বিয়ানীবাজার গ্যাসক্ষেত্র পুনর্খনন, দৈনিক কোটি ঘনফুট গ্যাসের আশা

ডিসেম্বরের মধ্যে এ কূপ থেকে প্রতিদিন সাত থেকে ১০ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস উত্তোলনের আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

সিলেট প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 10 Sept 2022, 12:29 PM
Updated : 10 Sept 2022, 12:29 PM

ক্রমবর্ধমান চাহিদা পূরণে সিলেটের বিয়ানীবাজার গ্যাসক্ষেত্রের এক নম্বর কূপ পুনঃখনন শুরু হয়েছে।

শনিবার দুপুরে খনন কাজের উদ্বোধন করেন সিলেট গ্যাস ফিল্ডসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মিজানুর রহমান ও বাপেক্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ আলী।

আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে খনন কাজ শেষে কূপ থেকে প্রতিদিন সাত থেকে ১০ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস উত্তোলনের আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

মিজানুর রহমান জানান, সিলেট গ্যাস ফিল্ডসের আওতায় জেলার গোলাপগঞ্জে কৈলাশটিলা-৮ ও গোয়াইনঘাটে সিলেট-১০ নম্বর কূপ খনন এবং রশিদপুরে একটি পাইপলাইন স্থাপন প্রকল্পের কাজ চলছে। এ কাজ শেষে সিলেট গ্যাস ফিল্ডস লিমিটেডের গ্যাস উৎপাদন আরও বাড়বে।

তিনি আরও জানান, দুটি প্রকল্পের আওতায় বিয়ানীবাজার ফিল্ড এবং ব্লক-১৩ ও ১৪ এর ডুপিটিলা, বাতচিয়া, হারারগঞ্জ, জকিগঞ্জ ও সিলেট সাউথ স্ট্রাকচারে ত্রিমাত্রিক (সিসমিক) জরিপ কাজের জন্য চুক্তিবদ্ধ প্রতিষ্ঠান বিজিপি ইনক.ফিল্ড ডিজাইনের কাজ সম্পন্নের পর প্রয়োজনীয় মালামাল কূপ অঞ্চলে আনা হচ্ছে।

জরিপ প্রকল্প দুটি বাস্তবায়নের পর নতুন একাধিক কূপ খননের সম্ভাবনা তৈরি হবে জানিয়ে সিলেট গ্যাস ফিল্ডসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক বলেন, “২০২৩ সালের মধ্যে সিলেটের আরও তিনটি কূপ খনন ও চারটি কূপ পুনর্খনন শুরু করবে সিলেট গ্যাস ফিল্ডস। এসব কাজ শেষ হলে এ অঞ্চল থেকে দৈনিক ১৬৪ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস উত্তোলন সম্ভব হবে।”

বাপেক্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ আলী জানান, সিলেট গ্যাস ফিল্ডসের আওতাধীন বিয়ানীবাজার গ্যাস কূপ-১ এর যাত্রা শুরু হয় ১৯৯৯ সালে। প্রায় ১৮ বছর গ্যাস উত্তোলন করে নিচের স্তরে গ্যাস না থাকায় ২০১৭ সালে কূপটি বন্ধ হয়ে যায়। এবার ওপরের নতুন স্তর থেকে গ্যাস উত্তোলনের জন্য কাজ শুরু করেছে রাষ্ট্রীয় তেল ও গ্যাস অনুসন্ধানকারী কোম্পানি বাপেক্স।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক