কাভানি খেলুক বা না খেলুক ‘প্রস্তুত’ ফ্রান্স

চোটের কারণে ফ্রান্সের বিপক্ষে উরুগুয়ের ফরোয়ার্ড এদিনসন কাভানির খেলা নিয়ে অনিশ্চয়তা আছে। তবে প্রতিপক্ষ যে আক্রমণভাগ নিয়েই খেলুক না কেন ফ্রান্স প্রস্তুত বলে জানিয়েছেন কোচ দিদিয়ের দেশম।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 6 July 2018, 04:41 AM
Updated : 6 July 2018, 04:41 AM

নিজনি নভগোরোদে আগামী শুক্রবার বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায় প্রথম কোয়ার্টার-ফাইনালে মুখোমুখি হবে দুই দল। পর্তুগালের বিপক্ষে ম্যাচে চোট পাওয়া কাভানিকে শেষ পর্যন্ত না পাওয়া গেলে ক্রিস্তিয়ান স্তুয়ানি উরুগুয়ের আক্রমণভাগে জুটি গড়তে পারেন তারকা ফরোয়ার্ড লুইস সুয়ারেসের সঙ্গে। কাভানি খেলবেন ধরে নিয়ে ছক কষার কথা জানান দেশম।

“কাভানি খেলবে এটা হিসেব করে আমি আমার দলকে প্রস্তুত করেছি। যেটাই হোক আমরা ম্যাচের ৯০ মিনিট আগে জানতে পারব।”

“ম্যাচের আগে এবং ম্যাচের মধ্যে বিভিন্ন সম্ভাবনার বিষয়গুলো মাথায় রেখে আমি আমার দল প্রস্তুত করেছি। কাভানি বিশ্বের অন্যতম সেরা ফরোয়ার্ড। যেহেতু সে ফ্রান্সে খেলে আমরা সবাই তাকে ভালোভাবে জানি।”

“নিশ্চিতভাবে অনেক ফরোয়ার্ডের চেয়ে কাভানির মান ওপরে। কিন্তু তার অর্থ এই নয় যে, ক্রিস্তিয়ান স্তুয়ানি বা ক্রিস্তিয়ান রদ্রিগেসেরও মান নেই।”

সংবাদ সম্মেলনে কাভানির প্রশংসা করে উরুগুয়ের বাকি ফরোয়ার্ডদের নিয়ে দলকে সতর্ক করে দেন গোলরক্ষক উগো লরিসও। প্রতিআক্রমণ সামলে রাশিয়া বিশ্বকাপের সেমি-ফাইনালে ওঠা সহজ হবে না বলেও মনে করেন তিনি।

“কাভানি পিএসজির এক ঐতিহাসিক ব্যক্তিত্ব। সে অনেক গোল করেছে, একজন জয়ী খেলোয়াড়, একজন নেতা। তার গুণের জন্য একজন খেলোয়াড় এবং একজন মানুষ হিসেবে সে ফ্রান্সে অনেক শ্রদ্ধাভাজন।”

“কাভানি খেলুক বা না খেলুক আমরা সবকিছুর জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছি। কিন্তু আমরা জানি উরুগুয়ে দলের অন্যরাও উঁচু পর্যায়ের ফুটবল খেলতে পারে। এটা সত্য লুইস সুয়ারেস এবং কাভানি আক্রমণভাগের অন্যতম সুন্দর জুটি।”

“কিন্তু আমি আবারও বলব প্রতিআক্রমণে উরুগুয়ে কঠিন একটা দল এবং তাদের সঙ্গে পেরে ওঠা কঠিন।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক