, অভিজ্ঞতার সঙ্গে আরও পরিণত ও ভয়ঙ্কর হয়ে উঠবে ২৩ বছর বয়সী এই ফুটবলার। 

“সে খুব ভালো খেলেছে, পার্থক্য গড়ে দিয়েছে এবং খুব দ্রুত গোল করতে পেরেছে। এই কাজটিই তাকে করতে হবে। এখন বলতে পারেন, সে বাম পাশে খেলতে স্বচ্ছন্দ, তবে সে সব জায়গাতেই ভালো। ভুলে গেলে চলবে না, চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমি-ফাইনালে ডান পাশে খেলে সে দুই গোল করেছিল।” 

“ক্রিস্তিয়ানো, বেনজেমাদের মতো করে ফরোয়ার্ডদের সব সময় গোল পাওয়া বেশ বিরল। অভিজ্ঞতা দিয়ে রদ্রিগো এই দিকটায় উন্নত করবে, তরুণ হওয়ায় সে অনেক তীব্রতা নিয়ে খেলে এবং মাঝে মধ্যে তারুণ্যের কারণে আমি তাকে পরিশ্রম করতে দেখতে চাই, যে কারণে মাঝে মাঝে সে গোলের সামনে সতেজ থাকে না।” 

বিলবাওয়ের বিপক্ষে জিতে লিগ শিরোপা পুনরুদ্ধারের অভিযানে একটু এগিয়ে গেছে রেয়াল। ৩০ ম্যাচে ২৩ জয় ও ৬ ড্রয়ে শীর্ষে থাকা দলটির পয়েন্ট এখন ৭৫। সমান ম্যাচে ৬৭ পয়েন্ট নিয়ে বার্সেলোনা দুইয়ে আছে, ৬৫ পয়েন্ট নিয়ে তিনে জিরোনা। 

আন্তর্জাতিক বিরতির পর খেলোয়াড়দের মানিয়ে নেওয়ার একটা ব্যাপার ছিল। তবে সেই দিকটি বেশ ভালোভাবে সামলে নিয়ে জয় দিয়ে মৌসুমের শেষভাগ শুরু করায় খুশি আনচেলত্তি। 

“জাতীয় দলের সঙ্গে অনেক খেলোয়াড়ের বিরতির বিষয়টি বিবেচনায় নিলে এই ম্যাচটি হতে পারত কঠিন। সত্যি কথা হলো, আমরা খুব ভালো শুরু করেছি, দ্রুতই এগিয়ে গেছি। রক্ষণের দিকে আমরা সুসংহত ও সুশৃঙ্খল ছিলাম এবং ঝুঁকি নিইনি। আমরা খুব তীব্রতা নিয়ে খেলেছি।” 

আপাতত লিগে আর কোনো ম্যাচ নেই রেয়াল মাদ্রিদের। আগামী ৯ এপ্রিল চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টার-ফাইনালের প্রথম লেগে ম্যানচেস্টার সিটির মুখোমুখি হবে তারা। গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচটিতে এখন সব মনোযোগ আনচেলত্তির। 

“তাদের খুব ভালোভাবে জানি, কিন্তু আমরা নিজেদের খেলায় মনোযোগ দেব। আমাদের খেলায় আজকের চেয়ে বেশি তীব্রতা আনতে হবে, তবে আমাদের এখনও সময় আছে।”