বিএনপির প্রতিষ্ঠাকালীন নেতা আবুল হাসনাতের মৃত্যু

ঢাকা পৌরসভা ১৯৮৩ সালে পৌর করপোরেশন হলে প্রথম মেয়রের দায়িত্ব পান আবুল হাসনাত।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 16 Sept 2022, 09:43 AM
Updated : 16 Sept 2022, 09:43 AM

গত শতকের আশির দশকে ঢাকা পৌর করপোরেশন হওয়ার পর প্রথম মেয়রের দায়িত্ব পালন করা বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার আবুল হাসনাত আর নেই।

শুক্রবার ভোর ৫টায় লন্ডনে নিজের বাসায় তার মৃত্যু হয়েছে বলে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানিয়েছেন তার ছেলে রাজীব হাসনাত।

বিএনপির প্রতিষ্ঠাকালীন কমিটির এই সদস্য পরে এইচ এম এরশাদ সরকারের মন্ত্রী হয়েছিলেন। তার বয়স হয়েছিল ৮২ বছর। 

রাজীব হাসনাত জানান, বার্ধ্যক্যজনিত নানা জটিলতায় ভুগছিলেন তার বাবা। শেষ সময়ে বাসায় থেকেই তিনি চিকিৎসা নিচ্ছিলেন। 

সুপ্রিম কোর্টের প্রবীণ আইনজীবী হাসনাত ২০১৯ সালে যুক্তরাজ্যে যান। এরপর করোনাভাইরাসের মহামারী শুরু হলে তিনি আর দেশে ফেরেননি।

আবুল হাসনাতের বাবা হাজী গণি সর্দার আজিমপুর ইউনিয়ন কমিটির চেয়ারম্যান ছিলেন। ঢাকা পৌরসভা ১৯৮৩ সালে পৌর করপোরেশন হলে প্রথম মেয়রের দায়িত্ব পান আবুল হাসনাত।

তিনি ছিলেন ১৯৭৮ সালে গঠিত বিএনপির প্রথম কমিটির সদস্য। ১৯৯০ সালে তিনি এইচ এম এরশাদের জাতীয় পার্টিতে যোগ দেন এবং উপ নির্বাচনে জিতে ঢাকা-৯ আসনের সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

জিয়ার মৃত্যুর পর আবদুস সাত্তারের মন্ত্রিসভায় কয়েক মাস গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন আবুল হাসনাত। পরে এরশাদের মন্ত্রিসভাতেও তিনি কয়েক মাস একই দপ্তরের মন্ত্রী ছিলেন।  

এরশাদের পতনের পর জাতীয় পার্টি ছেড়ে বিএনপিতে ফেরেন হাসনাত। সে সময় তাকে দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য করে নেওয়া হয়।

তবে ধীরে ধীরে তিনি রাজনীতিতে নিষ্ক্রিয় হয়ে পড়েন এবং আইন পেশায় বেশি মনোযোগ দেন।

স্ত্রী নাসরিন বেগম, ছেলে রাজীব হাসনাত ও মেয়ে ফারাহ হাসনাতকে রেখে গেছেন তিনি।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক