‘আমরা ভাগ্যবান যে লেভানদোভস্কি গোল পায়নি’

সাবেক সতীর্থ গোল না পাওয়ায় খুশি বায়ার্ন মিউনিখ গোলরক্ষক মানুয়েল নয়ার।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 14 Sept 2022, 02:07 PM
Updated : 14 Sept 2022, 02:07 PM

গোলের দারুণ কিছু সুযোগ পেয়েছিলেন। তবে খুব কাছাকাছি গিয়েও বার বার সঙ্গী হয় ব্যর্থতা। বায়ার্ন মিউনিখের বিপক্ষে ভাগ্য পক্ষে থাকলে হয়তো কয়েক বার জালের দেখা পেয়ে যেতেন রবের্ত লেভানদোভস্কি। শেষ পর্যন্ত বার্সেলোনা স্ট্রাইকার গোল না পাওয়ায় খুশি জার্মান ক্লাবটির গোলরক্ষক মানুয়েল নয়ার। তিনি মনে করেন, বায়ার্নের ভাগ্য ভালো বলেই তার সাবেক সতীর্থ গোলের দেখা পাননি।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে মঙ্গলবার অ্যালিয়াঞ্জ অ্যারেনায় হওয়া ‘সি’ গ্রুপের বায়ার্ন ও বার্সেলোনার ম্যাচকে ঘিরে আলোচনার কেন্দ্রে ছিলেন লেভানদোভস্কি। অনেক নাটকীয়তার পর গত গ্রীষ্মের দলবদলে বায়ার্ন ছেড়ে বার্সেলোনায় যোগ দেন এই পোলিশ তারকা। পুরনো ঠিকানায় ফিরে কেমন করেন তিনি, তা নিয়ে সবার মাঝেই আগ্রহ ছিল বেশ।

হাইভোল্টেজ ম্যাচটিতে লুকাস এরনঁদেজ ও লেরয় সানের গোলে ২-০ ব্যবধানে জয় পায় বায়ার্ন। তবে গোলের সামনে লেভানদোভস্কি যদি তার চেনা ছন্দে থাকতেন, তাহলে ফলাফল হয়তো ভিন্ন হতেও পারত। কেননা, বেশ কয়েকটি সহজ সুযোগ হাতছাড়া করেন তিনি।

প্রথমার্ধেই পাঁচটি সুযোগ পান লেভানদোভস্কি। সহজ সুযোগই ছিল বেশি। কিন্তু কাজে লাগাতে পারেননি একটিও।

বায়ার্নে নিজের শেষ মৌসুমে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ৫০ গোল করা লেভানদোভস্কি চলতি মৌসুমেও আছেন দারুণ ফর্মে। কাতালান ক্লাবটির হয়ে এরই মধ্যে গোল করেছেন ৯টি। তবে সাবেক ক্লাবের বিপক্ষে জ্বলে উঠতে পারলেন না তিনি।

লম্বা সময় একসঙ্গে খেলার সুবাদে নয়ার খুব ভালো করেই জানেন, গোলের সামনে কতটা ভয়ঙ্কর হতে পারেন লেভানদোভস্কি। তাকে খালি হাতে ফেরাতে পেরে ম্যাচে শেষে তাই জার্মান গোলরক্ষকের কণ্ঠে ফুটে উঠল স্বস্তির সুর।

“আমি মনে করি, ম্যাচটা লেভার (লেভানদোভস্কি) জন্য আবেগের ছিল, কারণ মিউনিখে সে খুব সফল ছিল। তবে প্রতিপক্ষ হিসেবে সে কেমন হতে পারে, তা আমরা জানি। গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্তে ভাগ্য তার পাশে ছিল না।”

ম্যাচের অষ্টাদশ মিনিটে উসমান দেম্বেলের কাছ থেকে বল পেয়ে গাভি খুঁজে নেন লেভানদোভস্কিকে। কিন্তু নয়ারকে একা পেয়েও শট লক্ষ্যে রাখতে পারেননি তিনি। বুলেট গতির ভলি পোস্ট ঘেঁষে চলে যায় বাইরে। এর তিন মিনিট পর আবার দলকে হতাশ করেন লেভানদোভস্কি। মার্কোস আলোনসোর ক্রসে তার হেড ঠেকিয়ে দেন নয়ার।

“আমরা ভাগ্যবান যে, সে ভলিটি ক্রসবারের ওপর দিয়ে পাঠিয়েছিল এবং দ্বিতীয়বার (হেড) আমি সেখানে ছিলাম। আমরা আজ একটি ভালো রক্ষণাত্মক পারফরম্যান্স দেখিয়েছি।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক