চেলসিতে ভিন্ন চ্যালেঞ্জ নিতে মুখিয়ে পটার

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে চেলসির কোচ হিসেবে ডাগআউটে অভিষেক হতে যাচ্ছে গ্রাহাম পটারের।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 13 Sept 2022, 05:56 PM
Updated : 13 Sept 2022, 05:56 PM

প্রথমবারের মতো ইউরোপের বড় কোনো ক্লাবের দায়িত্ব পেয়েছেন। কোচ হিসেবে প্রথমবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচে ডাগআউটে দাঁড়াতে যাচ্ছেন। গ্রাহাম পটারের জন্য রোমাঞ্চের উপকরণ আছে যথেষ্ট। দিতে হবে বড় পরীক্ষাও, দিকহারা দলকে ফেরাতে হবে কক্ষপথে। ৪৭ বছর বয়সী এই ইংলিশ কোচ বললেন, চ্যালেঞ্জ নিতে তিনি প্রস্তুত আছেন।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপ পর্বে গত সপ্তাহে নিজেদের প্রথম ম‍্যাচে দিনামো জাগরেবের বিপক্ষে ১-০ গোলে হারের পরদিন চেলসির দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়া হয় তখনকার কোচ টমাস টুখেলকে। এর পরদিনই পটারকে নিয়োগ দেয় স্ট্যামফোর্ড ব্রিজ কর্তৃপক্ষ। ক্লাবটির সঙ্গে তার চুক্তি পাঁচ বছরের।

সুইডিশ ক্লাব ওস্তারসান্দসকে সাত বছর কোচিং করানোর পর এক বছর সোয়ানসি সিটির দায়িত্ব পালন করেন পটার। এরপর ব্রাইটন অ্যান্ড হোভ অ্যালবিয়নের ডাগআউটে নিজের ছাপ রাখতে শুরু করেন তিনি। তিন বছর ক্লাবটিতে কাজ করার পর এখন তিনি নতুন ঠিকানায়।

প্রিমিয়ার লিগে গত শনিবার ফুলহ্যামের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে তার নতুন অভিযান শুরু হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের মৃত্যুর পর স্থগিত হয়ে যায় এই সপ্তাহের প্রিমিয়ার লিগের সব ম্যাচ।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে বুধবার ঘরের মাঠে সালসবুর্কের মুখোমুখি হবে চেলসি। ‘ই’ গ্রুপের ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় রাত একটায়।

এই মৌসুমে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে এখন পর্যন্ত ৭ ম্যাচ খেলে তিনটিতে হেরেছে চেলসি। প্রিমিয়ার লিগে ৬ ম‍্যাচে ১০ পয়েন্ট নিয়ে তারা আছে ছয় নম্বরে।

ব্রাইটনে নিজের কোচিংয়ের ধরন দিয়ে নজর কেড়েছেন পটার। চেলসিতে স্বাভাবিকভাবে তার ওপর প্রত্যাশার চাপ থাকবে বেশি। মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলনে বললেন, চ্যালেঞ্জ নিতে মুখিয়ে আছেন তিনি।

"প্রিমিয়ার লিগ ও চ্যাম্পিয়ন্স লিগে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার জন্য এখানে ক্লাবের ঐতিহ্য, মানের দিকে নজর দিতে হবে, এটি আমার জন্য সম্পূর্ণ ভিন্ন চ্যালেঞ্জ। আমি খুব, খুব রোমাঞ্চিত, যেমনটা আপনি কল্পনা করতে পারেন এবং এগিয়ে যাওয়ার জন্য উন্মুখ।”

“আমার মূল কাজ হলো এখানে ছেলেদের সাহায্য করা, তাদের উন্নতিতে সাহায্য করা এবং এমন একটি দল গড়ে মাঠে নামানো যাতে সমর্থকরা গর্বিত হয়। আমরা আমাদের নিজস্ব দল, নিজস্ব একটা পরিচয় তৈরি করতে চাই, যেন এটি স্বীকৃতি পায়। এর জন্য আমরা প্রতিদিন লড়াই করব।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক