ভারতের রাষ্ট্রপতি হিসেবে শপথ নিলেন দ্রৌপদী মুর্মু

সাঁওতাল নারী দ্রৌপদী মুর্মু দেশটির সর্বোচ্চ সাংবিধানিক পদে আসীন হওয়া প্রথম আদিবাসী নারী এবং দেশটির সর্বকনিষ্ঠ রাষ্ট্রপতি।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 25 July 2022, 05:32 AM
Updated : 25 July 2022, 05:32 AM

ভারতের রাষ্ট্রপতি হিসেবে শপথ নিয়েছেন সাঁওতাল নারী দ্রৌপদী মুর্মু। দেশটির সর্বোচ্চ সাংবিধানিক পদে আসীন হওয়া প্রথম আদিবাসী নারী তিনি।

সোমবার ভারতের রাজধানী নয়া দিল্লির স্থানীয় সময় ১০টা ১৫ মিনিটে তিনি দেশটির ১৫তম প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেন।

ভারতের প্রধান বিচারপতি এনভি রামানা তাকে রাষ্ট্রপতির শপথ বাক্য পাঠ করান। এর পরপরই ২১ বার তোপধ্বনি করে নতুন রাষ্ট্রপতিকে বরণ করে নেওয়া হয়। ৬৪ বছর বয়সী মুর্মু ভারতের সর্বকনিষ্ঠ রাষ্ট্রপতি।

দেশটির সাবেক রাষ্ট্রপতি রাম নাথ কোভিন্দ, বিদায়ী ভাইস প্রেসিডেন্ট এম ভেঙ্কাইয়া নাইডু, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, ভারতীয় কংগ্রেসের সভাপতি সোনিয়া গান্ধী জাঁকজমকপূর্ণ এ শপথ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বলে জানিয়েছে ভারতীয় গণমাধ্যম।

প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেওয়ার পর দেওয়া প্রথম ভাষণে দ্রৌপদী বলেন, “সবার আশীর্বাদে আমি দেশের রাষ্ট্রপতি হয়েছি। আমি প্রগতিশীল একটি দেশের রাষ্ট্রপতি হয়েছি, তাই নিজেকে খুব সৌভাগ্যবতী মনে হচ্ছে।

“ভারতের রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হওয়া প্রথম ব্যক্তি আমি যে দেশের স্বাধীনতার পর জন্মগ্রহণ করেছে। স্বাধীনতা সংগ্রামীদের প্রত্যাশা পূরণে আমাদের সবাইকে একসঙ্গে চেষ্টা করতে হবে, ভারতের নাগরিকদের কাছে আবেদন আমার।”

মুর্মর শপথ অনুষ্ঠানে তার নিজ রাজ্য ওড়িশার মুখ্যমন্ত্রী নবীন পাটনায়েক, লোক সভার স্পিকার ওম বিড়লা এবং ভারতের সব রাজনৈতিক দলের এমপিরা উপস্থিত ছিলেন বলে জানিয়েছে এনডিটিভি।

শপথ নেওয়ার পর পার্লামেন্টের যৌথ অধিবেশনে দেওয়া ভাষণে মুর্মু বলেন, “আমার নির্বাচনই প্রমাণ, এই দেশের গরীবরা স্বপ্ন দেখতে পারে এবং তা পূরণও করতে পারে।”

তিনি জানান, প্রাথমিক শিক্ষা পাওয়াই তার কাছে স্বপ্ন ছিল। প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর কল্যাণের দিকে তিনি মনোযোগ দেবেন বলে জানিয়েছেন।

শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার আগে ভোরে তিনি দিল্লির রাজঘাটে গিয়ে মহাত্মা গান্ধীর প্রতি শ্রদ্ধা জানান। তারপর বিদায়ী প্রেসিডেন্ট রাম নাথ কোভিন্দের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন।

ওড়িশা রাজ্যের একটি জেলার একজন সাধারণ কাউন্সিলর হিসেবে রাজনৈতিক জীবন শুরু করা দ্রৌপদী মুর্মু ভারতের রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হয়ে ইতিহাসের অংশ হয়ে গেছেন।

বৃহস্পতিবার প্রেসিডেন্ট পদের প্রতিদ্বন্দ্বী যশবন্ত সিনহাকে পরাজিত করেই মুর্মু ইতিহাস সৃষ্টি করেন। একইসঙ্গে তিনি ভারতের প্রথম আদিবাসী নারী এবং সর্বকনিষ্ঠ প্রেসিডেন্ট হন। তিনি ভারতের দ্বিতীয় নারী প্রেসিডেন্ট।

ওড়িশার ময়ূরভাঞ্জ জেলার ছোট্ট গ্রাম বাইদাপোসিতে ১৯৫৮ সালের ২০ জুন জন্মগ্রহণ করেন দ্রৌপদী। বর্তমানে তার বয়স ৬৪ বছর। বয়স দিয়েও তিনি দুইটি নতুন রেকর্ড গড়েছেন।

তিনিই এখন ভারতের সর্বকনিষ্ঠ রাষ্ট্রপতি। ভারতের স্বাধীনতার পর জন্ম নেওয়া কেউ এই প্রথম দেশটির সর্বোচ্চ পদে অধিষ্ঠিত হলেন।

ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের মেয়াদ শেষ হয়েছে ২৪ জুলাই। এর পরেই দ্রৌপদী ভারতের পঞ্চদশ রাষ্ট্রপতি হিসেবে শপথ নিলেন।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক