প্রবাসীকে হত্যায় স্ত্রীর প্রেমিকের মৃত্যুদণ্ড

আসামির অনুপস্থিতিতে মঙ্গলবার ১৫ বছর আগের এ মামলার রায় ঘোষণা করা হয়।

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 13 Sept 2022, 02:42 PM
Updated : 13 Sept 2022, 02:42 PM

গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরে এক প্রবাসীকে হত্যায় তার স্ত্রীর প্রেমিকের মৃত্যুদণ্ড হয়েছে।

 মঙ্গলবার গোপালগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মো. আব্বাস উদ্দীন আসামির অনুপস্থিতিতে ১৫ বছর আগের এ মামলার রায় ঘোষণা করেন।

 দণ্ডিত হাবিবুর রহমান (বর্তমান বয়স ৩৬) ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার নওয়াপাড়া গ্রামের মোতালেব মির্জার ছেলে। মৃত্যুদণ্ড ছাড়াও তাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। 

মামলার নথি থেকে জানা গেছে, কুয়েত প্রবাসী আজিজুর রহমানের স্ত্রীর সঙ্গে হাবিবুর রহমানের পরকীয়ার সম্পর্ক গড়ে ওঠে। বিষয়টি জানার পর আজিজুর রহমান দেশে আসেন। এরপর বিভিন্ন সময় মোবাইল ফোনে আজিজুর রহমানের সাথে হাবিবুর রহমানের কথা হয়। এক পর্যায়ে হাবিবুর রহমান তার বাসায় বেড়াতে যাবার জন্য আজিজুর রহমানকে দাওয়াত দেন।

 মামলার বরাতে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী এপিপি মো. শহিদুজ্জামান খান জানান, ২০০৭ সালের ১৮ মার্চ ফরিদপুরের ভাঙ্গায় হাবিবুর রহমানের বাসায় যাওয়ার পথে মুকসুদপুরের দিগনগরে পৌঁছালে স্ত্রী, স্ত্রীর প্রেমিক হাবিবুর রহমান ও তার লোকজন আজিজুর রহমানকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেন।

 পরদিন [১৯ মার্চ ] গম আজিজুরের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় ওইদিনই নিহতের বাবা মো. সরাব আলী বাদী হয়ে তিন জনকে আসামি করে মুকসুদপুর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। 

২০২০ সালের ৩ মার্চ ওই তিন আসামির বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে পুলিশ।

 পিপি বলেন, রায়ে অপর দুই আসামি নিহত আজিজুর রহমানের স্ত্রী (বর্তমান বয়স ৩২) ও গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর উপজেলার ভজনদী গ্রামের প্রয়াত কালা মিয়ার ছেলে আলী মিয়াকে (বর্তমান বয়স ৬২) খালাস দেওয়া হয়েছে।

 আসামির পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন অ্যাডভোকেট ফজলুল হক খান।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক