নিষেধাজ্ঞা: বরগুনায় ইলিশ ধরার প্রস্তুতিকালে আটক ৭ জেলের কারাদণ্ড

তাদের কাছ থেকে দুই হাজার মিটার নিষিদ্ধ কারেন্ট জাল ও ১০০ কেজি বরফ জব্দ করা হয়েছে।

বরগুনা প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 7 Oct 2022, 06:22 AM
Updated : 7 Oct 2022, 06:22 AM

বরগুনায় নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ইলিশ মাছ ধরার প্রস্তুতিকালে আটক সাত জেলেকে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

শুক্রবার সকালে বরগুনার নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফয়সাল আল নূর এই দণ্ডাদেশ দিয়েছেন।

প্রজনন মৌসুমে ইলিশ রক্ষায় বরাবরের মতো এবছরও ৭ থেকে ২৮ অক্টোবর ২২ দিন সারাদেশে এই মাছ শিকারে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে সরকার।

মৎস্য ও প্রাণীসম্পদ মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, এ সময় দেশব্যাপী ইলিশ পরিবহন, কেনা-বেচা, মজুদ ও বিনিময়ও নিষিদ্ধ থাকবে। এ সময় ইলিশ আহরণে বিরত থাকা জেলেদের সরকার ভিজিএফের মাধ্যমে খাদ্য সহায়তা দেবে।

বরগুনার পায়রা ও বিষখালী নদীতে এই নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, তালতলী উপজেলার নিশানবাড়িয়া ইউনিয়নের জাহাঙ্গীর হোসেন, মোশারেফ হোসেন, দেলোয়ার মাতুব্বর, সোলায়মান, বেতাগী উপজেলার দক্ষিণ কালিকাবাড়ি গ্রামের ইউনুস আলী, পনু মিয়া ও ইমরান হোসেন।

তালতলী উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. মাহবুবুল আলম জানান, বৃহস্পতিবার রাতে ইলিশ রক্ষায় মৎস্য বিভাগের একটি টিম পায়রা নদীতে অভিযানে নামে। পরে রাতব্যাপী অভিযান পরিচালনা করা হয়। ভোর রাতের দিকে মাছ ধরার প্রস্তুতি নেওয়ার সময় নদী থেকে চার জনকে আটক করা হয়।

তাদের কাছ থেকে ১০০ কেজি বরফ ও দুই হাজার মিটার নিষিদ্ধ কারেন্ট জাল জব্দ করা হয়েছে। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে প্রত্যেককে এক মাস করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। জব্দকৃত জাল পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফয়সাল আল নূর জানিয়েছেন, বিষখালী নদীতে জেলা প্রশাসন ও মৎস্য বিভাগ যৌথ অভিযানে ভোর রাতে বেতাগীর দক্ষিণ কালিকাবাড়ি এলাকার তিন জেলেকে কারেন্ট জালসহ আটক করে এক মাস করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক