গুলি করলে বসে ‘চীনা বাদাম খাব না’: গয়েশ্বর

আঘাত করলে পাল্টা আঘাত করতে হবে, বলছেন গয়েশ্বর রায়।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 1 August 2022, 01:34 PM
Updated : 1 August 2022, 01:34 PM

পুলিশ গুলি কলে তা প্রতিরোধ করতে বিএনপির নেতা-কর্মীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন দলে স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়।

ভোলায় বিএনপির কর্মসূচিতে গুলিতে একজন নিহত হওয়ার প্রতিবাদে সোমবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এক সমাবেশে তিনি এই আহ্বান জানান।

গয়েশ্বর বলেন, “সরকারের যদি নির্দেশ না থাকত, তাহলে ইতিমধ্যে ভোলার এসপি সাসপেন্ড হত। যারা গুলি করছে, তারা ডিপার্টমেন্টে ক্লোজড হত। হয় নাই। তাই বুঝতে হবে, এটা সরকারের নির্দেশ।

“অর্থাৎ আগুন লাগাবে। আর বিভিন্ন খানে গুলি করে আমাদেরকে সাজা দেবে। মাইরে ফেলব, আর আমরা বসে বসে চীনা বাতাম খাব, আর চুড়ি পড়ব। এটা হয় না, এটা কোনোমতেই হয় না।”

নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে গয়েশ্বর বলেন, “দলের যত সংগঠন আছে, যে যেখানে আছে সবাইকে একত্রিত করে মাঠে নামতে হবে।”

ভোলায় স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতা আব্দুর রহিম হত্যার প্রতিবাদে সংগঠনটির কেন্দ্রীয় কমিটির ডাকে এই সমাবেশ হয়।

গয়েশ্বর বলেন, “আবদুর রহিম স্বেচ্ছাসেবক দলের জন্য জীবন দেয় নাই, রহিম জীবন দিয়েছে দলের জন্য, রহিম জীবন দিয়েছে দলের কর্মসূচি পালন করতে গিয়ে। আমি বলব, এই আত্মত্যাগ থেকে আপনারা শিক্ষা নিয়ে আমাদেরকে যে ধরনের প্রোগ্রাম দেওয়া দরকার, সেই ধরনের প্রোগ্রাম দিয়ে জবাব দিতে হবে।

“এই শোককে শক্তিতে পরিণত করে দেশের শত্রুকে জবাব দেওয়ার জন্য সবাইকে প্রস্তুতি নিতে হবে। আঘাত করলে পাল্টা আঘাত করতে হবে। আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান বলেছেন, টেক ব্যাক বাংলাদেশ। অর্থাৎ বাংলাদেশকে বাংলাদেশের জায়গা ফিরিয়ে নিতে হবে।”

স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমানের সভাপতিত্বে ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম ফিরোজের পরিচালনায় প্রতিবাদ সমাবেশে বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, স্বেচ্ছাসেবক দলের কেন্দ্রীয় নেতা গোলাম সারওয়ার, ইয়াসীন আলীও বক্তব্য রাখেন।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক