নায়ক রামোসে শেষ আটে রিয়াল

অন্তিম মুহূর্তে প্রতিপক্ষের স্বপ্ন ভেঙে সের্হিও রামোসের জয়ের নায়ক হয়ে ওঠার সুখস্মৃতি আছে ঢের।তবে এবার আর শেষে নয়, মাঝপথে ম্যাচের গতিপথ নির্ধারণ করে দিলেন। তার নৈপুণ্যে নাপোলিকে ছিটকে দিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টার-ফাইনালে ওঠে গেছে রিয়াল মাদ্রিদ।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 7 March 2017, 09:40 PM
Updated : 8 March 2017, 10:01 AM

মঙ্গলবার রাতে নাপোলির মাঠে ম্যাচটি ৩-১ গোলে জিতেছে রিয়াল। দুই লেগ মিলিয়ে মাদ্রিদের দলটির জয় ৬-২ ব্যবধানে। সান্তিয়াগো বের্নাবেউয়ে শেষ ষোলোর প্রথম লেগেও একই ব্যবধানে জিতেছিল জিনেদিন জিদানের দল।

ঘরের মাঠে শুরু থেকে দুর্দান্ত খেলা নাপোলি ড্রিস মের্টেন্সের গোলে প্রথমে এগিয়ে গিয়েছিল। কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধে দারুণভাবে ম্যাচে ফেরা রিয়াল ছয় মিনিটের ব্যবধানে দুই গোলে সব অনিশ্চয়তায় ইতি টেনে দেয়। শেষ গোলটি করেন আলভারো মোরাতা।

খেলার ধারার বিপরীতে উনবিংশ মিনিটে এগিয়ে যেতে পারতো রিয়াল। মাঝমাঠ থেকে কাসেমিরোর লম্বা পাস পেয়ে দারুণ ক্ষিপ্রতায় ডি-বক্সে ঢুকে পড়েছিলেন বেল। বাঁ-দিকে ভালো পজিশনে ছিলেন বেনজেমা। কিন্তু সতীর্থকে পাস না দিয়ে গোলরক্ষক বরাবর শট মেরে সহজ সুযোগ নষ্ট করেন ওয়েলসের ফরোয়ার্ড।

এর পাঁচ মিনিট পরেই শুরু থেকে একটানা আক্রমণ করে যাওয়ার ফল পায় নাপোলি। মারেক হামসিকের দারুণ পাস পেয়ে ছয় গজ বক্সের বাঁ-দিক থেকে কোনাকুনি শটে দলকে এগিয়ে দেন মের্টেন্স।

গোল খেয়ে যেন হুঁশ ফেরে অতিথিদের। পাল্টা আক্রমণে ওঠার চেষ্টা করে, তবে কিছুক্ষণ পরেই ফের মাঠের নিয়ন্ত্রণ চলে যায় নাপোলির দখলে। এরই মাঝে ২৯তম মিনিটে সমতায় ফিরতে পারতো রিয়াল। কিন্তু গোলরক্ষককে কাটিয়ে রোনালদোর নেওয়া শট লাগে পোস্টে। ফিরতি বল নিয়ে বেল ছয় গজ বক্সে ঢুকে পড়লেও দুরূহ কোণ থেকে সুবিধা করতে পারেননি।

৩৭তম মিনিটে বড় বাঁচা যায় রিয়াল। বেলজিয়ামের ফরোয়ার্ড মের্টেন্সের কোনাকুনি নীচু শট নাভাসকে পরাস্ত করলেও পোস্ট এড়াতে পারেনি। বিরতির আগে বাকি সময়েও নাপোলির আক্রমণ ঠেকাতে ব্যস্ত সময় কাটায় পেপে-রামোসরা।

প্রথমার্ধের কোণঠাসা রিয়াল বিরতির পর স্বরূপে ফেরে। প্রতিপক্ষের রক্ষণে চাপ ধরে রেখে ষষ্ঠ মিনিটে সমতাসূচক গোল পেয়ে যায় তারা। টনি ক্রুসের কর্নারে হেডে বল জালে পাঠান অধিনায়ক রামোস। এরই সঙ্গে নাপোলির অ্যাওয়ে গোলের সুবিধাটাও শেষ হয়ে যায়।

ছয় মিনিট পর ডান দিক থেকে জার্মান মিডফিল্ডার ক্রুসের কর্নারে রামোসের বুলেট হেড মের্টেন্সের গায়ে লেগে জালে জড়ালে শেষ আটের টিকেট নিশ্চিত হয়ে যায় রিয়ালের।

যোগ করা সময়ে নাপোলির কফিনে শেষ পেরেকটি ঠোকেন বদলি নামা মোরাতা। বাঁ-দিক থেকে রোনালদোর শট গোলরক্ষক ঠেকানোর পর ফিরতি বল জালে পাঠান স্পেনের এই স্ট্রাইকার।

দিনের অন্য ম্যাচে আর্সেনালকে ৫-১ গোলে বিধ্বস্ত করে কোয়ার্টার-ফাইনালে উঠেছে বায়ার্ন মিউনিখ। দুই লেগ মিলিয়ে জার্মান চ্যাম্পিয়নদের জয় ১০-২ ব্যবধানে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক