হলান্ডের জোড়া গোলে সিটির দুর্দান্ত শুরু

ওয়েস্ট হ্যাম ইউনাইটেডকে হারিয়ে প্রিমিয়ার লিগের শিরোপা ধরে রাখার অভিযান শুরু করল পেপ গুয়ার্দিওলার দল।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 7 August 2022, 05:35 PM
Updated : 7 August 2022, 05:35 PM

মোটা অঙ্কের অর্থ খরচ করে ম্যানচেস্টার সিটি কেন তাকে দলে টেনেছে, সেটির ঝলক শুরুতেই দেখালেন আর্লিং হলান্ড। প্রিমিয়ার লিগ অভিষেকে আলো ঝলমলে পারফরম্যান্সে জোড়া গোলের উৎসবে মাতলেন নরওয়ের তরুণ ফরোয়ার্ড। ওয়েস্ট হ্যাম ইউনাইটেডকে হারিয়ে লিগ শিরোপা ধরে রাখার অভিযান শুরু করল পেপ গুয়ার্দিওলার দল।

প্রতিপক্ষের মাঠে রোববার ২০২২-২৩ প্রিমিয়ার লিগে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ২-০ গোলে জিতেছে ম্যানচেস্টার সিটি।

জয়ের নায়ক হলান্ড দুই অর্ধে একটি করে গোল করেন। প্রথমটি পেনাল্টি থেকে, যেটি আদায় করে নেন তিনি নিজেই।

গত সপ্তাহে সিটির হয়ে প্রতিযোগিতামূলক ফুটবলে অভিষেক হয় হলান্ডের; কমিউনিটি শিল্ডে লিভারপুলের বিপক্ষে ওই হারের ম্যাচে তিনি যদিও নিজের ছায়া হয়ে ছিলেন। স্বরূপে ফিরতে বেশি সময় নিলেন না সময়ের সেরা ফুটবলারদের একজন হিসেবে বিবেচিত ২২ বছর বয়সী তারকা।

ম্যাচের শুরুটা ভালো করে ওয়েস্ট হ্যাম। তৃতীয় মিনিটেই দারুণ একটি সুযোগ পায় তারা। তবে সতীর্থের ক্রসে মাইকেল আন্তোনিওর হেড ক্রসবারের ওপর দিয়ে উড়ে যায়।

পরের মিনিটে প্রথম সুযোগ পায় বল দখলে একচেটিয়া আধিপত্য করা সিটি। জোয়াও কানসেলোর পাসে ডি-বক্সের সামনে থেকে কেভিন ডে ব্রুইনের শট বাইরে যায়। ছয় মিনিট পর ফিল ফোডেনের পাসে কাছ থেকে হলান্ডের প্রচেষ্টাও লক্ষ্যে থাকেনি।

২৭তম মিনিটে ডি-বক্সে ইলকাই গিনদোয়ানের পাসে ডে ব্রুইনে বল জালে পাঠালেও অফসাইডের পতাকা তোলেন লাইন্সম্যান। অবশেষে ৩৬তম মিনিটে মেলে সাফল্য।

ওয়েস্ট হ্যামের বদলি গোলরক্ষক আলফুঁস আরিওলা ডি-বক্সে হলান্ডকে ফাউল করলে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। তা থেকেই প্রিমিয়ার লিগে গোলের খাতা খোলেন সাবেক বরুশিয়া ডর্টমুন্ড ফরোয়ার্ড।

প্রিমিয়ার লিগ ইতিহাসে দ্বিতীয় খেলোয়াড় হিসেবে অভিষেকে পেনাল্টি আদায় এবং সেটি থেকে গোল করলেন হলান্ড। ২০১৬ সালের এপ্রিলে চেলসির হয়ে অ্যাস্টন ভিলার বিপক্ষে এই কীর্তি গড়েছিলেন ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড আলেসান্দ্রে পাতো।

৫৪তম মিনিটে সমতা টানার ভালো একটি সুযোগ পান জ্যারড বোয়েন। তবে উড়িয়ে মেরে হতাশ করেন ২৫ বছর বয়সী এই ইংলিশ ফরোয়ার্ড।

৬৫তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করে সিটি। ডে ব্রুইনের মাঝমাঠ থেকে বাড়ানো দারুণ পাস ধরে বাঁ পায়ের শটে এগিয়ে আসা গোলরক্ষককে ফাঁকি দেন হলান্ড।

সিটির দ্বিতীয় খেলোয়াড় হিসেবে প্রিমিয়ার লিগ অভিষেকে জোড়া গোল করলেন তিনি। ২০১১ সালের অগাস্টে প্রথম এটি করে দেখান সের্হিও আগুয়েরো, আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকার পরে হয়ে ওঠেন ক্লাবটির ইতিহাসের সর্বোচ্চ স্কোরার।

৭০তম মিনিটে হ্যাটট্রিকের সুযোগ পান হলান্ড। তবে ছয় গজ বক্সের সামনে থেকে তার হেড ক্রসবারের ওপর দিয়ে উড়ে যায়। তিন মিনিট পর প্রতিপক্ষ খেলোয়াড়ের হেড ফিরিয়ে জাল অক্ষত রাখেন এদেরসন।

৭৮তম মিনিটে হলান্ডকে তুলে হুলিয়ান আলভারেসকে নামান কোচ গুয়ার্দিওলা, প্রিমিয়ার লিগে অভিষেক হয় কমিউনিটি শিল্ডে গোল করা আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ডের। যোগ করা সময়ে তার একটি শট প্রতিহত হয় সফরকারীদের রক্ষণে, তাই ব্যবধান আর বাড়েনি।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক