ঢাকার সমাবেশ নয়া পল্টনে করতে চায় বিএনপি

“আমরা পার্টি অফিসের সামনে সমাবেশ করাকে নিরাপদ মনে করি,” বলছেন মহানগর দক্ষিণের আহ্বায়ক আবদুস সালাম।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 15 Nov 2022, 03:51 PM
Updated : 15 Nov 2022, 03:51 PM

ঢাকায় বিভাগীয় সমাবেশ করার ক্ষেত্রে নয়া পল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনের সড়ককে ‘নিরাপদ’ মনে করছে বিএনপি। 

মঙ্গলবার ঢাকার পুলিশ কমিশনার খন্দকার গোলাম ফারুকের সঙ্গে সাক্ষাতের পর বিএনপির ঢাকা মহানগর দক্ষিণের আহ্বায়ক আবদুস সালাম সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, “আমরা আমাদের পার্টি অফিসের সামনেই সমাবেশ করতে চাই। কারণ আওয়ামী লীগ একটি সন্ত্রাস সৃষ্টি, বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিকারী দল। আপনারা দেখেছেন কীভাবে বিএনপির অন্যান্য সমাবেশগুলোতে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করেছে ক্ষমতাসীন এই দলটি।

“আমরা পার্টি অফিসের সামনে সমাবেশ করাকে নিরাপদ মনে করি। সেজন্য এই স্থানটিকে আমরা বেছে নিয়েছি। কমিশনার সাহেবকে সেটা আমরা বলেছি।”

বিএনপির মহানগর উত্তরের আহ্বায়ক আমান উল্লাহ আমান বলেন, “আমাদের দলের দপ্তর থেকে ১০ ডিসেম্বর নয়াপল্টনে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সামনে ঢাকার বিভাগীয় সমাবেশ করার জন্য ডিএমপিকে চিঠি দেওয়া হয়েছে। আমরা আজ বিষয়টি নিয়ে কমিশনারের সাথে আলোচনা করেছি। আমরা শান্তিপূর্ণ সমাবেশ অনুষ্ঠানের জন্য কমিশনার সাহেবকে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ারও অনুরোধ জানিয়েছি। 

“আমরা তাকে এও বলেছি যে, আপনি আওয়ামী লীগের কমিশনার নন, আপনি বিএনপির কমিশনার নন, আপনি সরকারের কমিনার। আপনি সরকারি কর্মকর্তাদের দায়িত্ব পালন করবে এটাই আমরা আশা করি। আমাদের পক্ষ থেকে আমরা আপনার কাছ থেকে সহযোগিতা চাই।”

আমান জানান, ডিএমপি কমিশনার সমাবেশের বিকল্প জায়গার কথাও তাদের বিবেচনা করতে বলেছেন।

বিএনপির প্রতিনিধি দলে আরও ছিলেন যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ, প্রচার সম্পাদক শহিদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, ঢাকা মহানগর দক্ষিনের সদস্য সচিব রফিকুল আলম মজনু ও উত্তরের সদস্য সচিব আমিনুল হক।

গত ১২ অক্টোবর চট্টগ্রামের পলো গ্রাউন্ডে চট্টগ্রামের বিভাগীয় সমাবেশের মধ্য দিয়ে দুই মাসের কর্মসূচি শুরু করে বিএনপি। ইতোমধ্যে চট্টগ্রাম, ময়মনসিংহ, খুলনা, বরিশাল ও ফরিদপুরে সমাবেশ শেষ হয়েছে। আগামী ১৯ নভেম্বর সিলেটের আলীয়া মাদ্রাসা মাঠে সমাবেশ হবে। ১০ ডিসেম্বরে ঢাকায় সমাবেশের মধ্য দিয়ে এ কর্মসূচি শেষ হওয়ার কথা রয়েছে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক